বিশ্বকাপ ভেন্যু চূড়ান্ত, চ্যাম্পিয়নের স্মৃতি ফেরানোর কাজও শুরু

বিশ্বকাপ ভেন্যু চূড়ান্ত, চ্যাম্পিয়নের স্মৃতি ফেরানোর কাজও শুরু
Vinkmag ad

২০২০ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জিতে ইতিহাস গড়েছিল আকবর আলির বাংলাদেশ। কোভিড পরবর্তী ২০২২ বিশ্বকাপে অবশ্য ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা বেশ বাজেভাবে শেষ করে। তবে শিরোপা আরেক দফা নিজেদের ঘরে ফেরাতে নতুন করে পরিকল্পনা সাজিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিতব্য ২০২৪ যুব বিশ্বকাপের জন্য রণ কৌশল হচ্ছে ২০২০ সালের আদলে।

চলতি বছরের শুরুর দিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজে অনুষ্ঠিত যুব বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ৮ম স্থান নিয়ে দেশে ফেরে। এরপরই নড়েচড়ে বসে বিসিবির গেম ডেভেলপমেন্ট বিভাগ। কোচিং প্যানেলে আসে পরিবর্তন। জাতীয় দলের সাবেক কোচ স্টুয়ার্ট ল’কে প্রধান কোচ করে ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় ভারতীয় ওয়াসিম জাফরকে।

যুবাদের জন্য আগামী বিশ্বকাপ সামনে রেখে বেশ কিছু সিরিজে আয়োজনও করছে বিসিবি। ঘরে-বাইরের এসব সিরিজে ওয়ানডে ম্যাচ অন্তত ২৫ টি। যার শুরুটা হয়েছে পাকিস্তান সফর দিয়ে। একমাত্র চারদিনের ম্যচ ড্র করার পাশাপাশি টাইগার যুবারা ২-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জিতে নেয়। তবে ২ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজও হয়েছে ১-১ ব্যবধানে ড্র।

দল গঠনের আগে বেশ কয়েকবারই কোচ ও নির্বাচক বলেছেন ২০২৪ সালের বিশ্বকাপ ভেন্যুটা জানতে পারলে তাদের জন্য কাজ সহজ হত। দিন কয়েক আগেই আইসিসি জানিয়েছে পরবর্তী যুব বিশ্বকাপ শ্রীলঙ্কায়। পাকিস্তান থেকে দেশে ফিরে আজ (২০ নভেম্বর) আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচক হান্নান সরকার জানিয়েছেন শিরোপা জয়ের স্মৃতি এবার ফেরাতে চান তারা।

তিনি যেমনটা বলছিলেন, ‘২০২০ এ আমরা যেভাবে পরিকল্পনা করেছি, গেম ডেভেলপমেন্ট থেকে যে সাহায্য করা হয়েছিল হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে, এবারও সেভাবে এগোচ্ছি। ৩১ টার মতো ওয়ানডে ও কিছু লঙ্গার ভার্সন ছিল, প্রায় ৪০ টার মতো ম্যাচ। এবারও প্রায় একই, গেম ডেভেলপমেন্ট থেকে যেটা জানানো হয়েছে এবার ২৫ টা ওয়ানডে খেলবো। আমার মনে হয় সেটা প্রস্তুতির জন্য যথেষ্ট হতে পারে। সে ক্ষেত্রে ২০২০ এর চ্যাম্পিয়নের স্মৃতি যদি আমরা ফিরিয়ে আনতে চাই আমাদের এ ধরণের প্রস্তুতি দরকার।’

‘আর এই যাত্রাটা আমরা পাকিস্তান সফর দিয়ে চমৎকারভাবে শুরু করলাম। আমাদের খেলোয়াড়েরা আত্মবিশ্বাস দিয়েছে। চ্যাম্পিয়ন হওয়াতো পরের ব্যাপার তবে একজন নির্বাচক হিসেবে আমি বলবো আগে লক্ষ্য সেমিফাইনাল খেলা। ২০২০ বিশ্বকাপেও আমি সেমিফাইনাল লক্ষ্য করে গিয়েছি, এবারও একই লক্ষ্য নিয়ে যাবো।’

ভেন্যু চূড়ান্ত হওয়ায় কাজ সহজ হয়েছে উল্লেখ করে হান্নান যোগ করেন, ‘শ্রীলঙ্কায় যেটা হবে, ২০২৪ অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ। উপমহাদেশেই হবে। আমরা কিন্তু দল গঠনের ক্ষেত্রে অপেক্ষা করছিলাম। বিশ্বকাপের ভেন্যুটা কোথায় হয় জানার জন্য। স্টুয়ার্ট আছে কোচ, আমরা দুজন আছি নির্বাচক। আমরা যখন দল গড়ি, কন্ডিশন চিন্তা করেই করি। পাকিস্তানের এই সফরটা আমাদের অনেক বেশি সাহায্য করেছে। আমরা এখন একটা জায়গায় আসতে পেরেছি যে কি ধরণের খেলোয়াড় নিয়ে আমরা যেতে পারি।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে ফিরে ব্যর্থ মাহমুদউল্লাহ

Read Next

৫ উইকেট নিয়ে মিরাজ হাসলেও পরাজিত দলে সাইফউদ্দিন

Total
1
Share