আমি যেটা শুনিনি সেটা লিটন কীভাবে শুনবে, প্রশ্ন ম্যাথুসের

আমি যেটা শুনিনি সেটা লিটন কীভাবে শুনবে, প্রশ্ন ম্যাথুসের
Vinkmag ad

চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিন শেষে ৩২১ রানে পিছিয়ে আছে বাংলাদেশ। তবে আলোচনার খোরাক জোগানো কয়েকটি ঘটনার মাঝে একটি শ্রীলঙ্কার সেরা পারফর্মার অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসের ব্যাটের কানা ছুঁয়ে যাওয়া বলে কোনো আবেদন না হওয়া। দিন শেষে ম্যাথুস বলেছেন তিনি নিজেও বুঝতে পারেননি।

৪ উইকেটে ২৫৮ রান নিয়ে দিন শুরু করে শ্রীলঙ্কা। ১১৪ রান নিয়ে শুরু করা ম্যাথুস ফিরতে পারতেন দ্রুতই।

দিনের চতুর্থ ওভার, ইনিংসের ৯৪তম ওভার। পেসার খালেদ আহমেদের অফ স্টাম্পের বাইরে করা পঞ্চম বলটি ম্যাথুসের ব্যাটের কানা ছুঁয়ে উইকেট রক্ষক লিটন দাসের গ্লাভসে জমা পড়ে।

কিন্তু লিটন কিংবা বোলার খালেদ কেউই বিষয়টি টের পায়নি, করেনি আবেদনও। পরে টিভি রিপ্লেতে আল্ট্রা এজে পরিষ্কার ধরা পড়ে কট বিহাইন্ড। তখন ১১৯ রানে ব্যাট করছিলেন লঙ্কান ব্যাটার।

Image

এ নিয়ে বোলার খালেদ ও উইকেটরক্ষক লিটন দারুণ সমালোচিত হয়েছেন। যদিও সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের প্রতিনিধি হয়ে আসা নাইম হাসান জানালেন আসলে কেউই টের পায়নি। নাইমের আগে এ নিয়ে উত্তর দিতে হয় ম্যাথুসকেও।

তিনি বলেন, ‘সত্যি কথা বললে সে সময় আমি নিশ্চিত ছিলাম না। আমিও অবাক হয়েছিলাম, একদমই শুনতে পাইনি। তাই আমি উল্টো লিটনকে জিজ্ঞেস করেছিলাম যে সে কিছু শুনেছে কি না। তবে স্বাভাবিকভাবেই আমি যেটা শুনিনি, সেটা লিটন কীভাবে শুনবে। এসব জিনিস হয় ক্রিকেটে।’

১৯৯ রানের ইনিংস খেলা ম্যাথুস আরও একবার বেঁচে যান রিভিউ নিয়ে। সেটি প্রথম দিন তাইজুল ইসলামের বলে। ইনিংসের ৪৫তম ওভারে, ম্যাথুস তখন ৩৮ রানে ব্যাট করছিলেন। অফ স্টাম্পের বাইরের বল ব্যাটের কিঞ্চিৎ দূরত্ব হয়ে উইকেটের পেছনে লিটনের হাতে ধরা পড়ে।

আম্পায়ার আউট দিলেও রিভিউ নেন ম্যাথুস, তাতে বেঁচেও যান। তবে এই লঙ্কান ব্যাটার বলছেন রিভিউ নিলেও ব্যাটে লাগতে পারে বলে সন্দেহ ছিল তার।

এ প্রসঙ্গে তার ভাষ্য, ‘আমি ভেবেছিলাম বাঁহাতি স্পিনার তাইজুলের বলে যেটি মিস করলাম, সেটি হয়তো ব্যাটে লেগেছিল। কিন্তু আসলে তা লাগেনি। তো এমন মুহূর্ত আসে যেখানে ব্যাটার হিসেবে আপনিও নিশ্চিত হতে পারেন না।’

চট্টগ্রাম থেকে, ক্রিকেট৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

নাইমের চোখে যে কারণে আজকের বোলিং সেরা

Read Next

নারীদের আইপিএলে তিন দলের স্কোয়াড ঘোষণা, একই দলে দুই বাংলাদেশি

Total
1
Share