ঘরোয়া লংগার ভার্সনে বিদেশী অনুমোদনের ভাবনায় বিসিবি

ক্রিকেটে অভিনয়টাও গুরুত্বপূর্ণ বলছেন খালেদ মাহমুদ সুজন
Vinkmag ad

দেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সাথে জড়িয়ে থাকা ওয়ানডে ফরম্যাট বাংলাদেশে বেশ জনপ্রিয়। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেও আছে এর ছাপ, এখনো পর্যন্ত সবচেয়ে সফলও। এর পেছনে অবদান আছে বিদেশী ক্রিকেটারদেরও। ঢাকার ক্রিকেটে (একদিনের ফরম্যাটে) ৮০, ৯০ এর দশক থেকেই খেলে আসছে বিদেশী তারকারা। টেস্ট ক্রিকেটে ভালো করার ক্ষেত্রেও ঘরোয়া লংগার ভার্সনে বিদেশী ক্রিকেটার অনুমোদন দেওয়ার ভাবনা বিসিবির।

টাইগারদের টেস্ট ক্রিকেট ইস্যু সামনে আসলেই বহুল প্রচলিত ‘সর্বাঙ্গে ব্যথা ঔষধ দেব কোথা’ প্রবাদের কথা মনে পড়ে। ২২ বছর ধরে টেস্ট খেলেও যে কোনো কিছুতেই লাভ হচ্ছে না। ১৩২ টেস্টে জয়ের সংখ্যা মাত্র ১৬ টি! পরাজয়ের সেঞ্চুরি খুব কাছে (৯৮)।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সদ্য সমাপ্ত সিরিজেও হারতে হয়েছে ১-০ ব্যবধানে। চট্টগ্রামে ড্র করা গেলেও মুমিনুল হকের দল ঢাকায় হেরেছে ১০ উইকেটের ব্যবধানে। আজ (২৮ মে) মিরপুরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জাতীয় দলের টিম ডিরেক্টির খালেদ মাহমুদ সুজন জানালেন সামগ্রিকভাবে বাজে এক সিরিজ কেটেছে।

তিনি বলেন, ‘অবশ্যই ভালো হয়নি। আমাদের কন্ডিশনে হার… ফলাফল যাই হোক, আমাদের প্রক্রিয়াও ভালো ছিল না। হার-জিত খেলার অংশ, হারতেই পারি। কিন্তু যেরকম কন্ডিশন ছিল বা যেরকম প্রতিপক্ষের সাথে খেলেছি, বলব না আমরা আমাদের মান অনুযায়ী খেলেছি। ইতিবাচক দিক আছে অনেক কিছুই। তবে ফলাফলের কথা চিন্তা করলে ভালো হয়নি।’

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল) একটা সময় ৪-৫ জন বিদেশী ক্রিকেটার খেলতো। এখন সংখ্যাটা কমে হয়েছে একজন। মাঝে অবশ্য বিদেশী খেলোয়াড় অনুমোদন ছিল না। বিদেশীদের অংশগ্রহণ টুর্নামেন্টের জৌলুস বাড়ানোর সাথে স্থানীয় ক্রিকেটারদের অভিজ্ঞতাও সমৃদ্ধ করতো।

লংগার ভার্সনে ইংলিশ কাউন্টিতে বিদেশী ক্রিকেটার খেলে নিয়মিত। এবার নিজেদের লাল বলের ক্রিকেট উন্নতিতে বিসিবিও তেমন কিছু ভাবতে পারে বলছেন সুজন।

জাতীয় দলের সাবেক এই অধিনায়ক জানান, ‘আমাদের সময় বিদেশী খেলোয়াড়ের অনুমতি ছিল (ঢাকা লিগে)। ওয়ানডে উন্নতি হয়েছে এভাবেই। একসময় ৫ জন খেলতে পারত, সেটা ৪ জন, ৩ জন, ২ জন করে এখন ১ জন। মাঝখানে বিদেশী খেলোয়াড় ছিলই না। এখন অবশ্য ওয়ানডে স্কোয়াড অনেক শক্তিশালী।’

‘টেস্টে (ঘরোয়া লংগার ভার্সন) আমরা বিদেশী খেলোয়াড় রাখব কি না এটা গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। কীভাবে ছেলেদের কাছে আরও আকর্ষণীয় করতে পারি তা গুরুত্বপূর্ণ। ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফর্ম না করলে… আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া ক্রিকেটে অনেক গ্যাপ রয়ে গেছে। যারা ঘরোয়াতে অনেক ভালো করছে তারা আন্তর্জাতিকে এসেই ভালো করতে পারবে এটার নিশ্চয়তা নেই।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

স্পিনারদের হাহাকারের সিরিজে সাকিব সফল অভিজ্ঞতা দিয়ে

Read Next

সুজনের চোখে এমন লিটন ‘আউটস্ট্যান্ডিং’

Total
6
Share