মুমিনুল-তাইজুলের সমর্থন যেভাবে মিরাজকে তাতিয়েছে

featured photo updated v 15
Vinkmag ad

অ্যান্টিগা টেস্টে বল হাতে ঝলক দেখালেন স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে প্রথম ইনিংসে ২৬৫ রানে আটকে দেওয়ার পথে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট শিকার মিরাজের। শুরুর কয়েক স্পেলে এলোমেলো এই স্পিনার ৪ উইকেটই নিয়েছেন শেষের টানা স্পেলে। দিন শেষে ব্যাটিং ব্যর্থতায় ভালো অবস্থানে নেই বাংলাদেশ। তবে মিরাজ জানালেন কীভাবে সফল হয়েছেন।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের ১০৩ রানের জবাবে আগেরদিন ২ উইকেটে ৯৫ রান তোলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দ্বিতীয় দিনও শুরুটা ইতিবাচক ছিল, প্রথম সেশনে উইকেট হারায়নি একটির বেশি। তবে শেষ দুই সেশনে মিরাজের ঘূর্ণির সাথে এবাদত হোসেন ও খালেদ আহমেদের তোপে ২৬৫ রানেই থামতে হয়।

নিজের প্রথম ১২ ওভারে ৩৭ রান খরচায় উইকেট শূন্য ছিলেন মিরাজ। তবে চা বিরতির আগে ও পরে মিলে টানা ১০.৫ ওভার বল করে তুলে নেন ৪ উইকেট। এই স্পেলে মিরাজের ফিগার ১০.৫-২-২২-৪, সবমিলিয়ে যা ২২.৫-৬-৫৯-৪।

শেষ স্পেলে কীভাবে বদলে গেলো মিরাজ তা জানিয়েছেন দিন শেষে ব্রডকাস্টারের সাথে আলাপে। যেখানে কৃতিত্ব দিয়েছেন সতীর্থ মুমিনুল হক ও তাইজুল ইসলামকে। তাইজুল অবশ্য একাদশের বাইরে ছিলেন।

মিরাজ জানান, ‘আলহামদুলিল্লাহ আমি প্রথম ২-৩ টা স্পেলে হতাশ ছিলাম, কারণ ভালো বোলিং হচ্ছিল না, ঠিক জায়গায় করতে পারছিলাম না। মানসিকভাবে ফোকাসড হওয়াটা জরুরী ছিল। সে ক্ষেত্রে আমার সতীর্থ মুমিনুল ও তাইজুল আমাকে দারুণ সমর্থন দিয়েছে। তাদের দুজনকে ধন্যবাদ দিতে চাই।’

মিরাজের মতে শুরুতে উইকেটের পেছনে ছুটেই সমস্যায় পড়েছেন। পরে যেখানে মনোযোগ দেন রান আটকানোতে। আর তাতেই দলের হয়ে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি বনে গেলেন।

তার ভাষায়, ‘আমার কাছে মনে হয় উইকেট কিছুটা স্লো ছিল। এই পিচে শুধু একই জায়গায় বল করে যাওয়াটা সঠিক সিদ্ধান্ত। এতে করে ব্যাটার আউট হওয়ার একটা সম্ভাবনা থাকে। আমি আসলে তখন ডট বল দেওয়াতে মনোযোগ দিই।’

‘প্রথম ২-৩ স্পেলে আমি উইকেটের জন্য বল করেছি। এটাই সমস্যা হয়েছিল। এরপর আমি রান আটকানোর দিকে যাই। ওভারপ্রতি আড়াই রানের মতো দিলে সুযোগ আসবে বলে মনে করেছিলাম। এমনই হয়েছে।’

এদিকে ১৬২ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ দ্বিতীয় দিন শেষ করেছেন ২ উইকেটে ৫০ রান নিয়ে। যেখানে ইনিংস হার এড়াতে এখনো প্রয়োজন ১১২ রান।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

যে কারণে ৮ থেকে ৩ নম্বরে উন্নতি হয়েছিল মিরাজের

Read Next

হয়নি সাকিবের লক্ষ্য পূরণ, তবুও জয়ে চোখ বাংলাদেশের

Total
21
Share