লিটন-মুশফিকের ফিফটি, বাংলাদেশের ৩০০ পার

জমেছে মুশফিক-লিটন জুটি
Vinkmag ad

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ১৫ মে থেকে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ১ম টেস্ট। এই টেস্টের তৃতীয় দিনের খুটিনাটি আপডেট এই লাইভ রিপোর্টে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (৩য় দিন শেষে):

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংসে ৩৯৭/১০ (১৫৩), ওশাদা ৩৬, করুনারত্নে ৯, মেন্ডিস ৫৪, ম্যাথুস ১৯৯, ধনঞ্জয়া ৬, চান্দিমাল ৬৬, ডিকওয়েলা ৩, রমেশ ১, এম্বুলদেনিয়া ০, বিশ্ব ১৭*, আসিথা ১; নাইম ৩০-৪-১০৫-৬, তাইজুল ৪৮-১২-১০৭-১, সাকিব ৩৯-১২-৬০-৩

বাংলাদেশ ১ম ইনিংসে ৩১৮/৩ (১০৭), জয় ৫৮, তামিম ১৩৩ (রিটায়ার্ড হার্ট), শান্ত ১, মুমিনুল ২, মুশফিক ৫৩*, লিটন ৫৪*; আসিথা ১৬-২-৫৫-১, রাজিথা ১১-৪-১৭-২

৩য় দিন শেষে বাংলাদেশ ১ম ইনিংসে ৭৯ রান পিছিয়ে।

লিটন-মুশফিকের ফিফটি, বাংলাদেশের ৩০০ পারঃ

৩০০ রানের গন্ডি পার করেছে বাংলাদেশ। ইতোমধ্যে ফিফটি তুলে নিয়েছেন লিটন দাস ও মুশফিকুর রহিম। লিটন দাস দেখা পেয়েছেন টেস্ট ক্যারিয়ারের ১২ তম ফিফটির, মুশফিকের যা ২৬ তম। 

জমেছে মুশফিক-লিটন জুটিঃ

চা বিরতির পর থেকে বাংলাদেশ দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস। ইতোমধ্যে ৫০ রানের গন্ডি পার করেছে এই জুটি। ১০৮ বলে ৫০ পার করেন তারা, যেখানে মুশফিকের রান ২০, লিটনের ৩২।

চা বিরতির পর নামতে পারলেন না তামিমঃ

অপরাজিত ১৩৩ রান নিয়ে চা বিরতিতে গিয়েছিলেন তামিম ইকবাল। দেড়শ থেকে ১৭ ও ক্যারিয়ারের ৫০০০ রানের চেয়ে ১৯ রান দূরে ছিলেন। তবে চা বিরতির পর আর নামতে পারলেন না মাঠে। চা বিরতির আগে তামিমের চোখে মুখে অস্বস্তির ছাপ ছিল স্পষ্ট। ক্র্যাম্প করছিলেন, ব্যাথা পেয়েছিলেন হাতেও, সাথে চট্টগ্রামের গরম আবহাওয়া তো আছেই।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

দেড়শ’র পথে তামিম, এখনো বেশ পিছিয়ে বাংলাদেশঃ

দেড়শ’র পথে এগিয়ে যাচ্ছেন তামিম ইকবাল, তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন মুশফিকুর রহিম। ৩ উইকেটে ২২০ রান নিয়ে ৩য় দিনের চা বিরতিতে গেছে বাংলাদেশ। এখনো ১৭৭ রানে পিছিয়ে বাংলাদেশ।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

চট্টগ্রামেও বাংলাদেশ অধিনায়কের রান খরা কাটল নাঃ 

০, ২, ৬, ৫, ২- না কোন মোবাইল নম্বরের ডিজিট নয়, এগুলো মুমিনুল হকের শেষ ৫ টেস্ট ইনিংসের রান। ডারবান, পোর্ট এলিজাবেথের পর নিজের পছন্দের চট্টগ্রামেও দুই অঙ্ক স্পর্শ করতে পারলেন না বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়ক।

কাসুন রাজিথার বলে বোল্ড হবার আগে মাত্র ২ রান করতে পারেন মুমিনুল। ১৯ বল স্থায়ী ইনিংসে ছিলেন না সাবলীল।

মুমিনুল হকের অফ ফর্ম চলছে বেশ লম্বা সময় ধরে। ১৭ ইনিংসে নেই কোন সেঞ্চুরি। শেষ ফিফটিও এসেছিল ৮ ইনিংস আগে। মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে ৮৮ রান করার পর ৮ ইনিংসে ৬ বারই এক অঙ্কের রান করেছেন তিনি, কোন রান না করে আউট হয়েছেন ২ বার।

ফিরে গেলেন শান্তঃ

চট্টগ্রাম টেস্টে শ্রীলঙ্কার সেরা একাদশে ছিলেন না কাসুন রাজিথা। বিশ্ব ফার্নান্দো মাথায় আঘাত পেয়ে ছিটকে গেলে কনকাশন সাব হিসাবে নামেন ম্যাচের ৩য় দিনে। বোলিং করতে আসেন ৫৫ তম ওভারে। অবশ্য নিজের করা ৪র্থ বলেই উইকেটের দেখা পান। ২২ বলে ১ রান করা নাজমুল হোসেন শান্তকে নিরোশান ডিকওয়েলার ক্যাচ বানিয়ে ফেরান তিনি। ১৭২ রানের মাথায় ২য় উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

