এনসিএলে দুই ইনিংসেই ব্যর্থ তামিম, ইমরুল, নাইম

Picsart 22 10 12 21 50 31 547
Vinkmag ad

চলমান জাতীয় ক্রিকেট লিগে খুলনায় নিজ নিজ দলের হয়ে ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করলেন দুই অধিনায়ক ইমরুল কায়েস ও মোহাম্মদ নাইম। অন্যদিকে ঘরের মাঠ চট্টগ্রামে প্রথম ইনিংসের থেকেও অল্পতে কাটা পড়েন তামিম ইকবাল।

চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে চলমান এনসিএলের টায়ার ওয়ান এর ম্যাচে স্বাগতিকরা প্রথম ইনিংসে নিয়মিত উইকেট হারিয়ে অল্পতে গুটিয়ে যায়। তাদের ১৪১ রানের বিপরীতে সিলেট বিভাগ স্কোরবোর্ডে জমা করে ৩১২ রান। লিড দাঁড়ায় ১৭১ রানের।

দ্বিতীয় ইনিংস ব্যাট করতে নেমে ৪ উইকেট খুইয়ে চট্টগ্রাম তৃতীয় দিন শেষ করেছে ১৬৯ রান তুলে। ফের ব্যর্থ ওপেনার তামিম ইকবাল। আগের ইনিংসে ৩১ করা তামিম আজ আউট হন কেবল ২০ রানে। নাবিল সামাদের বলে পড়েন লেগ বিফোরের ফাঁদে।

তবে আরেক ওপেনার সাব্বির হোসেন ফিফটি হাঁকিয়ে স্বাগতিক শিবিরে স্বস্তি ফেরান। এরপর পারভেজ হোসেন ইমন (১৪) ও অধিনায়ক ইরফান শুক্কুর বেশ দেখে-শুনে দিনের খেলা শেষ করে আসেন। এখনও পিছিয়ে দুই রানে; হাতে বাকি ৬ উইকেট।

অপরদিকে, খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে টায়ার টু’য়ের ম্যাচে ঘরের দল প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় মাত্র ১৩১ রানে। জবাব দিতে নেমে ঢাকা মেট্রোর ইনিংস সমাপ্ত ১৫৬’তে। দ্বিতীয় ইনিংসেও খুলনার ব্যাটারদের সেই বিপর্যয়; ব্যর্থতার ষোলকলা পূর্ণ করলেন ইমরুল কায়েস।

তবে প্রান্তিক নওরোজ নাবিল ও জিয়াউর রহমানের ফিফটিতে বাঁচে স্বাগতিকদের মান। ১৯১ রান জমা করে পায় ১৬৬ রানের লড়াকু সংগ্রহ।

দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান ইমরুল কায়েস টানা দুই ইনিংসেই ব্যর্থ। প্রথম ইনিংসে ৪ বলে ৪ করা ইমরুল এদিন বিদায় নেন কেবল ১ রানে।

ঢাকা মেট্রো লাঞ্চের পর ব্যাটিংয়ে নেমে শেষ বিকেল অবদি খেলে হারায় ৬ উইকেট। আগের ইনিংসে ডাক হয়ে ফেরা অধিনায়ক মোহাম্মদ নাইম আজ পাননি ১০ রানের বেশি। জয়ের জন্য কাল শেষ দিন মেট্রোর প্রয়োজন ৪১ রান; বাকি ৪ উইকেট।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

পাকিস্তানে সফরের জন্য ইংল্যান্ডের টেস্ট স্কোয়াড ঘোষণা

Read Next

একাধিক পরিবর্তন নিয়ে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

Total
12
Share