ক্যাচ মিসের মাশুল দিয়ে বাদ পড়ল লখনৌ

ক্যাচ মিসের মাশুল দিয়ে বাদ পড়ল লখনৌ
Vinkmag ad

ক্যাচ মিস তো ম্যাচ মিস, কথাটা অক্ষরে অক্ষরে মিলে গেল লখনৌ সুপার জায়ান্টসের ক্ষেত্রে। ম্যাচের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ২ বার জীবন পাওয়া রজত পাতিদারের ১ম সেঞ্চুরির কল্যাণে দারুণ জয়ে ২য় কোয়ালিফায়ার নিশ্চিত করেছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর (আরসিবি)। এলিমিনেটর থেকে লখনৌকে তারা বিদায় করেছে ১৪ রানের ব্যবধানে জিতে। বিফলে যায় লোকেশ রাহুলের অধিনায়কোচিত ইনিংস।

প্রথমে ব্যাটিং পাওয়া আরসিবির এদিন মুল ব্যাটসম্যানরা ছায়া হয়েছিলেন। রানের দেখা পাননি অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস (০), গ্লেন ম্যাক্সওয়েল (৯)। ভিরাট কোহলির ব্যাট থেকে আসে ২৫ রান।

তবে এদিন নায়কের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন টুর্নামেন্টের প্রথম দিকে দলে সুযোগ না পাওয়া রজত পাতিদার। অনবদ্য এক সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে দলকে ২০৭ রানের বড় সংগ্রহ এনে দেন। বিপর্যয়ের সময় ৫ম উইকেটে দীনেশ কার্তিকের সাথে অবিচ্ছিন্ন ৯২ রানের জুটি দলের এমন স্কোরের উৎস। অবশ্য এক্ষেত্রে লখনৌর ফিল্ডারদেরও কৃতিত্ব দিতেই হবে। তাদের কল্যাণে পাতিদার ২ বার ও কার্তিক ১ বার জীবন পান।

৫৪ বলে ১২ চার ও ৭টি বিশাল ছয়ে ১১২ রানে অপরাজিত থাকেন পাতিদার। কার্তিক নট আউট থাকেন ৩৭ রানে।

লখনৌর পক্ষে মহসিন খান, ক্রুনাল পান্ডিয়া, আবেশ খান ও রবি বিষ্ণয় ১টি করে উইকেট পান।

জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে রাহুল ও দীপক হুডা লড়ে গেলেও শেষ পর্যন্ত দলকে জয় এনে দিতে পারেননি। স্লগ ওভারে হারশাল প্যাটেল ও জশ হ্যাজেলউডের বীরত্বে ১৯৩ রানে আটকে যায় লখনৌ।

রাহুল ৭৯ ও হুডা ৪৫ রান করেন।

হ্যাজেলউড ৩ উইকেট নেন। হারশাল ১ উইকেট পেলেও ৪ ওভারে মাত্র ২৫ রান দেন, যেখানে শেষদিকে করেছেন ২ ওভার।

ম্যাচ সেরার পুরস্কার পান রজত পাতিদার।

২য় কোয়ালিফায়ারে শুক্রবার আরসিবির প্রতিপক্ষ ১ম কোয়ালিফায়ারে হেরে যাওয়া রাজস্থান রয়্যালস।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরঃ ২০৭/৪ (২০), কোহলি ২৫, ডু প্লেসিস ০, পাতিদার ১১২*, ম্যাক্সওয়েল ৯, লমরর ১৪, কার্তিক ৩৭*; মহসিন ৪-০-২৫-১, ক্রুনাল ৪-০-৩৯-১, আবেশ ৪-০-৪৪-১, বিষ্ণয় ৪-০-৪৫-১

লখনৌ সুপার জায়ান্টসঃ ১৯৩/৬ (২০), রাহুল ৭৯, ডি কক ৬, ভোহরা ১৯, হুডা ৪৫, স্টয়নিস ৯, লুইস ২*, ক্রুনাল ০, চামিরা ১১*; সিরাজ ৪-০-৪১-১, হ্যাজেলউড ৪-০-৪৩-৩, হাসারাঙ্গা ৪-০-৪২-১, হারশাল ৪-০-২৫-১

ফলাফলঃ রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর ১৪ রানে জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ রজত পাতিদার (রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

২য় ইনিংসেও বাংলাদেশের ব্যাটিং বিপর্যয়

Read Next

সাকিবের ৫ উইকেটের পর ব্যাটিং ব্যর্থতা, ইনিংস হারের শঙ্কায় বাংলাদেশ

Total
1
Share