তামিমের ইচ্ছের বিরুদ্ধেই একাদশ সাজিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট

তামিমের ইচ্ছের বিরুদ্ধেই একাদশ সাজিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট
Vinkmag ad

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতেই সিরিজ নিশ্চিত হয়েছিল বাংলাদেশের। যে কারণে অধিনায়ক তামিম ইকবাল চেয়েছিলেন শেষ ওয়ানডেতে বেঞ্চ পরীক্ষা করতে। কিন্তু ম্যাচের আগের দিন কোচ আভাস দিয়েছিলেন সে পথে হাঁটছেন না। ম্যাচেও হয়েছে তার বাস্তবায়ন। দল জিতেছে, প্রতিপক্ষ হোয়াইট ওয়াশড হয়েছে। তবে তামিম জানিয়েছেন তার ইচ্ছে ছিল পরিবর্তন নিয়ে খেলা।

ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে সিরিজ নিশ্চিতের পর একাদশে পরিবর্তন হতে পারতো ইতিবাচক ব্যাপার। তামিম বলেছিলেন নিজে বসে হলেও অন্যদের সুযোগ দিতে আপত্তি নেই তার। বিশেষ করে শেষ ম্যাচে জয়-পরাজয় যখন খুব বড় কোনো প্রভাব রাখে না। সিরিজটি আইসিসি ওয়ানডে ওয়ার্ল্ডকাপ সুপার লিগের অংশও না।

প্রথম দুই ওয়ানডেতে স্বচ্ছতার দোহাই দিয়ে এনামুল হক বিজয়কে দলে নেওয়া হয়নি। তবে ডিপিএলে রান বন্যা বইয়ে দিয়ে জাতীয় দলে ডাক পাওয়া এই ব্যাটারকে অনায়েসেই শেষ ম্যাচে খেলানো যেত। সেটিও হয়নি বলে অবাকই হয়েছে অনেকে।

গায়ানার প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে গতকাল (১৬ জুলাই) বাংলাদেশ একাদশে এতোটাই শক্তি বাড়িয়েছে যে পেসার শরিফুল ইসলামকে বসিয়ে স্পিনার তাইজুল ইসলামকে অন্তর্ভূক্ত করা হয়। এই বাঁহাতি স্পিনার নিয়েছেন রেকর্ড গড়া পাঁচ উইকেট, বাংলাদেশ ম্যাচ জিতেছে ৪ উইকেটে।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে তামিম একাদশ নিয়ে বলেন, ‘আমি যখন ম্যানেজমেন্টের সাথে কথা বলেছি তখন তারা মনে করেছে যে আমাদের পূর্ণ শক্তি নিয়ে যেতে হবে। আমাদের একটা পরিবর্তন করার দরকার ছিল কারণ অনেকটা আগের মতো একইরকম উইকেট, তখন আমাদের একজন পেস বোলার কমিয়ে তাইজুলকে খেলানোর সিদ্ধান্ত ছিল। কিন্তু আমি যে কথাটা বলেছিলাম, আমার অবশ্যই সেটাই (বেঞ্চ পরীক্ষা) ইচ্ছে ছিল। ‌কিন্তু যেটা ম্যানেজমেন্ট বলেছে, আমি সেটাতেও সন্তুষ্ট।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজে বেঞ্চ পরীক্ষা করা না গেলেও তামিমের চাওয়া সেটি নিকট ভবিষ্যতে করতেই হবে। একসাথে বেশ কয়েকজনকে অদল বদল না করলেও অন্তত একজন-দুইজন করে হলেও করা উচিৎ বলছেন টাইগার দলপতি।

তার ভাষায়, ‘আমার কাছে মনে হয়েছে সামনে এইরকম বেঞ্চের শক্তি পরীক্ষা করতেই হবে। না হলে আমি কীভাবে বুঝতাম তাইজুলের এমন কোয়ালিটি আছে বা মোসাদ্দেকের বোলিং কোয়ালিটি আছে? তো সামনে কোনো না কোনো সময় আপনার বেঞ্চের শক্তি পরীক্ষা করতেই হবে। একসাথে আপনি পাঁচজনকে পরিবর্তন করবেন না কিন্তু একজন-দুইজন করে যদি পরিবর্তন করা যায় সেটা বেটার।’

‘আপনি যদি দেখেন বিশ্ব ক্রিকেটের সেরা দলগুলো তাই করে। তারা সিরিজ জেতার পর পরিবর্তন আনে। আমাদের কিন্তু তাই করতে হবে। আমাদের একটু সাহস দেখিয়ে জিনিসগুলো করতে হবে। এটাও বুঝতে হবে এর আগে আমরা করিনি। তবে আমি নিশ্চিত আপনারা ভবিষ্যতে এগুলো দেখবেন।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি থেকে অবসর নিলেন তামিম

Read Next

এবার ওয়ানডে অবসর নিয়ে তামিম বলছেন ‘স্লিপ অব টাং’

Total
1
Share