‘ভারত, পাকিস্তানকে পেলে বাংলাদেশের এনার্জি লেভেল ৯০-১০০ হয়ে যায়’

বাংলাদেশ নারী 3
Vinkmag ad

চলমান নারী এশিয়া কাপের আগামীকাল (৮ অক্টোবর) ভারতের মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ। এর আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে টাইগ্রেসরা হেরেছে ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে, অলআউট হতে হয়েছে ৭০ রানে। বাংলাদেশ দলের ব্যাটার মুর্শিদা খাতুন বলছেন ভারত, পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচের আগে নিজেদের মানসিক দৃঢ়তা, শক্তি, সামর্থ্য পুরোদমে বেড়ে যায়।

ভারত নারী দল মুহূর্তে বিশ্ব পরাশক্তির একটি। দিন কয়েক আগে ইংল্যান্ডের মাটিতে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে আসার কীর্তিও গড়েছে। ভারতের বিপক্ষে নিয়মিত খেলার সুযোগও পায়না বাংলাদেশ।

তবে আগামীকালকের ম্যাচের আগে এ নিয়ে খুব বেশি না ভেবে নিজেদের সেরা খেলাটা খেলতে চায় বাংলাদেশ। এর আগে ১২ টি টি-টোয়েন্টিতে মুখোমুখি হয়ে মাত্র দুইটি জিতেছে টাইগ্রেসরা। ২০১৮ এশিয়া কাপে গ্রুপ পর্ব ও ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে জিতেছে বাংলাদেশই। ফলে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন হয়েই এবার এশিয়া কাপ মিশন শুরু করে নিগার সুলতানা জ্যোতির দল।

ভারত ম্যাচ সামনে রেখে সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজ অনুশীলন শেষে সাংবাদিককের মুর্শিদা বলেন,

‘দেখেন, ওরা তো আমাদের চেয়ে অনেক শক্তিশালী। আমাদের চেয়ে অনেক বেশি ম্যাচ খেলেছে, অনেক ভালো। সম্প্রতি ইংল্যান্ডে খেলে আসলো। ওরা অনেক ভালো আমাদের থেকেও। আমরাও মোটামুটি ভালো শেপে আছি ব্যাটার কয়েকজন।’

‘আমরা যদি নিজেদের প্রসেস অনুযায়ী খেলতে পারি, রোল অনুযায়ী খেলতে পারি ইন শা আল্লাহ ভালো কিছু হবে। ওদের বোলিংটাও শক্তিশালী। তিন বিভাগেই শক্তিশালী। আমরাও সিমিলার কারণ আমরা ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন আর আমাদের ঘরের মাঠে খেলা। আমরা যদি তিনটা বিভাগেই ভালো করতে পারি ভালো কিছু হবে।’

ভারত, পাকিস্তানের বিপক্ষে শরীরি ভাষা বদলে যাওয়া প্রসঙ্গে আগের ম্যাচে ফিফটি হাঁকানো মুর্শিদা বলেন,

‘ভারতের বিপক্ষে ভালো খেলার চিন্তা আমার সবসময় বেশি থাকে। প্রস্তুতি ভালো থাকে। আমি নিজের রোল অনুযায়ী খেলবো কে বল করছে ওটা দেখবো না। আমি যেটা খেলতে পারি ওটাই চেষ্টা করবো। ভারত, পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ খেললে ৯০ শতাংশ থেকে ১০০ শতাংশে এনার্জি লেভেল চলে আসে।’

দলের বোলারদের নিয়ে আত্মবিশ্বাসী মুর্শিদা। আগের ম্যাচে অভিষিক্ত হ্যাটট্রিক কণ্যা বাঁহাতি পেসার ফারিহা ইসলাম তৃষ্ণাকে নিয়েও উচ্ছ্বসিত মুর্শিদা।

তিনি বলেন, ‘যে প্রক্রিয়া অনুযায়ী আমাদের বোলিং এগিয়ে যাচ্ছে সালমা আপু আছে, মেঘলা আছে, নাহিদা আছে। উনারা অনেক ভালো করছে। যদি ওই ফ্লোতে যায়, ইন শা আল্লাহ ভালো কিছু হবে। তৃষ্ণা সিলেটে খুব ভালো করেছে। ন্যাশনাল লিগে, আমাদের ক্যাম্পে; সিলেটের উইকেট ওর জন্য সবসময় ভালো। অভিষেক ম্যাচে হ্যাটট্রিক করেছে, ওর আত্মবিশ্বাস বেশি থাকবে।’

সিলেট থেকে ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ইয়াসিরের ক্যামিওর পরও হারল বাংলাদেশ

Read Next

২০২৩ এর শুরুতে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যস্ত হোম সূচি

Total
2
Share