জ্যামের কারণে পিছিয়ে গেলো ক্রিকেটারদের সাথে পাপনের বৈঠক!

জ্যামের কারণে পিছিয়ে গেলো ক্রিকেটারদের সাথে পাপনের বৈঠক!
Vinkmag ad

এইতো দিন কয়েক আগে আবাহনীর হয়ে খেলতে এসে ঢাকার জ্যামে অতিষ্ঠ ভারতীয় টেস্ট ক্রিকেটার হনুমা বিহারি টুইট পর্যন্ত করেছেন। লেজেন্ডস অব রূপগঞ্জের হয়ে খেলতে আসা তার স্বদেশী চিরাগ জানিও সাক্ষাৎকারে ঢাকার জ্যাম নিয়ে আলাদা করে বলতে বাধ্য হয়েছেন। আর এখানে বসবাস করা আম জনতার কাছে তো জ্যামে নাকাল হও নিত্য নৈমত্তিক ব্যাপার। এবার এই জ্যামের কারণে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের সাথে বৈঠকই ভেস্তে গেছে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের।

২৪ এপ্রিল রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ইফতার মাহফিল সম্পন্ন হয়। যেখানে সংবাদকর্মী, ক্রিকেটার, ক্রিকেট সংশ্লিষ্টদের উপস্থিতি ছিল।

তবে ইফতারের নির্ধারিত সময়ের আগেই ক্রিকেটারদের ডাকেন বিসিবি সভাপতি। বিকেলে সাড়ে চারটায় বৈঠকে বসার কথা থাকলেও জ্যামের কারণে ক্রিকেটারদের একটা বড় অংশই যথাসময়ে উপস্থিত হতে পারেনি। ফলে সম্ভাব্য বৈঠকটি বাতিলই হয় শেষ পর্যন্ত ।এ দিন মূলত দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের ভালো-মন্দ নিয়ে আলোচনা করার কথা ছিল।

বিশেষ করে ইতিহাস গড়ে ওয়ানডে সিরিজ জয়ের পর টেস্ট সিরিজে ভরাডুবি নিয়ে খানিক কাটাছেঁড়া হত এই বৈঠকে। প্রোটিয়া মুল্লুকে পেসারদের বিপক্ষে খাবি খাওয়া স্বাভাবিক ঘটনা হলেও টেস্ট সিরিজে স্পিনারদের কাছেই নাকানি চুবানি খেতে হয়েছে টাইগারদের। যে কারণে বাংলাদেশ স্পিন ভালো খেলে এমন ধারণা ভুল হয়ে এসেছে অন্য অনেকের মতো বিসিবি সভাপতির কাছেও।

তবে শেষ পর্যন্ত বৈঠক করা সম্ভব না হলেও ইফতারের পর সংবাদ মাধ্যমে কথা বলতে গিয়ে পাপন জানান, ‘আজ আমরা সাড়ে চারটার দিকে একটা মিটিং ডেকেছিলাম। সব খেলোয়াড়দের ডেকেছিলাম। আমার ইচ্ছে ছিল, টেস্ট দলের সঙ্গে একটু বসব আলাদা করে। অপ্রত্যাশিতভাবে যানজটের কারণে ওরা ছয়টায়ও সবাই এসে পৌছাতে পারেনি। সেজন্য আমরা এটা পিছিয়ে দিয়েছি, আশা করছি দুয়েকদিনের মধ্যেই ওদের সঙ্গে বসব।’

‘ওদের থেকেও একটু শোনা দরকার, ওরা কি মনে করছে। কি কারণে হঠাৎ করে এরকম একটা পারফরম্যান্স হলো। যত কথাই বলুক না কেন, যে খেলোয়াড়গুলো এখানে খেলেছে, এরা কেউ এরকম পারফর্ম করার কথা নয়।’

‘আমি বিশেষজ্ঞ নই। তবে এতদিন আমার ধারণা ছিল আমরা স্পিন ভালো খেলি। পেসে আমাদের দুর্বলতা আছে। বিশেষ করে আমরা যখন দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ডের মতো জায়গায় খেলতে যাই, ব্যাটিংয়ের দিক থেকে তখন আমরা পেসটাকে নিয়েই বেশি চিন্তা করি।’

‘এবারই আসলে প্রথম আমার কাছে মনে হয়েছে যে, আমাদের পেস বোলিংয়ের বিপক্ষে যে দুর্বলতা ছিল সেটা এখন আর ওভাবে চোখে পড়ে না, বরং এখন মনে হচ্ছে যে স্পিনের দিকেই একটু বেশি নজর দিতে হবে।’

পাপন অবশ্য বলছেন একটা সিরিজ দেখেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছানো উচিৎ হবে না। বিশেষ করে একই সফরের ওয়ানডে সিরিজে ভালোভাবে স্পিন সামলানোর কারণে এই ইস্যুতে তৈরি হয়েছে জটিলতা।

তিনি বলেন, ‘তবে একটা সিরিজ দেখে বলাটা খুব কঠিন। কারণ ওদের যে স্পিনার ছিল, মহারাজের কথাই বলি তাকে কিন্তু ওয়ানডেতে ওরা ভালোভাবেই সামলেছে। কিন্তু হঠাৎ করে টেস্টে এসে কি হলো…এই মুহূর্তে ওটা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়াটা কঠিন হবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মুস্তাফিজের চাওয়া না চাওয়া নয়, টেস্ট খেলাতে সিদ্ধান্ত নিবে বিসিবি

Read Next

কোলকাতাকে হারিয়ে শীর্ষে উঠল গুজরাট

Total
1
Share