বগুড়ায় জিতেছে রংপুর, সিলেট ইমনের ৮ রানের আক্ষেপ

পারভেজ হোসেন ইমন
Vinkmag ad

২৪তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) চতুর্থ রাউন্ডে টায়ার-১ এ তিন দিনেই জিতেছে রংপুর। ইনিংসে ৮ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা পেসার মুশফিক হাসান। সিলেটে আরেক ম্যাচে চালকের আসনে স্বাগতিক সিলেট বিভাগ। প্রথম ইনিংসে তাদের ৪৮১ রানের জবাবে ২৩৭ রানেই গুটিয়ে গেছে চট্টগ্রাম। ফলো অনে পড়ে বিনা উইকেটে সংগ্রহ ৮৮ রান তৃতীয় দিন শেষে। প্রথম ইনিংসে ৮ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস চট্টগ্রামের পারভেজ হোসেন ইমনের।

ঢাকা-রংপুর (শহীদ চান্দু স্টেডিয়াম, বগুড়া)

২১১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেটে ১৩৫ রানে আগেরদিন শেষ করেছিল রংপুর। সোহরাওয়ার্দী শুভ ৫৮ ও নাসির হোসেন ২৬ রানে অপরাজিত ছিলেন।

আজ দিনের শুরুতেই কোনো রান না যোগ করে আউট হন নাসির। শুভও বেশি দূর যেতে পারেননি। ১৪৮ বলে ৯ চারে থেমেছেন ৭২ রানে। তবে লক্ষ্যে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে অধিনায়ক আকবর আলির ৫১ বলে ৬ চারে সাজানো অপরাজিত ৪০ রানই যথেষ্ট ছিল। লেজের দিকের ব্যাটারদের নিয়ে জয় এনে দেন আকবর।

৩ উইকেটে হারা ম্যাচে ঢাকা বিভাগের হয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে সালাউদ্দিন শাকিল নেন সর্বোচ্চ ৩ উইকেট।

এর আগে ঢাকা প্রথম ইনিংসে ৮৪ রানে অল আউট হয়। যেখানে রংপুর বিভাগ গুটিয়ে যায় ৭৩ রানে। ১১ রানের লিড নিয়ে ঢাকা দ্বিতীয় ইনিংসে থামে ১৯৯ রানে। যেখানে একাই ৮ উইকেট নেন ম্যাচ সেরা হওয়া রংপুরের পেসার মুশফিক হাসান।

সিলেট-চট্টগ্রাম (সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম)

প্রথম ইনিংসে সিলেটের ৪৮১ রানের জবাবে চট্টগ্রাম ১ উইকেটে ৯৮ রান তুলে দ্বিতীয় দিন শেষ করেছিল। পিনাক ঘোষ ৪৯ ও পারভেজ হোসেন ইমন ৪৫ রানে অপরাজিত ছিলেন।

আজ তৃতীয় দিন ফিফটি তুলে বেশি দূর যেতে পারেননি পিনাক। ১৭৪ বলে ৬ চারে ৫৮ রানের ইনিংসটি শেষ হয় আবু জায়েদ রাহীর বলে আউট হলে। এরপর পেসার রাহী ও বাঁহাতি স্পিনার নাবিল সামাদের তোপে পড়ে বাকিদের আসা যাওয়া চলেছে। তবে এক পাশ আগলে রেখে প্রতিরোধের চেষ্টা করেছেন ইমন। যদিও শেষ পর্যন্ত পুড়েছেন আক্ষেপে, ২৪৩ বলে ৭ চারে ৯২ রান করে নাবিলের শিকার হন। চট্টগ্রাম গুটিয়ে গেছে ২৩৭ রানে।

চট্টগ্রামকে ফলো অনে ফেলার পথে ৫৬ রানে নাবিলের শিকার ৫ উইকেট। ৩৬ রানে ৪ উইকেট নেন রাহী।

এরপর ২৪৪ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে অবশ্য খানিক স্বস্তি নিয়েই দিন শেষ করেছে চট্টগ্রাম। বিনা উইকেটে তাদের স্কোরবোর্ডে ৮৮ রান। প্রথম ইনিংসের মতো ফিফটির দেখা পেয়েছেন পিনাক। অপরাজিত আছেন ৯২ বলে ৭ চারে ৫৭ রানে। অন্যদিকে প্রথম ইনিংসে খালি হাতে ফেরা আরেক ওপেনার জসিম উদ্দিন অপরাজিত ৭৭ বলে ২৫ রানে।

হাতে ১০ উইকেট নিয়ে ইনিংস ব্যবধানে হার এড়াতে এখনো চট্টগ্রামের প্রয়োজন ১৫৬ রান।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

কোহলি ইস্যুতে তেমন কিছু বলার নেই সাকিবের

Read Next

সোহানের আক্ষেপ কেবল একটি বাউন্ডারির

Total
5
Share