লিটনের মতে যেকারণে ক্যারিবিয়ানরা এগিয়ে

featured photo updated v 8
Vinkmag ad

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টিতে হেরে সিরিজ খোয়ালো বাংলাদেশ। গতকাল (৭ জুলাই) গায়ানায় এগিয়ে থাকা ম্যাচই ছিনিয়ে নিয়েছে প্রতিপক্ষ দুই ব্যাটার কাইল মায়ের্স ও নিকোলাস পুরান। ম্যাচ শেষে টাইগার ব্যাটার লিটন দাস বলছেন জন্মগতভাবে শক্তিশালী না হওয়াটাই পার্থক্য গড়ে দিয়েছে।

স্পিন বান্ধব গায়ানার প্রভিডেন্স স্টেডিয়ামে আগে ব্যাট করে আফিফ হোসেনের ৫০ ও লিটনের ৪৯ রানে ভর করে বাংলাদেশ পায় ৫ উইকেটে ১৬৩ রানের পুঁজি। জবাবে বাংলাদেশের স্পিন ঘূর্ণিতে খাবি খেয়ে ৪৩ রানেই ৩ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। প্রথম ১০ ওভারে স্কোরবোর্ডে ৭২ রান।

এই ১০ ওভারের ৯ ওভারই করেছে স্পিনাররা। স্পিনারদের বিপরীতে একমাত্র পেস বোলার মুস্তাফিজের করা ওভারেই আসেই ১২ রান। পেস আক্রমণ আসার পর সেই যে খেই হারাতে শুরু করে বাংলাদেশ তা আর টেনে ধরতে পারেনি।

পরের ৮.২ ওভারে ক্যারিবিয়ানরা তোলে ৯১ রান। মায়ের্স ও পুরান চতুর্থ উইকেট জুটিতে যোগ করে ৮৫ রান। মায়ের্স ৩৮ বলে ২ চার ৫ ছক্কায় ৫৫ রানে আউট হলেও পুরান ৩৯ বলে সমান ৫ টি করে চার, ছক্কায় ৭৪ রান করে দল জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন।

শেষ দিকে বোলারদের আলগা বল করার সাথে অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের বোলার ব্যবহার নিয়ে সমালোচনা হচ্ছে। তবে ম্যাচ শেষে দলের প্রতিনিধি হয়ে সংবাদ সম্মেলনে আসা লিটন দাস জানালেন প্রতিপক্ষ ব্যাটারদের পেশী শক্তিই গড়ে দিয়েছে পার্থক্য।

তার ভাষায়, ‘আজকের ম্যাচে আমাদের বোলারদের প্রয়োগ ঠিকঠাক হয় নাই। ওদেরও কৃতিত্ব দিতে হবে। যেভাবে তারা ব্যাটিং করেছে…পুরান ও মায়ের্স খুব ভালো ভালো বলেও মেরে দিয়েছে। এ জিনিসটা ওদের বাড়তি সুবিধা যে ওরা পাওয়ার ক্রিকেট খেলে, যেটা আমরা খেলতে পারি না। আমার কাছে মনে হয় এ জিনিসটাও বোলারের মাথায় কাজ করে যে একটু উনিশ বিশ হলে ওরাতো মেরে দিতে পারে। এ জিনিসটা মনে হয় বোলারদের ইয়ে (ক্ষতির কারণ) হয়েছে।’

‘মায়ের্স বা পুরান এরা কিন্তু জন্মগতভাবে অনেক শক্তিশালী। যেটা আমি বা আমাদের দলের কেউই না। তারা যেকোনো সময় চাইলে বড় মাঠে মেরে দিতে পারে যেটা আমাদের দলে আমি বা অন্য কেউই সামর্থ্যবান না। আমরা ব্যাটিংয়ের সময় চিন্তা করি চার মারার জন্য। আপনি দেখবেন আমাদের খেলায় চারই বেশি হয় যা ওদের তুলনায় ওরা ছয় বেশি মারে। এই পার্থক্যটা সবসময় থাকে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ডানহাতি-বাঁহাতি পুরোনো তত্ব থেকে বেরই হতে পারছেন না রিয়াদ

Read Next

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ক্ষণগননা শুরু, শুরু হল ট্রফি ট্যুর

Total
1
Share