৪৬৬৯ কোটি রূপি খরচায় উইমেন্স আইপিএলের পাঁচ দল

উইমেন্স টি-টোয়েন্টি চ্যালেঞ্জে চ্যাম্পিয়ন সালমাদের ট্রেইলব্লেজার্স
Vinkmag ad

২০০৮ সালে পুরুষদের আইপিএলের প্রথম সংস্করণের রেকর্ড ভেঙে দিল উইমেন্স আইপিএল। পাঁচ দলের বিডিংয়ে বিসিসিআইয়ের কোষাগারে এল রেকর্ড ৪৬৬৯.৯৯ কোটি রূপি। পাঁচটি শহরের নাম অনুযায়ী দলের নাম নির্ধারণ করা হয়েছে।

সবচেয়ে বেশি দাম, ১২৮৯ কোটি রূপি খরচায় আদানি গ্রুপ কিনেছে আহমেদাবাদ ফ্র্যাঞ্চাইজি। ব্যাঙ্গালোরের মালিকানায় রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স স্পোর্টস প্রাইভেট লিমিটেড। ইন্ডিয়া উইন স্পোর্টস প্রাইভেট লিমিটেড ৯১২.৯৯ কোটিতে মুম্বাই দলের স্বত্ব পেয়েছে। 

ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের (বিসিসিআই) সচিব জয় শাহ বলেছে,

‘আজ ক্রিকেটে একটি ঐতিহাসিক দিন কারণ উদ্বোধনী ডব্লিউপিএলের দলগুলির জন্য বিডিং ২০০৮ সালে উদ্বোধনী পুরুষদের আইপিএলের রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে! বিজয়ীদের অভিনন্দন কারণ আমরা মোট দর ৪৬৬৯.৯৯ কোটি রূপি অর্জন করেছি। এটি নারী ক্রিকেটে একটি বিপ্লবের সূচনা।’

দলগুলো সাজানোর জন্য থাকবে নিলাম প্রক্রিয়াও। এর আগে পাঁচ বছরের জন্য ৯৫১ কোটি রূপি খরচায় নারীদের আইপিএলের সম্প্রচার স্বত্ব কিনেছে ভায়োকম১৮।

নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষের পরই উইমেন্স আইপিএল শুরু করার পরিকল্পনা করেছে বিসিসিআই। আগামী ৩ মার্চ থেকে ২৬ মার্চ পর্যন্ত হতে পারে নারীদের প্রথম আইপিএল।

২০২৩ উইমেন্স আইপিএলের পাঁচ দল:

আহমেদাবাদ: আদানি স্পোর্টসলাইন প্রাইভেট লিমিটেড (১,২৮৯ কোটি রূপি)
মুম্বাই: ইন্ডিয়াউইন স্পোর্টস প্রাইভেট লিমিটেড (৯১২.৯৯ কোটি রূপি)
ব্যাঙ্গালোর: রয়্যালস চ্যালেঞ্জার্স স্পোর্টস প্রাইভেট লিমিটেড (৯০১ কোটি রূপি)
দিল্লি: জেএসডব্লুউ জিএমআর ক্রিকেট প্রাইভেট লিমিটেড (৮১০ কোটি রূপি)।
লখনৌ: ক্যাপ্রি গ্লোবাল হোল্ডিং প্রাইভেট লিমিটেড (৭৫৭ কোটি রূপি)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

আইসিসির চোখে টি-টোয়েন্টিতে বর্ষসেরা সুরিয়াকুমার

Read Next

আইসিসির বর্ষসেরা ইমার্জিং ক্রিকেটার হলেন জানসেন

Total
23
Share