সবাই মিলে যখন ওপেনার মিরাজের আস্থা ফিরিয়েছে

আরব আমিরাতের বিপক্ষে কষ্টার্জিত জয়ই যেন চাওয়া ছিল বাংলাদেশের!
Vinkmag ad

বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটি কোনোভাবেই ছন্দ খুঁজে পাচ্ছে না টি-টোয়েন্টিতে। যে কারণে এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচে মেহেদী হাসান মিরাজ ও সাব্বির রহমানকে দিয়ে চেষ্টা করে টিম ম্যানেজমেন্ট। যা বহাল ছিল সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজেও। সাব্বির এক পাশে ব্যর্থ হলেও মিরাজ আস্থার প্রতিদান দিচ্ছেন। এই অলরাউন্ডার বলছেন তার প্রতি বাকিদের যে আস্থা তা নিজেকে বিশ্বাস করতে বাধ্য করেছে।

এশিয়া কাপে উদ্বোধনী জুটিতে মিরাজ-সাব্বির যোগ করেন ১৯ রান। সাব্বির ৫ রান করে ফিরলেও মিরাজ উপরে ব্যাট করার সুযোগ পেইয়েই ২৬ বলে খেললেন ৩৮ রানের ইনিংস।

আরব আমিরাতের বিপক্ষে দুজনের জুটি মাত্র ১১ রানের। সাব্বির খালি হাতে ফিরেছেন, মিরাজ থামেন ১২ রান করেই। তবে দ্বিতীয় ম্যাচেও তাদের উপর আস্থা রাখে টিম ম্যানেজমেন্ট।

আরেক দফা সুযোগ পেয়ে গতকাল (২৭ সেপ্টেম্বর) দুজনে যোগ করেন ২৭ রান। সাব্বির ৯ বলে ১২ রান করে আউট হন, তবে ৩৭ বলে ৪৬ রানের ইনিংস খেলেন মিরাজ। নিয়মিত লোয়ার মিডলে ব্যাট করা মিরাজ ওপেন করতে নেমেই কীভাবে এতো ধারবাহিক? আত্মবিশ্বাসটা পাচ্ছেন কোথায়? ৩২ রানে জেতা ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে এমন সব প্রশ্নের সম্মুখীন হন এই অলরাউন্ডার।

মিরাজ বলেন,

‘ভালো লাগছে (এমন ইনিংস খেলে), সবচেয়ে বড় কথা আমার উপর বিশ্বাস রেখেছে। যে কারণে আমি নিজেও নিজের উপর আস্থা রাখতে বাধ্য হয়েছি। এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল সবার আস্থা থেকে আমার আস্থা চলে আসছে।’

দুই ম্যাচ সিরিজটি খেলার আগে বাংলাদেশ দল দিন কয়েক অনুশীলন করেছে দুবাইতে। সব মিলিয়ে বিশ্বকাপ সামনে রেখে এই ছোট ক্যাম্প ও ম্যাচ অনুশীলনকে ইতিবাচকভাবে নিচ্ছেন মিরাজ। তার বিশ্বাস দলের প্রতিটী ক্রিকেটার উপকৃত হয়েছেন, আত্মবিশ্বাস পাচ্ছেন।

তার ভাষায়, ‘আমার মনে হয় বিশ্বকাপ সামনে রেখে ভালো প্রস্তুতি হয়েছে। আমরা যেখানে অনুশীলন করেছি এটা অনেক ভালো ছিল। আর যে ম্যাচ দুটো খেলেছি তা বিশ্বকাপে যাওয়ার আগে আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে প্রত্যেকটা প্লেয়ারের জন্য। এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। এই ৭ টা দিন আমাদের প্লেয়াররা খুব ভালোভাবে কাজে লাগিয়েছে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

সাকিবদের হারিয়ে ফাইনালে বার্বাডোস

Read Next

ভারত সফরে না যাওয়া তারকারা খেলবেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজে

Total
0
Share