বৃষ্টিতে ভেস্তে গেল প্রথম ওয়ানডে

featured photo updated 1
Vinkmag ad

চেমসফোর্ডের বৃষ্টিতে ভেস্তে গেল আয়ারল্যান্ড-বাংলাদেশ সিরিজের প্রথম ওয়ানডে। মুশফিকুর রহিমের ফিফটির পরও বাংলাদেশ পায়নি আড়াইশো রানের সংগ্রহ। টার্গেট টপকাতে নেমে ১৬.৩ ওভারে আয়ারল্যান্ডের স্কোরবোর্ডে অবস্থা যখন ৬৫/৩; তখন বৃষ্টি এসে ভিজিয়ে দেয় ক্লাউড কাউন্টি গ্রাউন্ড। 

বাংলাদেশ সময় রাত ৯টা ৪৩ মিনিটে খেলা বন্ধ হয়। ঝিরঝির বৃষ্টি রূপ নেয় ঝুমে, ঝরে শ্রাবনধারায়। অবিরাম বৃষ্টিতে শেষপর্যন্ত ম্যাচটাই পরিত্যক্ত ঘোষণা করতে হয় আম্পায়ারদের। এর আগেও কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটি ক্রিকেট ক্লাবের ভেজা মাঠে আয়ারল্যান্ড উলভসের বিপক্ষে এক দিনের প্রস্তুতি ম্যাচও খেলতে পারেনি বাংলাদেশ।

২৪৭ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে আয়ারল্যান্ড শুরুতেই হারায় দুই উইকেট। ওপেনার পল স্টারলিংকে ফিরিয়ে বাংলাদেশকে প্রথম ব্রেকথ্রু এনে দেন শরিফুল ইসলাম। পরের উইকেটটা পকেটে নেন হাসান মাহমুদ। স্টারলিং ১৫ করতে পারলেও অধিনায়ক অ্যান্ড্রু বালবার্নি বিদায় নেন ৫ করতেই।

আরেক ওপেনার স্টেফান ডোহেনিকে নিজের বলেই ফিরতি ক্যাচ নেন তাইজুল ইসলাম। ৩৯ বল খেলা ডোহেনির ব্যাট থেকে আসে ১৭ রান। এরপর লরকান টাকারকে নিয়ে পালটা লড়াই চালানোর চেষ্টা করেন হ্যারি টেক্টর। বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়।

লম্বা সময় অপেক্ষার পর পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয় ম্যাচটি। 

এর আগে চেমসফোর্ডের কাউন্টি গ্রাউন্ডে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে টস জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় আয়ারল্যান্ড। আইপিএল থেকে ফেরা জশ লিটল শুরুর ওভারেই দেখান ক্যারিশমা। লিটলের অফ-স্টাম্পের ইয়র্কারে গোল্ডেন ডাক হয়ে ফেরত যান লিটন। লিটলের লেগ বিফোরের আবেদনে সঙ্গে-সঙ্গেই আঙুল উঁচিয়ে আউটের সিদ্ধান্ত জানান অনফিল্ড আম্পায়ার।

অধিনায়ক তামিমের সঙ্গে দু’য়েক কথা বলে রিভিউ না নিয়েই প্যাভিলিয়নের পথে হাটা ধরেন লিটন দাস। লিটনের দ্রুত বিদায়ে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার বদলে ব্যর্থ হয়েছেন তামিম ইকবাল। মার্ক অ্যাডায়ারের সুইংয়ে তামিমের ব্যাট ছুঁয়ে বল যায় উইকেটকিপারের হাতে। ১৯ বলের ইনিংসে তামিমের ব্যাট থেকে ১৪ রান। ৪ ওভারের মধ্যেই দুই ওপেনারকে হারিয়ে বিপাকে বাংলাদেশ।

এরপর সাকিব, শান্ত’র ব্যাটে স্বস্তি ফেরে টাইগার শিবিরে। কিন্তু গ্রাহাম হিউমের বলে এগিয়ে খেলতে গিয়ে ব্যক্তিগত ২০ রানে স্টাম্প হারান সাকিব। ভাঙে ৩৭ রানের জুটি। তাওহীদ হৃদয়কে নিয়ে স্কোরবোর্ডে আরও পঞ্চাশ যোগ করেন শান্ত। কিন্তু নিজে পূর্ণ করতে পারেননি ফিফটি। ক্যাম্ফারের বলে ৪৪ রানে থাকা শান্ত’র ক্যাচ লুফে নেন অ্যাডায়ার।

হৃদয় গ্রাহাম হিউমকে ডিফেন্ড করতে গিয়ে উইকেটের পেছনে লরকান টাকারের হাতে হয়েছেন ক্যাচ। ৩১ বল খেলে করেন ২৭। ২৬.৩ ওভারে বাংলাদেশ হারায় পঞ্চম উইকেটে, স্কোরবোর্ডে তখন ১২২। দ্রুত গতিতে রান তুলতে থাকেন মুশফিকুর রহিম ও মেহেদী হাসান মিরাজ।

দারুণ খেলতে থাকা মিরাজ জর্জ ডকরেলকে ছয় হাঁকাতে যেয়ে হারিয়েছেন উইকেট। মুশফিকের সঙ্গে গড়া ৬৫ রানের জুটিতে মিরাজের সংগ্রহ ২৭। ৬৩ বলে ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৪৪ তম ফিফটি পূর্ণ করেন মুশফিক। দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে বার্থডে বয় ছুটছিলেন বড় ইনিংসের দিকেই। কিন্তু ৬১ রানে থাকা মুশফিককে বিদায় করে আয়ারল্যান্ডকে ব্রেকথ্রু এনে দেন লিটল।

শেষদিকে তাইজুল আর শরিফুল মিলে দলকে টেনে নিয়ে যেতে থাকেন লড়াকু সংগ্রহের পথে। এরমাঝেই তাইজুল ইসলামকে ফিরিয়ে লিটল ঝুলিতে নেন তিন নম্বর শিকার। ৩৬ বল খেলে ১ চারে তাইজুলের সংগ্রহ ১৪। শেষপর্যন্ত ৯ উইকেট হারিয়ে নির্ধারিত পঞ্চাশ ওভারে বাংলাদেশ পায় ২৪৬ রানের সংগ্রহ।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ফখর ভেবেছিলেন চ্যাপম্যান হবেন, হলেন নিজেই!

Read Next

সুরিয়ার দাপটে হারল ব্যাঙ্গালোর, বাহবা দিলেন কোহলিও

Total
0
Share