ভ্যাকেশন ক্যাপ্টেন্সির পর লিটনের চোখ কিছু করে দেখানোতে

ভ্যাকেশন ক্যাপ্টেন্সির পর লিটনের চোখ কিছু করে দেখানোতে
Vinkmag ad

লিটন দাসকে ভবিষ্যত অধিনায়ক হিসেবে অনেকদিন ধরেই ভাবছে বিসিবি। তবে পূর্ণ মেয়াদে অধিনায়কত্ব করার সুযোগ আসেনি। এর আগে মাত্র একটি টি-টোয়েন্টিতে অধিনায়কত্ব করেছেন, তাও নিয়মিত অধিনায়কের চোটে। এবার ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালের চোটে ভারতের বিপক্ষে সিরিজে নেতৃত্ব দিবেন এই উইকেট রক্ষক ব্যাটার। তিনি নিজে বেশ রোমাঞ্চিত এ নিয়ে।

তিনটি ওয়ানডে ও দুইটি টেস্ট সিরিজ খেলতে ভারত এখন বাংলাদেশে। আগামীকাল (৪ ডিসেম্বর) মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম ওয়ানডেতে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ-ভারত। নিয়মিত অধিনায়ক তামিম ইকবাল চোটে পড়ায় ওয়ানডেতে নেতৃত্ব দিবেন লিটন।

আজ ম্যাচ পূর্ববর্তী দিনের আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেন লিটন। শুরুটাই করেছেন নিজের অধিনায়কত্ব নিয়ে রোমাঞ্চের গল্প শুনিয়ে।

তিনি বলেন, ‘এত বড় সিরিজে আমাকে এই সুযোগ দেওয়ার জন্য বিসিবিকে ধন্যবাদ। আমি রোমাঞ্চিত। চেষ্টা করব আমার সামর্থ্য দেখানোর। সাধারণ খেলোয়াড় হিসেবে খেলার সময়ও দায়িত্ব থাকে।’

‘আমার জন্য এটা অনেক এক্সাইটিং। প্রথমবার এমন দায়িত্ব পেলাম। প্রত্যেক খেলোয়াড়েরই বাংলাদেশ দলের হয়ে খেলার স্বপ্ন থাকে। তার থেকেও বড় স্বপ্ন দলকে নেতৃত্ব দেওয়া। প্রত্যেক খেলোয়াড়ের কাছেই অধিনায়ক হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার দিন সবচেয়ে বড়।’

অধিনায়ক হওয়ার পর দলের ক্রিকেটারদের সাথে কেমন কথা হয়েছে জানিয়ে লিটন বলেন, ‘অধিনায়ক হিসেবে দলকে গাইড করার বাড়তি দায়িত্ব থাকে। এর চেয়ে বেশি কিছু না। গত ২-৩ দিন ধরে তো অনুশীলন করছি। সাধারণত যেসব কথাবার্তা হয় এসবই হয়েছে। বাড়তি কোনো কথাবার্তা হয়নি।’

এর আগে লিটন আন্তর্জাতিক ম্যাচে অধিনায়কত্ব করেছেন একটি। ২০২১ সালে নিউজিল্যান্ড সফরে নিয়মিত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ চোটে পড়ায় ইডেন পার্কে তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে টস করতে নামেন লিটন। এ ছাড়া চলতি বছর ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে তিনদিনের প্রস্তুতি ম্যাচেও নেতৃত্ব দিয়েছেন এই উইকেট রক্ষক।

আগের দুইবারের সাথে এবারের পার্থক্য খুঁজে পাচ্ছেন লিটন। যেখানে নিজেই জানিয়েছেন আগের দুই ম্যাচ ছিল ভ্যাকেশন। এবার ৩ ম্যাচ সিরিজে সব মিলিয়ে ১০ দিনের মতো সময় পাচ্ছেন।

ভালো কিছুর প্রত্যয় জানিয়ে লিটন যোগ করেন, ‘প্রথমে যে দুইটা বললেন সে দুইটা ছিল ভ্যাকেশন আমার। আমি কিছুই জানতাম না কিন্তু হুট করে অধিনায়ক হয়ে গেছি। ওটাতে কিছু করার ছিল না। এবার আমিও খবর পেয়েছি গতকাল। দলের সাথে ১০ দিন কাজ করার সুযোগ আছে। দলের কাছ থেকে ভালো ফিডব্যাক আশা করছি।’

লিটন যখন নেতৃত্ব দিবেন তখন সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে দলে পাচ্ছেন সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের মতো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের। লিটন আশাবাদী এসব অভিজ্ঞ ক্রিকেটার যেকোনো সময় তাকে সহায়তা করবেন।

এ নিয়ে তার ভাষ্য, ‘আমি যখন দায়িত্ব পেলাম, আমার হাতে ১৫ বছরের অভিজ্ঞতাসম্পন্ন ৩ জন সিনিয়র খেলোয়াড় আছে, এটা ভেবে অনেক ভালো লাগছে। অবশ্যই আমি চাইব তারা মাঠে আমাকে সহায়তা করবে। প্রথমবার এত বড় সিরিজে দায়িত্ব পেলাম। আমি আশাবাদী, বড় ভাইরা আমাকে সহায়তা করবে। তাদের কাছে যেকোনো সময় সহযোগিতা পাব।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

আইপিএলে বাংলাদেশিদের সুযোগ পাওয়া নিয়ে রোহিতের ভাষ্য

Read Next

রোহিত শর্মাও বলছেন বাংলাদেশ-ভারত লড়াইটা জমে উঠেছে

Total
7
Share