স্মিথ-খাজার জোড়া শতকে সিডনিতে অস্ট্রেলিয়ার দাপট

স্মিথ-খাজার জোড়া শতকে সিডনিতে অস্ট্রেলিয়ার দাপট
Vinkmag ad

সিডনি টেস্টের প্রথম দিনের প্রায় অর্ধেক সময় বৃষ্টি আর আলোকসল্পতায় কেটে যায়, প্রকৃতির প্রতিকূলতার সাথে লড়াই করে প্রথম দিনে খেলা মাঠে গড়ায় মাত্র ৪৭ ওভার। প্রথম দিনের মতো দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনেও বৃষ্টি বাধায় পড়তে হয় উসমান খাজা ও স্টিভেন স্মিথকে। মাত্র তিন ওভার খেলা মাঠে গড়াতেই নামে বৃষ্টি, তবে সেটা প্রথম দিনের মতো এতোটা প্রভাব ফেলেনি। প্রথম দিনের অর্ধেক বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ায় দ্বিতীয় দিনে বৃষ্টির শঙ্কায় দর্শক সংখ্যা কমে যায়, প্রথম দিনে খেলা দেখতে আসা দর্শকদের সংখ্যা ছিল প্রায় একত্রিশ হাজারের মতো, দ্বিতীয় দিনে সেটা কমে আসে সাতাশ হাজারে।

তবে বৃষ্টি থামার পর খেলা মাঠে গড়ালে মাঠে দর্শকদের হতাশ করেননি স্টিভ স্মিথ ও উসমান খাজা। দুজনের দশম শতরানের জুটিতে মাতিয়ে রাখে সবাইকে, সেই সাথে ছাড়িয়ে যান নিজেদের ১৮৮ রানের জুটি। যেখানে সেঞ্চুরির দেখা পান স্মিথ ও খাজা। সিডনি টেস্টে শতক হাঁকিয়ে স্মিথ সেঞ্চুরি সংখ্যায় ছাড়িয়ে যান স্যার ডন ব্র‍্যাডম্যানকে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

২ উইকেটে ১৪৭ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনে খেলা শুরু করে অস্ট্রেলিয়া, দিনের দ্বিতীয় তৃতীয় ওভার শেষ হতে নামে বৃষ্টি। তবে সেটা সময়ক্ষেপণ হয়নি তেমন একটা, দ্রুত শুরু হয় খেলা। সেখানেও জমে উঠে স্মিথ-খাজা জুটি, গড়ে ওঠে শতরানের যা ছাড়িয়ে যায় আগের সর্বোচ্চ ১৮৮ রানের। সিডনির ক্রিকেট গ্রাউন্ডে নিজেদের জুটিকে টেনে লম্বা করেন স্মিথ ও খাজা আর সেটা থামে দ্বিশতক ছাড়িয়ে ২০৯ রানে। দুজনেই করেন সেঞ্চুরি। স্মিথ-খাজার জোড়া শতকে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে অস্ট্রেলিয়া।

৫৩ রানে দিনের খেলা শুরু করা উসমান খাজা পানি পানের বিরতির পর সেঞ্চুরি তুলে নেন ২০৬ বলে ৪ বাউন্ডারি এবং এক ছক্কার সাহায্যে। সেঞ্চুরির পথে খাজা স্টিভ স্মিথের সাথে গড়েন শতরানের জুটি। খাজার পর স্মিথ ফিফটি করেন ৯৯ বলে। অস্ট্রেলিয়া লাঞ্চে যায় ২ উইকেটে ২৬৬ রানে। লাঞ্চের পর স্মিথ-খাজার তৃতীয় উইকেট জুটি ছাড়িয়ে যায় দেড়শো, যেখানে অপেক্ষায় থাকে তাদের ১৮৮ রানের জুটি ভাঙার।

চা বিরতির পর সেই রেকর্ড স্পর্শ করে স্মিথ-খাজা, ২০১৮ সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে করা ১৮৮ রানের জুটি রেকর্ড ভেঙে স্মিথ-খাজারা পৌঁছে যান ২০০ রানে। ৩৩ ইনিংসে নিজেদের ১০ম শতরানের জুটিকে দ্বিশতকে রূপ দেন স্মিথ ও খাজা। সেই সাথে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩৫০।

এরপর ২০৬ বলে সেঞ্চুরি করা খাজা, দেড়শো করেন ৩০৫ বলে। খাজার দেড়শো পর স্মিথও পান সেঞ্চুরির দেখা, ১৯০ বলে স্মিথ পৌছে যান ক্যারিয়ারের ত্রিশতম শতকে। সেই সাথে তিনি ছাড়িয়ে স্যার ডন ব্র‍্যাডম্যানকে।

সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে স্মিথ আর বেশিক্ষণ ক্রিজে টিকতে পারেননি, কেশব মহারাজের বলে ফিরতি ক্যাচ দিয়ে স্মিথ ফিরেন ১০৪ রানে। স্মিথকে ফিরিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকাকে দিনের প্রথম সাফল্য এনে দেন মহারাজ। সেই সাথে ২০৯ রানের রেকর্ডগড়া জুটি ভাঙায় স্বস্তি ফিরে প্রোটিয়া শিবিরে।

দিনের দ্বিতীয় সাফল্য পেতেও আরেকটু বেগ পেতে হয় প্রোটিয়াদের। কারণ ট্রাভিস হেড আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে প্রোটিয়া বোলারদের নাস্তানাবুদ করেন। সেই সাথে বৃষ্টি উপেক্ষা করে মাঠে আসা সাতাশ হাজার দর্শককে টি২০ ক্রিকেটের আমেজ দেন হেড। তার ৫৯ বলে ৭০ রানের ইনিংসে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডের দর্শক সারিতে আনন্দের খোরাক পায়। হেড ৭০ রানের ইনিংসটি সাজান ৮ বাউন্ডারি এবং ১ ছক্কায়। সেই সাথে চতুর্থ উইকেটে খাজার সাথে ১১৭ বলে গড়েন ১১২ রানের জুটি। সফরকারীদের জন্য হুমকি হয়ে ওঠা হেড ফিরিয়ে দিনের দ্বিতীয় সাফল্য এনে দেন কাগিসো রাবাদা।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

দিনের শেষ সেশনের পানি পানের বিরতির পর আবারও বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। এরপর আর খেলা মাঠে গড়ায়নি, প্রথম দিনে মারনাস লাবুশেইনের সাথে ১৩৫, দ্বিতীয় দিনে স্টিভ স্মিথের সাথে ২০৯ এবং দিনের শেষ সেশনে ট্রাভিস হেডের সাথে ১১২ রানের জুটি গড়া উসমান খাজা দ্বিতীয় দিন শেষে ১৯৫ রানে অপরাজিত আছেন দ্বিশতকের অপেক্ষায়। তার সাথে ৫ রানে অপরাজিত আছেন ম্যাট রেনশ।

দ্বিতীয় দিন শেষে ১৩১ ওভারে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৪৭৫ রান। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ২টি উইকেট শিকার করেছেন আনরিক নরকিয়া, ১টি করে উইকেট নেন কাগিসো রাবাদা ও কেশব মহারাজা।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপ, বাংলাদেশের গ্রুপে নেই ভারত-পাকিস্তান

Read Next

যেকারণে খুলনা টাইগার্সের অধিনায়ক তামিম নন, রাব্বি

Total
41
Share