আন্তর্জাতিক ক্যালেন্ডার থেকে ওয়ানডে বাদ দিতে চান ওয়াসিম

আন্তর্জাতিক ক্যালেন্ডার থেকে ওয়ানডে বাদ দিতে চান ওয়াসিম
Vinkmag ad

পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক, বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য ওয়াসিম আকরাম চান ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি তাদের ক্যালেন্ডার থেকে ওয়ানডে ক্রিকেটকে যেনো বাদ দেয়!

ইংল্যান্ডের তারকা অলরাউন্ডার বেন স্টোকসের অবসরের পর থেকে আলোচনায় ওয়ানডে ক্রিকেট। ওয়াসিম আকরামের মত অনেকেই মনে করছেন ক্রিকেটাররা ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে নিজেদের আগ্রহ হারাচ্ছেন।

ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দেবার সময় স্টোকস জানিয়েছিলেন ইংল্যান্ডের খেলায় ঠাঁসা সূচি তাকে তিন ফরম্যাট খেলতে দিচ্ছে না। মঙ্গলবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১ম ওয়ানডে দিয়ে ৫০ ওভারি ক্রিকেটকে বিদায় জানান তিনি।

স্টোকস বলেছিলেন, ‘তিন ফরম্যাট একসাথে খেলা এখন আমার পক্ষে সম্ভব না। এটা শুধু একারণে নয় যে ব্যস্ত সূচি আমার শরীর নিতে পারছে না, একারণেও যে আমি মনে করি অন্য কেউ যে জস বাটলার ও দলকে তার সবটা দেবে তার জায়গা আমি ধরে রেখেছি। এখন অন্য কারও এটা সময় ক্রিকেটার হিসাবে উন্নতি করার এবং আমার ১১ বছরে যেমন সুখস্মৃতি আছে তেমন স্মৃতি তৈরি করা।’

টেলিগ্রাফের ভনি অ্যান্ড টাফার্স ক্রিকেট ক্লাব পডকাস্টে স্টোকসের সিদ্ধান্ত নিয়ে কথা বলতে যেয়ে ওয়াসিম আকরাম বলেন ধারাভাষ্যকার হয়েও এই ফরম্যাটকে বাড়তি লাগছে। তিনি মনে করেন একজন ক্রিকেটারের পক্ষে ২০ ওভারি ক্রিকেটের চেয়ে ৫০ ওভারি ক্রিকেট খেলা বেশি কষ্টের।

ওয়াসিম বলেন, ‘স্টোকসের ওয়ানডে ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়া দুঃখের। তবে আমি তার সঙ্গে একমত। এখন টি-টোয়েন্টি আসার পর ধারাভাষ্যকার হিসাবেও ওয়ানডে ক্রিকেটকে জোর করে টেনে নিয়ে যাওয়া লাগে। আমি ক্রিকেটারদের অবস্থা বুঝি। ৫০ ওভার, ৫০ ওভার, এর সাথে আছে প্রি গ্রেম, পোস্ট গেম ও লাঞ্চ গেম।’

‘টি-টোয়েন্টি বেশ সহজ। ৪ ঘন্টায় খেলা শেষ। সারা বিশ্ব জুড়ে আছে লিগ, সেখানে অনেক টাকার ঝনঝনানি। আমি মনে করি এটা আধুনিক ক্রিকেটের অংশ হয়ে উঠেছে। টি-টোয়েন্টি, নাহয় টেস্ট। ওয়ানডে ক্রিকেট মরতে বসেছে।’

‘একজন ক্রিকেটারের পক্ষে ওয়ানডে ক্রিকেট খেলা কষ্টের। টি-টোয়েন্টি আসার পর ওয়ানডে ক্রিকেট মনে হচ্ছে লম্বা সময় ধরে চলছে। তাই ক্রিকেটাররা সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে বেশি ফোকাস করছে। এবং অবশ্যই দীর্ঘ ফরম্যাট (টেস্ট)।’

ওয়াসিম আকরামকে প্রশ্ন করা হয় তিনি চান কিনা যে আইসিসি এই ফরম্যাটকে বাতিল করুক কিনা তখন আকরাম বলেছিলেন যে তারা এটিকে গুরুত্ব সহকারে দেখছেন কারণ অনেক দেশ রয়েছে যেখানে তারা স্টেডিয়ামগুলি পূরণ করতে লড়াই করছে।

ওয়াসিম বলেন, ‘হ্যা আমি তেমনটাই মনে করি। ইংল্যান্ডে আপনি গ্যালারি পুর্ণ দেখবেন। তবে ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ, দক্ষিণ আফ্রিকায় আপনি ওয়ানডে ক্রিকেটে ভরা গ্যালারি দেখবেন না।’

‘তারা এই ফরম্যাট আয়োজন করছে কেবল করতে হচ্ছে বলে। প্রথম ১০ ওভার শেষে বলে বলে রান নেওয়া, একটা বাউন্ডারি আদায় করা, চার ফিল্ডার ভিতরে, আপনি ৪০ ওভারে ২০০/২২০ তুলে ফেলবেন। এরপর শেষ ১০ ওভারে ঝড় তুলে আরও ১০০ তুলবেন। এটা এমনই গদবাধা হয়ে গেছে।’

ওয়াসিম আকরাম মনে করেন টেস্ট ক্রিকেটে লড়াইয়ের ভেতর লড়াই রয়েছে, যা খেলাটাকে উপভোগ্য করে তোলে। তার মতে এই ফরম্যাটে পারফর্ম করেই কেবল বিশ্বসেরাদের কাতারে যাওয়া যায়।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

বিগ ব্যাশে সবার আগ্রহ বাড়াবেন ৩ পাকিস্তানি

Read Next

মিরপুর রয়্যালসের আইকন শোয়েব মালিক

Total
8
Share