সাকিব-মিরাজদের অভিজ্ঞতার মূল্য আছে বলছেন সোহেল ইসলাম

featured photo updated v 4
Vinkmag ad

২০১৮ সালে সর্বশেষে ওয়েস্ত ইন্ডিজ সফরে যায় বাংলাদেশ। যেখানে টেস্ট সিরিজে হোয়াইট ওয়াশড হতে হয়েছে, আছে ৪৩ রানে অলআউটের লজ্জাও। তবে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতেই দেশে ফেরে টাইগাররা। এবার আরেক দফা ক্যারিবিয়ান দ্বীপপুঞ্জে বাংলাদেশ, স্পিনারদের নিয়ে বেশ আশাবাদী বিসিবির স্পিন কোচ সোহেল ইসলাম। তার মতে মাঝের ৪ বছরে সাকিব, মিরাজ, তাইজুলরা হয়েছেন আরও অভিজ্ঞ।

সর্বশেষ সফরে টেস্ট সিরিজে বল হাতে খারাপ করেনি টাইগার স্পিনাররা। মেহেদী হাসান মিরাজ, সাকিব আল হাসান, তাইজুল ইসলাম ও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ মিলে ২ টেস্টের ৩ ইনিংসে নেন ২০ উইকেট। ৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজে সাকিব, মিরাজের ঝুলিতে ৫ উইকেট। টি-টোয়েন্টি সিরিজটি অবশ্য হয়েছিল যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায়।

এবার ৩ ফরম্যাটের সবকটি ম্যাচই ক্যারিবিয়ান মুল্লুকে। অ্যান্টিগা, সেন্ট লুসিয়া, ডমিনিকা ও গায়ানায় হবে ম্যাচগুলো। ওয়েস্ট ইন্ডিজে উইকেট খানিক পেস বান্ধব। তবে স্পিনাররা সুযোগ কাজে লাগাবে বিশ্বাস সোহেল ইসলামের। মূলত অভিজ্ঞতার কারণেই সাকিব, মিরাজদের নিয়ে নিয়ে বাজি ধরছেন তিনি।

আজ (৭ জুন) মিরপুরে সাংবাদিকদের বলেন, ‘অবশ্যই আমি বলব যে আমাদের ভালো সুযোগ আছে। আমরা সবশেষ যখন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ট্যুর করি সেটা ২০১৮ তে এখন ২০২২। তো এই ছেলেগুলোই সেখানে গিয়েছিল টিমের সঙ্গে, তখন মিরাজ, তাইজুল, সাকিব ছিল। তো এদের আসলে অভিজ্ঞতা বেশি হয়ে গেছে চার বছরের মধ্যে তারা এই সময়ের ভেতর দেশের বাইরে বিভিন্ন জায়গা খেলেছে। তো এই অভিজ্ঞতার তো একটা মূল্য অবশ্যই আছে। আমি আশাবাদী যে তারা ওখানে ভালো করবে।’

‘ওখানকার উইকেট একটু পেস বোলিং ফ্রেন্ডলি থাকে। বাউন্সটা বেশি থাকে। আমাদের উইকেট দেখা যায় একটু লো বাউন্স থাকে। স্কিডি থাকে। তো আমাদের পিচে বল করলে বল স্কিড করে. আর ওখানে দেখা যায় যে আপনি যদি ওই লেংথে বল করেন তো ইজি ব্যাকফুটে খেলা যায়, দেখা যায় যে ওখানে লেংথ সামনে করতে হয় এবং বলে স্পিনও থাকে লাগে। আসলে এ জিনিসগুলো টেকনিক্যাল জিনিস এগুলো এডাপ করেই আগাতে হয়।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

ওয়েস্ট ইন্ডিজে টি-টোয়েন্টিতেও দেখা যাবে তাসকিনকে!

Read Next

অ্যান্টিগায় যেভাবে আবহাওয়ার সাথে মানিয়ে নিচ্ছেন মুমিনুলরা

Total
1
Share