রাহিকে আবেগী না হয়ে মাঠে প্রমাণের পরামর্শ মাশরাফির

রাহিকে আবেগী না হয়ে মাঠে প্রমাণের পরামর্শ মাশরাফির
Vinkmag ad

নিউজিল্যান্ডের পর দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে কোনো টেস্ট না খেলেই ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে বাদ পড়লেন পেসার আবু জায়েদ রাহি। আর তাতে নিজেই অবাক বনে গেছেন, সংবাদ মাধ্যমে করেছেন বিস্ফোরক মন্তব্যও। লবিং নেই বলে তাকে নিয়ে কথা বলার কেউও নেই বলছেন এই পেসার। তবে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা মনে করেন লবিংয়ের কোনো সুযোগই নেই জাতীয় দলে। আবেগী না হয়ে রাহিকে মাঠের ক্রিকেটে মনযোগ দেওয়ার পরামর্শও দেন।

মিরপুরে লেজেন্ডস অব রূপগুঞ্জ ও শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব মুখোমুখি হয়েছিল এবারের ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে (ডিপিএল) শেষ রাউন্ডের ম্যাচে। আগের রাউন্ডেই শিরোপা নিশ্চিত করা শেখ জামাল অবশ্য ৮ উইকেটে হেরেছে আজ (২৮ এপ্রিল)।

ম্যাচ শেষে লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জ অধিনায়ক মাশরাফি সংবাদ মাধ্যমে কথা বলেন। সেখানেই আসে রাহির বিতর্কিত লবিং ইস্যু। লবিং নেই উল্লেখ করে সংবাদ মাধ্যমে রাহি জানিয়েছেন তার ক্যারিয়ারই হুমকির মুখে। রমজান ইদের পর তাকে বোর্ডেও ডাকা হচ্ছে বেফাঁস মন্তব্য করায়। মাশরাফি অবশ্য জাতীয় দলে লবিংয়ের সুযোগই দেখেন না।

তিনি বলেন, ‘এ নিয়ে মন্তব্য করার সুযোগ নেই। তবে জাতীয় দলে অনেকে মনে করে লবিং…কিন্তু আসলে এখানে এটার সুযোগ নেই। পারফরম্যান্স করলে দলে থাকবে। দিন শেষে আমি বারবারই বলি আবেগের কোনো জায়গা নেই। খুবই পেশাদার জায়গা, পারফরম্যান্স করতে হবে। দেখেন সবার জীবনেই খারাপ সময় আসে। হয়তোবা রাহির এখন যাচ্ছে। কিন্তু আমি আশা করবো সে খুঁজে বের করবে কীভাবে ব্যাক করা যায়, এতো আলোচনা না করার চেয়ে।’

‘নিজের ঘাটতি বের করতে পারলে সে ইন শা আল্লাহ…যখন টেস্ট দলে কেউ খেলতে চাইতোনা তখন রাহি খেলেছে। তখন কিন্তু রাহি একাই খেলেছে এবং পারফর্ম করেছে। ওর একটা জিনিস আমার ভালো লাগতো এখনো লাগে যে সে কখনো হার মানে না। সে জানে টেস্ট ক্রিকেট তাকে খেলতে হবে, টেস্ট ক্রিকেটের জন্য সে নিজেকে উন্নত করেছে। কোনোভাবে এখন তাসকিন, এবাদত ভালো বল করছে।’

রাহিকে স্বান্তনা দিতে গিয়ে মাশরাফি টেনেছেন লম্বা সময় ধরেই জাতীয় দলের বাইরে থাকা পেসার রুবেল হোসেনকে।

‘রুবেলও ভালো বলে করেছে, শেষ যে ম্যাচ খেলেছে ওয়ানডে, দারুণ বল করেছে। ঐ ম্যাচের পর তো তাকে বাদ দেওয়ার কোনো সুযোগই নাই। কিন্তু ওর থেকে বেটার বোলিং করছে অন্যরা। এটা একটা খেলোয়াড়ের জন্য হতাশার। তবে এখনকার বাংলাদেশ ক্রিকেটে পেস বোলিং বেশ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ।’

‘বিশেষ করে সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটগুলোতে বেশ প্রতিযোগিতা, ইভেন টেস্টে তাসকিন এসে পারফর্ম করা, এবাদত পারফর্ম করলো নিউজিল্যান্ডে, শরিফুল এসে সব ফরম্যাটে পারফর্ম করছে। সুতরাং কঠিন। আমি মনে করি এখানে নিজেকে জাহির না করে মাঠেই নিজেকে জাহির করা ভালো হয় (রাহি ইস্যুতে)।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

শিরোপা বঞ্চিত হয়েও শেষ হাসি মাশরাফির রুপগঞ্জের

Read Next

ইংল্যান্ডের নয়া টেস্ট অধিনায়ক বেন স্টোকস

Total
2
Share