থাইল্যান্ডকে উড়িয়ে দিয়ে এশিয়া কাপ মিশন শুরু বাংলাদেশের

বাংলাদেশ নারী 1
Vinkmag ad

একদিকে ঘরের মাঠ, অন্যদিকে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন। সাম্প্রতিক পারফরম্যান্সও তাদের হয়ে কথা বলছে। সব মিলিয়ে ফেভারিট হয়েই নারী এশিয়া কাপ খেলতে নেমেছে বাংলাদেশ। সিলেটে উদ্বোধনী ম্যাচে থাইল্যান্ডকে ৯ উইকেটের জয়ে উড়িয়ে দিয়ে মিশন শুরু করলো নিগার সুলতানা জ্যোতির দল।

আগে ব্যাট করা থাইল্যান্ডকে খুব একটা সুবিধা করতে দেয়নি বাংলাদেশের মেয়েরা। স্পিন ভেল্কিতে দিশেহারা করে আটকে দেয় ৮২ রানেই। সর্বোচ্চ ২৬ রান আসে ফান্নিতা মায়ার ব্যাটে। ২০ রান করেন নাত্থাকান ছানথাম। জবাবে বাংলাদেশের হয়ে সর্বোচ্চ ৩০ বলে ৪৯ রান করা শামীমা সুলতানার উইকেট হারিয়েই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামের গ্রাউন্ড-২ এ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়। এই ম্যাচ দিয়েই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হল মাঠটির।

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে পাওয়ার প্লের ৬ ওভারেই ৫২ রান তুলে ফেলে ফারজানা-শামীমা। যে পথে ফারজানাকে এক পাশে রেখে ঝড়ো ব্যাটিং করেছেন শামীমা। ইনিংসের চতুর্থ ওভারেই হাঁকান ৩ চার। পরের ওভারে হাঁকান টানা আরও ২ চার।

তবে ইনিংসের নবম ওভারে বোল্ড হয়েছেন ১০ চারে ৩০ বলে ৪৯ রানের ঝকঝকে এক ইনিংস খেলে। এতে ফারজানার সাথে ভাঙে ৬৯ রানের উদ্বোধনী জুটি।

জয়ের পথে বাকি কাজটা অবশ্য অনায়েসেই সারেন অধিনায়ক জোতি ও ফারজানা। ১২তম ওভারের চতুর্থ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে জয় নিশ্চিত করেন জ্যোতি। জয়ের পথে বাকি ছিল ৫০ বল। শেষ পর্যন্ত ফারজানা অপরাজিত ২৯ বলে ২৬ রানে, জ্যোতি ১০ রানে।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বিপাকে পড়ে থাইল্যান্ড নারী দলের ব্যাটাররা। ইনিংসের ৫ম ওভারে নিজের প্রথম ওভার করতে এসেই ওপেনার নান্নাপাতাই কোঞ্চারোয়েঙ্কাইকে (১২ বলে ৮) বোল্ড করেন বাঁহাতি স্পিনার সানজিদা আক্তার।

পরের ওভারে আক্রমণে এসে অফ স্পিনার সোহেলী আক্তার ফেরান নতুন ব্যাটার নারুএমল চাইয়াইকে (৫ বলে ২)।

পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে থাই নারীদের স্কোরবোর্ডে ২ উইকেটে ১৬ রান।

ইনিংসের ৭ম ওভারে আক্রমণে আসে পেসার জাহানারা আলম। যিনি চোটে পড়ে মিস করেছেন নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব।

জাহানার করা ইনিংসের ৯ম ওভারে প্রথম বাউন্ডারির দেখা পায় থাইল্যান্ড। ফান্নিতা মায়ার ব্যাটে আসে টানা দুই চার। শুরুর জড়তা কাটিয়ে ওপেনার নাত্থাকান ছানথামকে নিয়ে রানের গতি বাড়ানোর চেষ্টা করেন।

তবে সোহেলীর দ্বিতীয় শিকার হয়ে মায়া (২২ বলে ৩ চারে ২৬) আউট হলে ভাঙে ৩৮ রানের জুটি। ক্রিজে এসে বেশিক্ষণ টিকেনি চানিদা সুত্থিরুয়াং (১)। সালমা খাতুন এসে ফেরান এক পাশ আগলে রাখা ছানথামকে (৩৮ বলে ২০)। ৫ উইকেটে ৫৯ রানে পরিণত হয় থাইল্যান্ড।

সেখান থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। রুমানা, নাহিদা, সালমা, সানজিদা, সোহেলীদের তোপে ৮২ রানেই গুটিয়ে যেতে হল।

সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেওয়ার পথে ৩ ওভারে ১ মেডেনসহ ৯ রান খরচ রুমানার। দুইটি করে উইকেট নেন নাহিদা, সানজিদা ও সোহেলীর।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচে থাইল্যান্ডকে ১০০ এর নিচে আটকে দিল বাংলাদেশ

Read Next

বড় স্বপ্ন নিয়ে দেশ ছাড়লেও স্বপ্নের সীমানাটা কতদূর; জানালেন তাসকিন

Total
5
Share