সাকিবদের বিদায় করে ফাইনালে জ্যামাইকা

20220929 090755
Vinkmag ad

শামার ব্রুকসের শতরান হাঁকানো ইনিংসে রানের পাহাড় গড়ে জ্যামাইকা। ফের ব্যাট হাতে ব্যর্থ সাকিব, রান পায়নি গায়ানার টপ অর্ডার। জ্যামাইকার ২২৬ রানের বিপরীতে গায়ানা অ্যামাজন ১৮৯ করতেই ওভার শেষ। ৩৭ রানের জয়ে গায়ানাকে বিদায় করে ফাইনালে জ্যামাইকা তালাওয়াস। ২০৯.৬১ স্ট্রাইক রেটে ১০৯ রানের হার-না-মানা ইনিংস খেলা ব্রুকস পেলেন ম্যাচ সেরার পুরস্কার।

টানা দুই হারে ফাইনালে যাওয়া হলো না গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্সের। আগামী শনিবার (১লা অক্টোবর) বার্বাডোস রয়্যালসের বিপক্ষে সিপিএল ২০২২ এর ফাইনালে মুখোমুখি হবে জ্যামাইকা তালাওয়াস।

শেষ পাঁচ ওভারে জ্যামাইকা স্কোরবোর্ডে যোগ করে ১০৩ রান! টি-টোয়েন্টির ইতিহাসে দ্রুততম শতরানের পার্টনারশিপ গড়ে ইতিহাস গড়েছেন শামার ব্রুকস এবং ইমাদ ওয়াসিম; মাত্র ২৯ বলে ১০৩ রান! ম্যাচের পার্থক্য তৈরি হয়ে যায় এখানেই।

২২৭ রানের পাহাড়সম লক্ষ্য তাড়ায় নেমে শুরুতেই পল স্টার্লিংয়ের উইকেট হারায় গায়ানা। আরেক ওপেনার রহমানউল্লাহ গুরবাজের ব্যাট থেকে আসে ১৬ বলে ২২ রান। তিনে নামা শাই হোপ এদিন শুরু থেকেই মারমুখী। হোপ ঝড় স্থায়ী হওয়ার আগেই থামিয়ে দেন ক্রিস গ্রিন। প্যাভিলিয়নে যান ১৩ বলে ৩১ করে।

পঞ্চম ওভারের শেষ বলে গুরবাজ বিদায় নিলে উইকেটে আসেন সাকিব। বেশ দেখে-শুনে শুরু করলেও ইনিংস বড় করতে পারেননি সাকিব। ক্রিস গ্রিনের আর্ম বলে হারিয়েছেন স্টাম্প। ফেরার আগে ৬ বলে করেন পাঁচ রান।

অধিনায়ক শিমরন হেটমায়ের বিদায় নেন ১৫ বলে ১৫ করে। ৩৭ বলে ৫৬ রানের ইনিংস খেলেও ম্যাচে প্রভাব ফেলতে পারেনি কেমো পল। শেষদিকে ওডিয়ান স্মিথ ১৪ বলে ২৪ করেন। গুদাকেশ মতি ২২ রানে অপরাজিত থাকেন। নির্ধারিত ওভারে ৮ উইকেট খুইয়ে ১৮৯ রানের বেশি পায়নি গায়ানা। ৩৭ রানের জয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করল জ্যামাইকা তালাওয়াস।

সিপিএলের কোয়ালিফায়ার ২ এর ম্যাচে প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে টস জিতে জ্যামাইকা তালাওয়াসকে আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় গায়ানা অ্যামাজন ওয়ারিয়র্স। সুযোগটা শুরুতে দারুণভাবে কাজেও লাগায় গায়ানার পেসার রোমারিও শেফার্ড। ইনিংসের প্রথম ওভারেই তুলে নেন কেনার লুইসের (০) উইকেট। এদিন দ্বিতীয় ওভারেই বল হাতে সাকিব, দেন ৬ রান। পরের ওভারে ফের শেফার্ডের আঘাত। এবার উইকেট হারান ব্র‍্যান্ডন কিং (৬)।

নিজের প্রথম দুই ওভারে ৯ রান দেওয়া সাকিব তৃতীয় ওভারে এসে খরচ করেন ২১ রান। এরপর অবশ্য সাকিব আর কোটা পূরণ করার সুযোগ পাননি। এবারের সিপিএলে আগের পাঁচ ম্যাচের পাঁচটিতেই উইকেট শিকার করা সাকিব আজ থাকেন উইকেট শূন্য। মোট ৩০ রান খরচে শেষ করেন ৩ ওভার।

ব্যক্তিগত ৫ রানেই প্যাভিলিয়নে ফেরা হয়ে যেত শামার ব্রুকসের; কিন্তু উইকেটের পেছনে থাকা রহমানউল্লাহ গুরুবাজের ক্যাচ মিসের মাশুল দিতে হল গায়ানাকে। চারপাশে শটের পসরা সাজিয়ে ইনিংস টেনে নিয়ে যান সেঞ্চুরিতে। শেষ ওভারে ওডিয়ান স্মিথকে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ব্রুকস তুলে নেন সিপিএল ক্যারিয়ারে নিজের প্রথম সেঞ্চুরি; তাও আবার কেবল ৫০ বল খেলে। শেষ অব্দি ১০৯ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। ৫২ বল স্থায়ী ইনিংসে ৭ চার ও ৮ ছক্কা হাঁকান তিনি।

মাঝে তাকে সঙ্গ দিয়ে অধিনায়ক রোভম্যান পাওয়েল খেলেন ২৩ বলে ৩৭ রানের ইনিংস। রেমন রেইফারের ব্যাট থেকে আসে ২২ রান। শেষদিকে ব্রুকসের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে তান্ডব চালান ইমাদ ওয়াসিম। ১৫ বলে খেলেন ৪১ রানের ক্যামিও ইনিংস। আর তাতেই স্কোরবোর্ডে ২২৬ রানের বড় সংগ্রহ জমা করে গায়ানা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

জ্যামাইকা তালাওয়াস: ২২৬/৪ (২০ ওভার) লুইস ০, কিং ৬, ব্রুকস ১০৯*, পাওয়েল ৩৭, রেইফার ২২, ইমাদ ৪১*; শেফার্ড ২/৪৩, তাহির ১/৩৪, স্মিথ ১/৬৪

গায়ানা অ্যামাজন: ১৮৯/৮ (২০ ওভার) স্টার্লিং ২, গুরবাজ ২২, হোপ ৩১, সাকিব ৫, পল ৫৬, হেটমায়ের ১৫, শেফার্ড ২, মতি ২২*, স্মিথ ২৪; ইমাদ ২/২৫, গ্রিন ২/৪০, আমির ১/১৬, গর্ডন ১/৩৯, অ্যালেন ১/৩৫

ফলাফল: জ্যামাইকা তালাওয়াস ৩৭ রানে জয়ী

ম্যাচ সেরা: শামার ব্রুকস (জ্যামাইকা তালাওয়াস)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

প্রোটিয়াদের নাকানিচুবানি খাওয়াল ভারত

Read Next

নিউমোনিয়ায় কাবু নাসিম শাহকে নিয়ে শঙ্কা

Total
1
Share