‘রিহার্সাল’ ম্যাচে পাকিস্তানকে পাত্তাই দিল না শ্রীলঙ্কা

asia mygp 4
Vinkmag ad

ফাইনালের আগে এশিয়া কাপ সুপার ফোরের শেষ ম্যাচটি ছিল নিছকই আনুষ্ঠানিকতা। কিন্তু শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তান দু’দলই উপহার দিয়েছে টান টান উত্তেজনা। তবে শেষ হাসি হাসল দাসুন শানাকার দল। ফাইনালের আগে ৫ উইকেটে পাকিস্তানকে হারিয়ে রিহার্সালটা বেশ ভালোভাবেই করল শ্রীলঙ্কা।

আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে আফগানিস্তানের কাছে হারের পর টানা চারটি জয় পেল শ্রীলঙ্কা। এশিয়া কাপ মিশনে এসে রীতিমতো যেন উড়ছে দাসুন শানাকার দল। থামছেই না তাদের জয়রথ! ভারত বধের পর এবার পাকিস্তান। রবিবার এই পাকিস্তানের বিপক্ষেই ফাইনালে নামবে আত্মবিশ্বাসী লঙ্কানরা।

এশিয়া কাপের ফাইনালের আগে সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে দুবাইতে লড়াইয়ে নামে শ্রীলঙ্কা ও পাকিস্তান। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরু থেকেই বিপাকে পাকিস্তান। লঙ্কান বোলারদের তোপের মুখে পড়ে ১৯.১ ওভারে পাকিস্তান অলআউট হয় ১২১ রানে।

আগের দুই ম্যাচে ফিফটি হাঁকানো ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান এদিন ফেরেন ব্যক্তিগত ১৪ রানে। অভিষেক ম্যাচের প্রথম ওভারেই প্রমোদ মাদুশানের শিকার হন রিজওয়ান। তিনে নামা ফখর জামান ও ইফতিখার আহমেদ করেন যথাক্রমে ১৩। মাঝে অধিনায়ক বাবর আজমের ব্যাট থেকে আসে ২৯ বলে ৩০ রান।

৪ রানের বেশি পাননি খুশদিল শাহ। রান-আউটে কাটা পড়ার আগে মোহাম্মদ নওয়াজ ২ ছয় ও ১ চারে ১৮ বলে খেলেন ২৬ রানের ইনিংস। এরপর আর কেউই দুই অংকের ঘরে পৌঁছাতে পারেনি। আসিফ আলি মারেন গোল্ডেন ডাক। তাকে ফিরিয়ে হাসারাঙ্গা ঝুলিতে নেন নিজের তৃতীয় উইকেট।

১২২ রানের লক্ষ্য টপকাতে নেমে শুরুর ওভারেই উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। ওপেনার কুশল মেন্ডিসকে শূন্য হাতে ফেরান মোহাম্মদ হাসনাইন। পরের ওভারেই ফের আঘাত লঙ্কান ব্যাটিং লাইনে; এবার হারিস রউফের শিকার দানুশকা গুনাথিলাকা (০)। দুই রানে নেই দুই ব্যাটসম্যান।

হারিস রউফ গতির পরসা সাজিয়ে ঘায়েল করেন ধনাঞ্জয়া ডি সিলভাকে। পেস সামলাতে না পেরে সহজ ক্যাচ তুলে বিদায় নেন সিলভা (৯)। আগের ম্যাচে ফিফটি হাঁকানো ওপেনার পাথুম নিসাঙ্কা এদিনও ব্যাট হাতে ছিলেন দুর্দান্ত! হাসনাইন, হারিস রউফ প্রথম পাওয়ার-প্লেতে দাপট দেখালেও হাসান আলি খেয়েছেন মার।

ওপেনার নিসাঙ্কাকে এরপর দারুণভাবে সঙ্গ দেন ভানুকা রাজাপাকসে। এই দুইয়ের গড়া জুটিতে যোগ হয় ৫১ রান। ২৪ রানে থাকা রাজাপাকসেকে ফিরিয়ে দেন উসমান কাদির। নিসাঙ্কা ফিফটি পূর্ণ করেন ৪১ বলে। জন্মদিনে অধিনায়ক দাসুন শানাকা খেলেন ১৬ বলে ২১ রানের ইনিংস।

শেষদিকে হাসারাঙ্গা ৩ বলে ১০ রান করে দলের জয় নিশ্চিত করেন। ওপেনার পাথুম নিসাঙ্কা অপরাজিত থাকেন ৫৫ রানে। ১৮ বল হাতে রেখেই শ্রীলঙ্কা পায় ৫ উইকেটের রোমাঞ্চকর জয়।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাকিস্তান: ১২১/১০ (১৯.১ ওভার) রিজওয়ান ১৪, বাবর ৩০, ফখর ১৩, ইফতিখার ১৩, খুশদিল ৪, নওয়াজ ২৬; হাসারাঙ্গা ৩/২১, থিকশানা ২/২১, মাদুশান ২/২১, চামিকা ১/৪

শ্রীলঙ্কা: ১২৪/৫ (১৭ ওভার) পাথুম ৫৫*, মেন্ডিস ০, গুনাথিলাকা ০, ধনাঞ্জয়া ৯, রাজাপাকসে ২৪, শানাকা ২১, হাসারাঙ্গা ১০*; হারিস ২/১৯, হাসনাইন ২/২১, কাদির ১/৩৪

ফলাফল: শ্রীলঙ্কা ৫ উইকেটে জয়ী

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

তরুণ ও উদীয়মান ক্রিকেটার খুঁজছে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স

Read Next

রবিবার ক্যারিয়ারের শেষ ওয়ানডে খেলবেন অ্যারন ফিঞ্চ

Total
1
Share