বড় দলগুলো ভুল থেকে শিক্ষা নেয়: বেন স্টোকস

featured photo update 3
Vinkmag ad

সুপার টুয়েলভে আয়ারল্যান্ডের কাছে বৃষ্টি আইনে হেরেছিল ইংল্যান্ড। ক্ষনিকের ব্যর্থতাকে মাথায় গেঁথে না রেখে সামনে এগিয়ে যাওয়ার দারুণ মন্ত্রে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ইংলিশরা। সেমিফাইনালে উঠে ভারতকে রীতিমতো উড়িয়ে দিয়েছে জস বাটলারের দল। এরপর ফাইনালে পাকিস্তানকে ৫ উইকেটে হারিয়ে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি শিরোপা উঁচিয়ে ধরলো।

ম্যাচে ব্যাট হাতে পরিস্থিতি বিবেচনায় দারুণ এক ফিফটি বেন স্টোকসের। ম্যাচ শেষে এই অলরাউন্ডার জানালেন বড় দলগুলো ভুল থেকে শিক্ষা নেয়।

অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে (এমসিজি) ফাইনালে পাকিস্তানের মুখোমুখি হওয়ার আগে ৩০ বছর আগের ইতিহাস ঘুরে ফিরে উঁকি দিচ্ছিল। এই মাঠেই ইংল্যান্ডকে ফাইনালে হারিয়ে ১৯৯২ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপ জিতেছিল ইমরান খানের পাকিস্তান।

আরেক দফা মেলবোর্ন, আরেক দফা দুই দলের ফাইনাল ভক্ত সমর্থকদের অতীতে ফিরিয়ে নিয়েছে। অনেকেই ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি দেখছিলেন, শিরোপা পাকিস্তানের ঘরে উঠবে এমনটা ধারণা করেছেন। তবে সব ছাপিয়ে পুরোনো ইতিহাস নয়, নতুন ইতিহাসই গড়লো ইংল্যান্ড।

আগে ব্যাট করা পাকিস্তানকে ৮ উইকেটে ১৩৭ রানের বেশি করতে দেয়নি ইংলিশ বোলাররা। বিশেষ করে বাঁহাতি পেসার স্যাম কারেন ও লেগ স্পিনার আদিল রশিদ ছিলেন দুর্দান্ত। ৪ ওভারে মাত্র ১২ রান দিয়ে ৩ উইকেট কারেনের। ২২ রানে ২ উইকেট রশিদের।

জবাবে ৪৫ রানে ৩ উইকেট হারানোর পরও স্টোকসের ৪৯ বলে অপরাজিত ৫২ রানে ভর করে ৬ বল ও ৫ উইকেট হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছায় ইংলিশরা। বল হাতেও ৩২ রানে নেন ১ উইকেট।

২০১৬ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে কোলকাতার ইডেন গার্ডেন্সে বেন স্টোকসের করা শেষ ওভারে টানা ৪ ছক্কা হাঁকিয়ে শিরোপা কেড়ে নেয় ওয়েস্ট ইন্ডিজের কার্লোস ব্র‍্যাথওয়েট। দুঃস্বপ্নের সেই রাত পেছনে ফেলে ২০১৯ ওয়ানডে বিশ্বকাপের পর এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়েও ইংলিশদের নায়ক স্টোকস।

ম্যাচ শেষে পুরষ্কার বিতরণীতে নিজের কথার চেয়ে দলের ঘুরের দাঁড়ানোর ব্যাপারেই জানিয়েছেন বেশি। আয়ারল্যান্ড ম্যাচে হারের পর বিশ্বকাপ জয়, কীভাবে ভুল শুধরেছে ইংল্যান্ড সেই গল্প শোনালেন স্টোকস।

তিনি বলেন, ‘টুর্নামেন্টের শুরুর দিকে এটা (আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে হার) হওয়াতে ভুল শোধরানোর সুযোগ পাওয়া গেছে। এ ধরণের টুর্নামেন্টে আপনি কখনো ভুল ত্রুটী নিয়ে সামনে এগোতে পারেন না। আয়ারল্যান্ডকে কৃতিত্ব দিতে হয় কারণ তারা আমাদের হারিয়েছে এবং জাগ্রত করেছে। কিন্তু সেরা দলগুলো ভুল থেকে শিক্ষা নেয় আর ভুল দ্বারা প্রভাবিত হওয়ার সুযোগ দেয় না।’

আজ শিরোপা জেতা ম্যাচে বোলারদের কৃতিত্বও দিলেন বেশ ভালোভাবে, ‘ফাইনালে বিশেষ করে আপনি যখন রান তাড়া করবেন…আপনি সম্ভবত ভুলে যাবেন এর আগের সব কঠোর পরিশ্রম, কীভাবে আমরা বল করেছি। আদিল রশিদ ও স্যাম কারেন আমাদের ম্যাচ জিতিয়েছে। উইকেট কিছুটা ট্রিকি ছিল, সেখানে পাকিস্তানকে ১৩০ এর আশেপাশে আটকানোর কৃতিত্ব বোলারদের প্রাপ্য।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ম্যাচ সেরার পুরস্কার নিয়ে কারেন বললেন ‘এটা স্টোকসের’

Read Next

গুজরাট থেকে ফার্গুসন, গুরবাজকে কিনে নিল কোলকাতা

Total
1
Share