সালমা-জাহানারাদের টি-টোয়েন্টি লিগে প্রথম দিন ১০০ রানও হয়নি

সালমা-জাহানারাদের টি-টোয়েন্টি লিগে প্রথম দিন ১০০ রানও হয়নি
Vinkmag ad

আজ (১৮ আগস্ট) থেকে সিলেটে শুরু হয়েছে নারীদের ১২তম জাতীয় ক্রিকেট লিগ। সামনের কিছুদিন টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে আন্তর্জাতিক ব্যস্ত সূচি বলে এবারের জাতীয় ক্রিকেট লিগটিও সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে আয়োজন হচ্ছে। ৮ বিভাগের এই লড়াইয়ে প্রথম দিন জয় পেয়েছে খুলনা, রাজশাহী, রংপুর ও স্বাগতিক সিলেট।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আলাদা দুই ম্যাচে মুখোমুখি হয় বরিশাল-খুলনা ও চট্টগ্রাম-সিলেট।

বরিশাল-খুলনা

টস জিতে আগে ব্যাট করা বরিশাল ৬ উইকেটে ৮৫ রান তোলে। ৪৬ বলে সর্বোচ্চ ৩১ রান আসে নিগার সুলতানা জ্যোতির ব্যাটে। এ ছাড়া সমান ১৬ রান করেন মিষ্টি রানী ও দিশা বিশ্বাস।

জবাবে ইনিংসের শেষ বলে গিয়ে জয় নিশ্চিত করে খুলনা বিভাগ। ৫ উইকেট হারিয়ে জয় পাওয়ার পথে ৫৯ বলে ৩৪ রান ওপেনার শম্পার। ৩৬ বলে ২ চারে ২৯ রান করেন ম্যাচ সেরার পুরষ্কার জেতা রুমানা আহমেদ।

চট্টগ্রাম-সিলেট

টস হেরে আগে ব্যাট করা চট্টগ্রামের নারীরা ৫০ রানও তুলতে পারেনি স্কোরবোর্ডে। সর্বোচ্চ ১০ রান করেন তমালিকা সুমনা। আর কোনো ব্যাটার পায়নি দুই অঙ্কের দেখা। যৌথভাবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ স্বর্না আক্তার (৭*) ও অতিরিক্ত খাতের (৭)। ৩.১ ওভারে ৫ রান খরচায় সর্বোচ্চ ৩ উইকেট সিলেটের দিপা খাতুনের।

১৪ ওভারে লক্ষ্যে পৌঁছা সিলেট হারিয়েছে ৫ উইকেট। বল হাতে আলো ছড়ানো দিপা খাতুন ব্যাত হাতেও সর্বোচ্চ ১৭ রান করেন, জিতেছেন ম্যাচ সেরার পুরষ্কার। এ ছাড়া ১৩ রান আসে ইসমা তানজিমের ব্যাটে।

পাশের সিলেট একাডেমি গ্রাউন্ডে দুই ম্যাচে লড়ে ময়মনসিং-রংপুর ও ঢাকা-রাজশাহী।

ময়মনসিং-রংপুর

টস জিতে ফিল্ডিং নেয় রংপুর বিভাগ। পুরো ২০ ওভার খেলে অলআউট হওয়ার আগে ৫৭ রানের বেশি করতে পারেনি ময়মনসিং বিভাগ। দলের পক্ষে একমাত্র ব্যাটার হিসেবে দুই অঙ্ক ছোঁয়া মিশু খান করেছেন ১৮ রান। রংপুরের হয়ে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট ফারিহা তৃষ্ণার।

জবাবে দুই ওপেনার মুর্শিদা খাতুন ও সাথি রানীর ব্যাটে ১২ ওভারেই জয়ের বন্দরে পৌঁছায় রংপুর। ১০ উইকেটের জয়ে মুর্শিদা ৩৫ বলে ২০ ও সাথি ৩৭ বলে ২৯ রানে অপরাজিত ছিলেন। ম্যাচ সেরার পুরষ্কার জিতেছেন রংপুরের পেসার ফারিহা তৃষ্ণা।

ঢাকা-রাজশাহী

টস হেরে আগে ব্যাট করে ঢাকা বিভাগ ৫ উইকেটে তোলে ৮৫ রান। ৪১ বলে ৫ চারে ৪৩ রান ফারজানা হকের। ২৪ রান করেন রিতু মনি। ঢাকার ৫ উইকেটের ৪ টিই রান আউট। একমাত্র উইকেট শিকারি বোলার নাহিদা আক্তার।

১৭.৪ ওভারে জয় পাওয়ার পথে রাজশাহীও হারায় ৫ উইকেট। ২২ রানে অপরাজিত ছিলেন ম্যাচ সেরা নাহিদা। ১৩ রান করেন ফারজানা আক্তার। সমান ১১ রান করে আসে সানজিদা ইসলাম, আফিয়া আসিমা ও ফেরদৌসির ব্যাটে। ঢাকা বিভাগের হয়ে ৩ উইকেট নেন রূপা আবেদিন।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

উড়তে থাকা জিম্বাবুয়েকে মাটিতে নামাল ভারত

Read Next

এবার দাপট দেখিয়েই জিতল পাকিস্তান

Total
1
Share