রেকর্ড পুঁজিতে ভারতের সিরিজ জয়, ঝড়ো সেঞ্চুরিতেও ম্লান মিলার

রেকর্ড পুঁজিতে ভারতের সিরিজ জয়, ঝড়ো সেঞ্চুরিতেও ম্লান মিলার
Vinkmag ad

গৌহাটিতে রান বন্যার ম্যাচে শেষ হাসি হাসল ভারত। ম্লান হয়ে গেল ডেভিড মিলারের ঝড়ো শতরান। তান্ডব চালিয়েও বাঁচাতে পারলেন না সিরিজ। ২১ রানের রোমাঞ্চকর জয়ে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই তিন ম্যাচের সিরিজ ২-০ জিতে গেল রোহিত শর্মার দল।

বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে লোকেশ রাহুল ও রোহিত শর্মা ওপেন করতে নেমে ৯৬ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। রোহিত ফেরেন ব্যক্তিগত ৪৩ রানে মহারাজের শিকার হয়ে। অন্যদিকে লোকেশ রাহুল ২৮ বলে ৫৭ রান করে আউট হন।

লোকেশ রাহুল যখন আউট হন, সেই সময়ে ভারতের রান ছিল ২ উইকেটে ১০৭। এই জায়গা থেকে সুরিয়াকুমার কুমার যাদব ও ভিরাট কোহলি ভারতকে নিয়ে গেলেন রানের পাহাড়ে। ১৮ বলে ফিফটি পূর্ণ করা সুরিয়া শেষপর্যন্ত রান আউটের ফাঁদে পড়ে বিদায় নেন ৬১ রানে। ২২ বলের এই ইনিংসে হাঁকান সমান পাঁচটি করে চার ও ছয়!

কোহলি শেষ পর্যন্ত আর পঞ্চাশ পূর্ণ করার সুযোগ পাননি। শেষ ওভারে দীনেশ কার্তিক ঝড় তোলে ১৮ রান নেন। স্ট্রাইক না পাওয়ায় ৪৯ রানে অপরাজিত থেকে যান কোহলি। 

নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ২৩৭ রান করে ভারত। ভারত এদিন টি-টোয়েন্টিতে চতুর্থ সর্বোচ্চ স্কোর করে।

বড় লক্ষ্য তাড়ায় নেমে স্কোরবোর্ডে ১ রান উঠতেই প্রোটিয়াদের নেই দুই উইকেট। আর্শদীপের করা ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে ডাক হয়ে ফেরেন অধিনায়ক টেম্বা বাভুমা ও রাইলি রুশো। চারে নামা এইডেন মার্করাম ফেরেন ১৯ বলে ৩৩ করে।

এরপরের গল্পটা লেখা ডি কক আর ডেভিড মিলারের ব্যাটে। বিধ্বংসী মেজাজে সবকিছু যেন চুরমার করে দেন মিলার। ঝড়ের গতিতে ব্যাট করে প্রোটিয়াদের প্রায় জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে দিয়েছিলেন মিলার। অল্পের জন্য ফস্কে গেল লক্ষ্য। উল্টেদিকে উইকেট আঁকড়ে দর্শক হয়ে মিলারের ইনিংস উপভোগ করলেন কুইন্টন ডি’কক।

৪৭ বলে ১০৬ রান করে অপরাজিত থাকেন মিলার। ২২৫.৫৩ স্ট্রাইক রেটে তার ইনিংস সাজানো ৮টি চার এবং ৭টি ছক্কায়। অপরদিকে ডি’কক ৪৮ বলে ৬৯ করে অপরাজিত থাকেন। এত লড়াইয়ের পরেও ২১ রানে ম্যাচ হারতে হল দক্ষিণ আফ্রিকাকে। সেই সঙ্গে সিরিজও হাতছাড়া হল প্রোটিয়াদের।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

ভারত: ২৩৭/৩ (২০ ওভার) রাহুল ৫৭, রোহিত ৪৩, কোহলি ৪৯*, সুরিয়াকুমার ৬১, কার্তিক ১৭*; মহারাজ ৪-০-২৩-২

দক্ষিণ আফ্রিকা: ২২১/৩ (২০ ওভার) বাভুমা ০, ডি কক ৬৯*, রুশো ০, মার্করাম ৩৩, মিলার ১০৬*; আর্শদীপ ৪-০-৬২-২, আক্সার ৪-০-৫৩-১

ফলাফল: ভারত ১৬ রানে জয়ী

সিরিজ: তিন ম্যাচের সিরিজে ২-০ তে এগিয়ে ভারত

ম্যাচ সেরা: লোকেশ রাহুল (ভারত)

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

পাকিস্তানি বোলারদের সামনে মুখ থুবড়ে পড়লো বাংলাদেশ

Read Next

বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাসে জল ঢেলে দিয়ে পাকিস্তানের বড় জয়

Total
25
Share