৩ বছর পর তামিমের টেস্ট সেঞ্চুরিঃ 

৪৯ তম ওভারের ৫ম বলে প্রথম সাফল্যের দেখা পায় শ্রীলঙ্কা। তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল হাসান জয়ের ১৬২ রানের জুটি ভাঙেন আসিথা ফার্নান্দো। ১৪২ বলে ৯ চারে ৫৮ রান করে উইকেটের পেছনে নিরোশান ডিকওয়েলাকে ক্যাচ দেন জয়।

এর ৮ বল বাদেই সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন তামিম ইকবাল। আসিথা ফার্নান্দোর বলে স্কয়ার লেগে ঠেলে সিঙ্গেল নিয়েই ১০ম টেস্ট সেঞ্চুরি পাবার আনন্দে মাতেন তামিম ইকবাল।

২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে হ্যামিল্টনে সেঞ্চুরি পাবার পর ১৬ ইনিংস কোন সেঞ্চুরির দেখা পাননি তামিম। অথচ সেখানে ৬ টিতে ছিল তার ফিফটি, ২ বার আউট হয়েছেন ৯০ এর ঘরেও। অবশেষে নিজ শহর চট্টগ্রামে সেঞ্চুরি খরা কাটল।

চট্টগ্রাম টেস্ট থেকে ছিটকে গেছেন বিশ্ব ফার্নান্দোঃ

প্রথম সেশন বাংলাদেশেরঃ

৩য় দিনের ১ম সেশনটা নিজেদের করে নিয়েছে বাংলাদেশ। এই সেশনে ৮১ রান সংগ্রহ করেছে স্বাগতিকরা, যায়নি কোন উইকেট।  বিনা উইকেটে ১৫৭ রান নিয়ে হাসিমুখেই লাঞ্চ বিরতিতে গেছেন তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল হাসান জয়। 

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

তামিম-জয়ের ১৫০ রানের জুটিঃ

চট্টগ্রামে আজ বাংলাদেশের কোন জুটি হিসাবে টেস্টে ২৯ বারের মত ১৫০ রান পার করলেন তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল হাসান জয়। শুধু ওপেনিং জুটি হিসাব করলে এটি কেবল ৫ম। এর আগের ৪ বারেও ছিলেন তামিম ইকবাল। যেখানে ৩ বার তামিমের সঙ্গী ছিলেন ইমরুল কায়েস, ১ বার জুনায়েদ সিদ্দিকী। 

জয়ের ফিফটিঃ

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য মাহমুদুল হাসান জয় বাংলাদেশের টেস্ট দলের নিয়মিত সদস্য হয়ে গেছেন। ৫ম টেস্ট খেলতে থাকা জয় আজ তুলে নিয়েছেন ক্যারিয়ারের ২য় টেস্ট ফিফটি। ১১০ বলে ৮ চারে ৫০ পূর্ণ করেন তিনি। সেঞ্চুরির পথে আছেন তামিম ইকবাল।

তামিমের ফিফটি, বাংলাদেশের ১০০ঃ

আগেরদিন ৩৫ রান করে অপরাজিত থাকা তামিম ইকবাল আজ তুলে নিয়েছেন ফিফটি, টেস্ট ক্যারিয়ারে যা তার ৩২ তম। ৭৩ বলে ৭ চারে ৫০ পূর্ণ করেন তিনি।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

২৫ তম ওভারের ৩য় বলে বাংলাদেশের দলীয় সংগ্রহ তিন অঙ্ক ছোয়। তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল হাসান জয় রান তুলেছেন দ্রুতই। ১৫১ বলে ১০০ রানের জুটি গড়েন তারা, যেখানে জয়ের ৩৩ এর সাথে তামিমের অবদান ৫৭।

টেস্টে উদ্বোধনী জুটিতে শতরানের জুটি এল ৫ বছর পর। ২০১৭ সালে শ্রীলঙ্কা সফরে তামিম-সৌম্য সেঞ্চুরি জুটি গড়েছিলেন। এরপর অপেক্ষাটা দীর্ঘ হচ্ছিল, যা শেষ হল আজ। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর (২য় দিন শেষে):

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংসে ৩৯৭/১০ (১৫৩), ওশাদা ৩৬, করুনারত্নে ৯, মেন্ডিস ৫৪, ম্যাথুস ১৯৯, ধনঞ্জয়া ৬, চান্দিমাল ৬৬, ডিকওয়েলা ৩, রমেশ ১, এম্বুলদেনিয়া ০, বিশ্ব ১৭*, আসিথা ১; নাইম ৩০-৪-১০৫-৬, তাইজুল ৪৮-১২-১০৭-১, সাকিব ৩৯-১২-৬০-৩

বাংলাদেশ ১ম ইনিংসে ৭৬/০ (১৯), জয় ৩১*, তামিম ৩৫*

২য় দিন শেষে বাংলাদেশ ১ম ইনিংসে ৩২১ রান পিছিয়ে।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

নারীদের আইপিএলে তিন দলের স্কোয়াড ঘোষণা, একই দলে দুই বাংলাদেশি

Read Next

নাইমের বাবা হিসেবেই এখন পরিচিত কাউন্সিলর মাহবুবুল

Total
14
Share