নারী এশিয়া কাপে ডিআরএস না রাখার সিদ্ধান্ত এসিসির, দায় নেই বিসিবির

বাংলাদেশ নারী
Vinkmag ad

গতকাল (১ অক্টোবর) সিলেটে শুরু হয়েছে নারী এশিয়া কাপ। তবে এশিয়া ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ এই ইভেন্টে নেই ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস)। আয়োজক দেশ হলেও বিসিবির (বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড) এতে কিছুই করার নেই, পুরো ব্যাপারটি এসিসিরই ঠিক করে দেওয়া।

গতকাল উদ্বোধনী দিনই আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে ছোট খাটো বিতর্ক ঘটে। ভারত-শ্রীলঙ্কা ম্যাচেতো একটি রান আউট বিশ্ব মিডিয়ারই নজরে আসে। তখনই মূলত ডিআরএস না থাকার ব্যাপারটা ভালোভাবে আলোচনায়। অনেকেরই ধারণা আয়োজক দেশের বোর্ড বিসিবিই এর জন্য দায়ী।

কিন্তু ব্যাপারটি কোনোভাবে সেরকম নয়। বিসিবির উইমেন উইংয়ের এক কর্মকর্তা সেটি পরিষ্কারও করেছেন।

‘ক্রিকেট৯৭’ কে তিনি বলেন,

‘দেখেন এটা এসিসির টুর্নামেন্ট। আমরা শুধু আয়োজক, অর্থাৎ টুর্নামেন্ট সফল করতে এসিসি যা যা নির্দেশ দিবে সেটা পূরণে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা, সমর্থন দেওয়া আমাদের কাজ। আমরা টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই জিজ্ঞেস করেছি ডিআরএস থাকবে নাকি থাকবে না। তারা জানিয়েছে থাকবে না।’

‘যদি তারা বলতো থাকবে তখন আমাদের দিক থেকে যত সাপোর্ট প্রয়োজন সব আমরা দিতাম। সুতরাং এটা নিয়ে বিসিবিকে কোনোভাবে দায়ী করার কিছু নাই। আমরা শুধুই আয়োজন সফলে এসিসির কার্যক্রমে সাহায্য করতে পারি। কিন্তু কি থাকবে কি থাকবে না এর সিদ্ধান্ত এসিসিরই।’

ঠিক কি কারণে এসিসি ডিআরএস রাখার প্রয়োজন মনে করেনি এমন কিছু জানতে চাইলে একটা ধারণা দিয়েছেন ঐ কর্মকর্তা।

তিনি বলেন,

‘ডিআরএসের জন্য আসলে বেশ বড় একটা সাপোর্ট লাগে। সেটা টেকনিক্যাল দিক বলেন আর লজিস্টিক দিক বলেন। বিশ্বজুড়ে ডিআরএস সেবা দিতে পারে এমন প্রতিষ্ঠানই আছে অল্প কিছু। এই মুহূর্তে কতগুলো সিরিজ চলছে খেয়াল করে দেখেন, কয়েক দিন পরই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সুতরাং আমার মনে হয় ইচ্ছে থাকলেও হয়তো এসিসির জন্য ডিআরএস ব্যবস্থা করা খুবই চ্যালেঞ্জিং হত।’

সিলেট থেকে ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বাংলাদেশের বিপক্ষে ভালো ম্যাচের প্রত্যাশা পাকিস্তানের

Read Next

পাকিস্তানের ব্যাটিং সামর্থ্য নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ওয়াসিম আকরাম

Total
1
Share