এখনো রাব্বির জন্য ব্যাটিং অর্ডার খুঁজে পাচ্ছেন না ডোমিঙ্গো

আরেক দফা ডাক পেতে যাওয়া রাব্বি জানালেন কীভাবে নিজেকে স্বান্তনা দেন
Vinkmag ad

মেহেদী হাসান মিরাজের চোটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে সুযোগ পান নাইম হাসান। এক বছর পর দলে ফিরেই নিলেন ইনিংসে ৬ উইকেট। কিন্তু ঐ টেস্টেই পেলেন হাতে চোট, ছিটকে গেলেন সিরিজ থেকে। তার পরিবর্তে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতকে ঢাকা টেস্টের একাদশে সুযোগ দেওয়া হয়। কিন্তু প্রত্যাশিত বোলিং করতে না পারায় খুব বেশি ওভারও করায়নি অধিনায়ক।

অথচ তার পরিবর্তে ব্যাটার ইয়াসির আলি রাব্বিকে খেলানোর পক্ষে ছিল অনেকেই। কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো অবশ্য রাব্বির ব্যাটিং অর্ডার খুঁজে পাচ্ছেন না। তবে স্বীকার করেছেন প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হয়েছেন মোসাদ্দেক।

৩ বছর পর টেস্ট খেলতে নামেন মোসাদ্দেক। ব্যাট হাতে দুই ইনিংসেই হতাশ করেছেন। প্রথম ইনিংসে খালি হাতে ফেরা এই অলরাউন্ডার দ্বিতীয় ইনিংসে করতে পারেননি ৯ রানের বেশি। আর বল হাতে ১২ ওভারে দিয়েছেন ৩৮ রান, শ্রীলঙ্কা ইনিংসের লম্বা সময় তাকে বোলিংয়েই আনেনি অধিনায়ক মুমিনুল।

বোলার মোসাদ্দেককে নিয়ে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে ডোমিঙ্গো বলেন, ‘মোসাদ্দেক খেলেছে কারণ আমাদের একজন পঞ্চম বোলারের বিকল্প প্রয়োজন ছিল। আমরা চিন্তা করেছি সে দিনে ১৫ ওভার বল করে দিতে পারবে। আমি সবসময় চার বোলার নিয়ে খেলতে অনিচ্ছুক।’

‘আর সেদিক থেকে আমাদের কিছুটা হতাশ হতে হয়েছে যে মোসাদ্দেক প্রত্যাশা অনুযায়ী বল করতে পারেনি। আমরা ভেবেছি সে মিরাজের অভাবটা বল হাতে পূরণ করতে পারবে। মিরাজকে না পাওয়া আমাদের জন্য বড় ক্ষতি, সে অনেক ওভার বল করতে পারে, সাথে ব্যাটিংটাও পেতাম।’ – মিরাজকে মিস করা বাংলাদেশ কোচ যোগ করেন।

এমনিতে আড়াই বছর দলের সাথে ঘুরে গত বছর পাকিস্তানের বিপক্ষে অভিষেক ইয়াসির আলি রাব্বির। কিন্তু এ দফায়ও নিয়মিত সুযোগ পাচ্ছেন না। মূলত সাকিবের অবর্তমানেই মিলেছিল সুযোগ। সাকিব ফেরাতে চট্টগ্রাম টেস্টেও পাননি সুযোগ, নাইম হাসান চোটে পড়ায় ঢাকা টেস্টে ফেরার পথ তৈরি হলেও বাড়তি বোলার ভাবনায় মোসাদ্দেকেই আস্থা রেখেছিল টিম ম্যানেজমেন্ট। ব্যাটিং অর্ডারে উপরের দিকেও আপাতত জায়গা নেই তার জন্য।

ডোমিঙ্গো বলেন, ‘টপ অর্ডারে আপনি কত নম্বরে খেলানোর কথা বলছেন? দেখুন সে ৬-৭ নম্বরে খেলে এটা ঠিক আছে, টেস্ট ক্রিকেটে একজন নতুন ক্রিকেটার হিসেবে। সে ফিফটিও হাঁকিয়েছে। তাকে হয়তো ৫-৬ নম্বরে আনা যায়, কিন্তু মুশফিক না থাকলে হয়তো সে মিডল অর্ডারের জন্য বিবেচিত হবে।’

এখনো পর্যন্ত ৫ টেস্টে প্রায় ২৫ গড়ে রাব্বি রান করেছেন ১৯৬। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে বিরুদ্ধ কন্ডিশনে পেয়েছেন ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি। সর্বশেষ টেস্টে প্রোটিয়া মুল্লুকে আছে ৪৬ রানের ইনিংসও। তবে টিম কম্বিনেশনে ঘরের মাঠে লঙ্কা সিরিজে মাঠে নামতে না পারা হতাশারই বলা যায়।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মুমিনুলের সাথে বিস্তর আলোচনায় বসবেন পাপন

Read Next

বাবর আজমকে নিয়ে দীনেশ কার্তিকের ভবিষ্যৎবাণী

Total
19
Share