ক্রিকেটাররা স্বার্থপরের মতো খেলেছে: সুজন

মুশফিকদের আবেগ নিয়ন্ত্রণে বার্তা দিলেন সুজন
Vinkmag ad

জিম্বাবুয়ে সফরে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারের পর ক্ষোভ ঝাড়লেন বাংলাদেশের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। ব্যাটারদের মধ্যে জয়ের তাড়ার চেয়ে জায়গা ধরে রাখার মানসিকতাই বেশি বলে মনে করেন জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক।

সিনিয়রদের বিশ্রাম দিয়ে তারুণ্য নির্ভর টি-টোয়েন্টি দল পাঠানো হয় জিম্বাবুয়েতে। কিন্তু ২-১ ব্যবধানে হারতে হয় সিরিজ।

প্রথম দুই ম্যাচ শেষে ১-১ সমতায় ছিল সিরিজ। ফলে গতকাল (২ আগস্ট) তৃতীয় টি-টোয়েন্টি পরিণত হয় অঘোষিত ফাইনালে। যে ম্যাচে ১০ রানে হারতে হয় টাইগারদের।

১৫৭ রানের লক্ষ্য তাড়ায় নেমে যেমন ব্যাটিং করা দরকার ছিল তা দেখা যায়নি বাংলাদেশ ব্যাটারদের মাঝে। এনামুল হক বিজয়ের ১৩ বলে ১৪, নাজমুল হোসেন শান্তর ২০ বলে ১৬, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ২৭ বলে ২৭ রানের টি-টোয়েন্টি বিরুদ্ধ ইনিংসগুলো দৃষ্টিকটুই।

তাদের অমন ব্যাটিংয়ের পর শেখ মেহেদীর ১৭ বলে ২২ ও আফিফ হোসেনের ২৭ বলে ৩৯ রানের ইনিংসেও হার এড়াতে পারেনি টাইগাররা। ১০ রানের পরাজয়ে প্রথমবার টি-টোয়েন্টিতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হারলো সিরিজ।

আজ (৩ আগস্ট) জিম্বাবুয়েতে সংবাদ মাধ্যমের সাথে কথা বলার সময় হতাশা প্রকাশ করেন খালেদ মাহমুদ সুজন।

টাইগারদের টিম ডিরেক্টর বলেন, ‘আমি খুব হতাশ। আমরা বারবার বলি নিজেদের ভুল থেকে শিক্ষা নিতে। কিন্তু আমরা কবে সে শিক্ষাটা নেব। আমি পুরোপুরি ক্রিকেটারদের দোষ দেব। তাদের প্রয়োগ সম্পূর্ণ ভুল ছিল।’

‘এখানে আমাদের জেতাটাই স্বাভাবিক ছিল। হারটা ছিল অস্বাভাবিক। আমরা জানি যে ওভারে আমাদের ১০-১২ করে লাগবে। কেউ দেখলাম না যে একটা ছয় মারার চেষ্টা করছে। সবাই ২-১ করে নিচ্ছে। আমি একটা স্কোর করে নিজের জায়গাটা ঠিক রাখলাম, এটা কি ওই ধরনের কিছু কি না, আমি ঠিক জানি না।’

‘আপনি যদি ১০০ স্ট্রাইক রেটে খেলেন, তাহলে এখানে রান তাড়া করে জিততে পারবেন না। একজন-দুজনকে তো শট খেলতে হবে। ওদের দুজন ব্যাটসম্যানের স্ট্রাইক রেট দেখুন। এখানে ভিন্ন কিছু করার প্রয়োজন ছিল না। শর্ট বলকে যদি পুল করে ছক্কা মারার আত্মবিশ্বাস না থাকে, তাহলে তো মুশকিল।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

জুলাই মাসে আইসিসির সেরার দৌড়ে যারা

Read Next

‘পাপন ভাইয়ের সঙ্গে কথা হয়নি,সবারই মন খারাপ’

Total
28
Share