থাইল্যান্ডকে বাস্তবতা দেখিয়ে ফাইনালে ভারত

থাইল্যান্ডকে বাস্তবতা দেখিয়ে ফাইনালে ভারত
Vinkmag ad

চমক দেখিয়ে নারী এশিয়া কাপের সেমি-ফাইনাল ওঠা থাইল্যান্ডের জন্য কঠিন প্রতিপক্ষই অপেক্ষা করছিল। ভারতের সামনে পড়ে খুব বেশি কিছু করা সম্ভব না থাই নারীদের সেটা জানাই। প্রত্যাশিতভাবে হয়েছেও তাই, ৭৪ রানে জিতে ফাইনালে ভারত। তবে মাঠের ক্রিকেটে নিজেদের উন্নতির ছাপ ঠিকই রেখেছে থাইল্যান্ড।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম সেমি-ফাইনালে টস জিতে ফিল্ডিং নেয় থাইল্যান্ড। তবে ভারতকে আটকে দিতে পেরেছে ১৫০ এর নিচেই। শেফালি ভার্মার ৪২ রানের সাথে হারমনপ্রীত করের ৩৬ ও জেমিমা রড্রিগুয়েজের ২৭ রানে ভর করে ৬ উইকেটে ১৪৮ রানের সংগ্রহ তাদের।

জবাবে পুরো ২০ ওভার খেলে ৯ উইকেটে ৭৪ রানে থামে থাইল্যান্ড। সর্বোচ্চ ২১ রান করে আসে নারুইমল ছাইওয়াই ও নাত্তাইয়া বুচাথামের ব্যাটে।

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে কখনোই জয়ের পথে ছিল না থাইল্যান্ড। নারুওইমল ও বুচাথাম ছাড়া দুই অঙ্কই ছুঁতে পারেনি কোনো ব্যাটার। ভারতের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট দীপ্তি শর্মার।

এর আগে আগে ব্যাট করতে নেমে ভারতের দুই ওপেনার স্মৃতি মান্ধানা ও শেফালি ভার্মা ৪.৩ ওভারে তোলে ৩৮ রান। ১৪ বলে ১৩ রান করে টুর্নামেন্টে এখনো নিজের ছায়া হয়ে রইলেন স্মৃতি। তবে জীবন পেয়ে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৮ বলে ৫ চার ১ ছক্কায় ৪২ রান করেন শেফালি।

বাকিদের কেউ অবশ্য খুব বড় কোনো ইনিংস খেলতে পারেনি। তবে ছিল কার্যকরী কিছু ইনিংস। অধিনায়ক হারমনপ্রীত কর ৩০ বলে ৪ চারে খেলেন ৩৬ রানের ইনিংস। ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করা জেমিমা রড্রিগুয়েজ ২৬ বলে করেন ২৭ রান।

শেষ দিকে পুজা বস্ত্রাকর ১৩ বলে ১৭ রানে অপরাজিত ছিলেন। ১৫০ রানের নিচে ভারতকে আটকে রাখার পথে সর্ন্নারিন টিপচ।

সিলেট থেকে ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বাংলাদেশই হল ‘বাংলা ওয়াশ’

Read Next

ম্যাচ শেষে লিটন দাস শিখলেন, শেখালেন বাবর-রিজওয়ান

Total
1
Share