আগে ব্যাট করলেও থাইল্যান্ডের উপর চড়াও হতো বাংলাদেশ

বাংলাদেশ নারী 2
Vinkmag ad

৮৩ রানের সহজ লক্ষ্য পেয়েও বেশ আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে থাইল্যান্ডের বিপক্ষে ৯ উইকেটে জয়ে এশিয়া কাপ শুরু করলো বাংলাদেশ নারী দল। ম্যাচ শেষে অধিনায়ক নিগার সুলতানা জ্যোতি জানালেন নিজেরা আগে ব্যাট করলেও একই অ্যাপ্রোচ থাকতো।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম গ্রাউন্ড-২ এ টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল থাইল্যান্ড-বাংলাদেশ। টাইগ্রেস স্পিনারদের তোপে ৮২ রানে আটকে যায় আগে ব্যাট করা থাইল্যান্ড।

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে দুই ওপেনার ফারজানা হক পিংকি ও শামীমা সুলতানা পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে যোগ করেন ৫২। জুটি ভাঙার আগে ৮.১ ওভারে যোগ হয় ৬৯ রান। ফারজানাকে এক প্রান্তে রেখে দাপুটে ব্যাট করেন শামীমা।

৩০ বলে ১০ চারে খেলেন ৪৯ রানের ইনিংস। তার বিদায়ের পর ২১ বলেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে অধিনায় জ্যোতি উত্তর দিয়েছেন এমন আক্রমণাত্মক ব্যাটিং নিয়ে। তার মতে এটাই তাদের সহজাত মানসিকতা। পাওয়ার প্লে কাজে লাগিয়ে দ্রুত রান তোলাতেই থাকে মনযোগ।

তিনি বলেন, ‘আমাদের সবসময় পরিকল্পনা থাকে আমরা যেন পাওয়ার প্লে টা ব্যবহার করতে পারি। শামীমা আপু খুব অসাধারণ ব্যাটিং করেছে। পাশাপাশি পিংকি খুব ভালো সাপোর্ট দিয়ে গেছে। আমরা কিন্তু এটাই চাই। যে ম্যাচগুলোতে এই ঘাটতি আসে তখন কিন্তু আমরা বড় স্কোর করতে পারি না।’

‘কিংবা বড় স্কোর তাড়াও করতে পারি না। এখনো পর্যন্ত আমার কাছে মনে হয় ভালো একটা শুরু। এবং ব্যাটারদের মানসিকতা নিয়ে যেটা বললেন, আমরা সবসময় এটা নিয়েই চিন্তা করি। আমাদের মানসিকতা যেন ভালো থাকে।’

‘টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। বিষয়টা হচ্ছে আমরা যদি আগে ব্যাট করতাম তাহলেও কিন্তু আমাদের এই অ্যাপ্রোচেই ব্যাট করতে হতো। যখন আমরা ১০ ওভারে আশির কাছাকাছি রান করতে পারব। তখন বাকি ১০ ওভারে আমরা আরও ভালো সংগ্রহ পেতে পারব। কারণ আমাদেরকে চিন্তা করতে হবে পরবর্তীতেও আমাদের খেলা আছে। প্রস্তুতিটা এখানে গুরুত্বপূর্ণ। আমরা স্কোর দেখিনি, আমাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী এগিয়েছি।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মেয়েরা ভালো করছে, আমরা তাকাচ্ছি না এটা ব্যর্থতা: পাপন

Read Next

সৌরভ উড়িয়ে দিলেন বুমরাহর ছিটকে যাওয়ার খবর

Total
3
Share