হৃদয়কে গা’লি দিয়ে শাস্তি পেলেন আজমতউল্লাহ ওমরজাই

হৃদয়কে গা'লি দিয়ে শাস্তি পেলেন আজমতউল্লাহ ওমরজাই
Vinkmag ad

আফগানিস্তানের প্রধান কোচ জোনাথন ট্রট ও আফগান অলরাউন্ডার আজমতউল্লাহ ওমরজাইকে শাস্তি দিয়েছে আইসিসি (দ্য ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল)। দুজনেরই ১৫ শতাংশ করে ম্যাচ ফি জরিমানা করা হয়েছে।

সিলেটে বাংলাদেশ-আফগানিস্তান ২য় টি-টোয়েন্টি চলাকালীন সময়ে ঘটা পৃথক পৃথক ঘটনার জেরে শাস্তির আওতায় আসেন তারা।

ট্রট ভাঙেন আইসিসির কোড অব কন্ডাক্টের অনুচ্ছেদ নম্বর ২.৮। যেখানে বলা আছে আন্তর্জাতিক ম্যাচে আম্পায়ারের কোন সিদ্ধান্তে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করা যাবে না।

ঘটনাটি ঘটে যখন বৃষ্টির বিরতি চলছিল সিলেটে। অনফিল্ড আম্পায়াররা যখন পর্যবেক্ষণ শেষ করেন তখন জোনাথন ট্রট তাদের প্রতি অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেন। তাঁকে জানানো হয়েছিল ম্যাচ শুরু হতে আরও দেরি হবে।

এছাড়া আজমতউল্লাহ ওমরজাই ভাঙেন আইসিসি কোড অব কন্ডাক্টের অনুচ্ছেদ নম্বর ২.৫। যেখানে বলা আছে আন্তর্জাতিক ম্যাচে কোন ব্যাটার আউট হলে তাঁর সাথে এমন কোন ভাষার প্রয়োগ বা আচরণ করা যাবে না যা তাঁকে উত্তেজিত করে।

ঘটনাটি ঘটে বাংলাদেশের ইনিংসের ১৫ তম ওভারে। তাওহীদ হৃদয়কে আউট করে তাঁর দিকে তেড়ে গিয়ে অনুচিত আচরণ করেন ওমরজাই।

জোনাথন ট্রট ও আজমতউল্লাহ ওমরজাই, দুজনেরই ডিসিপ্লিনারি রেকর্ডে যুক্ত হয়েছে একটি করে ডিমেরিট পয়েন্ট। ২৪ মাস সময়কালে এটিই তাদের প্রথম নিয়ম ভঙ্গ করার দৃষ্টান্ত।

অনফিল্ড আম্পায়ার শরফদ্দৌলা ইবনে শহীদ সৈকত ও তানভির আহমেদ, তৃতীয় আম্পায়ার মাসুদুর রহমান মুকুল ও চতুর্থ আম্পায়ার গাজী সোহেলের অভিযোগ আমলে নিয়ে শাস্তি দেন ম্যাচ রেফারি নিয়ামুর রশিদ রাহুল।

দুজনই অভিযোগ স্বীকার করে শাস্তি মেনে নেওয়ায় আনুষ্ঠানিক শুনানির দরকার পড়েনি।

উল্লেখ্য, লেভেল ১ এর নিয়ম ভঙ্গে সর্বনিম্ন শাস্তি আনুষ্ঠানিক ভর্ৎসনা। সর্বোচ্চ শাস্তি ৫০ শতাংশ ম্যাচ ফি জরিমানা, সাথে ১ বা ২ ডিমেরিট পয়েন্ট।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

দলকে সিরিজ জিতিয়ে সাকিব মুহূর্তেই করলেন যত কাজ

Read Next

প্রোটিয়া যুবাদের বিপক্ষে বাংলাদেশের সিরিজ জয়

Total
0
Share