মুস্তাফিজের চাওয়া না চাওয়া নয়, টেস্ট খেলাতে সিদ্ধান্ত নিবে বিসিবি

সাকিবের স্যাক্রিফাইস বিরাট ব্যাপার বলছেন পাপন
Vinkmag ad

গত বছর বায়ো-বাবল যন্ত্রণাকে কারণ দেখিয়ে টেস্ট ক্রিকেট থেকে নিজেকে সরিয়ে নেয় মুস্তাফিজুর রহমান। এমনকি বিসিবির সর্বশেষ কেন্দ্রীয় চুক্তির আগেও নিজেকে সাদা পোশাক থেকে দূরে রাখেন। তবে এবার তাকে টেস্ট ক্রিকেটে ফেরাতে উদ্যোগী হচ্ছে বিসিবি। প্রয়োজন হলে বর্তমানে আইপিএলে ব্যস্ত এই বাঁহাতিকে আসন্ন শ্রীলঙ্কা সিরিজেও ডেকে আনা হতে পারে।

বায়ো-বাবল যতদিন থাকবে ততদিন টেস্ট খেলবেন না বলে নিজেই বোর্ডকে জানিয়েছিলেন মুস্তাফিজ। সে হিসেবেই তাকে রাখা হয়নি সাদা পোশাকের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে।

চলতি বছর প্রকাশিত কেন্দ্রীয় চুক্তিতেও একই দৃশ্য। যদিও ততদিনে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে করোনা প্রভাব। বায়ো-বাবল থেকেও বেরিয়ে আসছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সহ ফ্র‍্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টুর্নামেন্টগুলো।

মুস্তাফিজ টেস্ট না খেললেও আইপিএল খেলছেন নিয়মিত। কিন্তু সাকিব আল হাসান টেস্ট না খেলে আইপিএল খেললে হচ্ছেন সমালোচিত। ফলে মুস্তাফিজ কি বায়ো-বাবল ইস্যুকে কারণ দেখিয়ে বাড়তি সুবিধা পাচ্ছেন? এমন প্রশ্নও উঠছে।

আর তাতেই নড়েচড়ে বসেছে বিসিবি। দেশের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রক সংস্থা বলছে এখন থেকে খেলোয়াড়দের ইচ্ছে নয়, তারাই চূড়ান্ত করবেন কোন ক্রিকেটার কোন ফরম্যাটে খেলবে। বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন তো প্রয়োজনে মুস্তাফিজকে যেকোন সময় টেস্ট খেলতে ডাকবেন বলেও আভাস দেন।

আজ (২৪ এপ্রিল) রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে বিসিবির ইফতার মাহফিলে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘কে কোন ফরম্যাট খেলতে চায় তা জানতে আমরা খেলোয়াড়দের একটা ফর্ম পাঠিয়ে দিয়েছিলাম। সে অনুযায়ী তাদের রাখা হয়েছে। মুস্তাফিজ কিন্তু টেস্টের জন্য নাম লেখায়নি।’

‘ও বলেনি টেস্ট খেলতে চায়। কিন্তু ও বলল কি বলল না সেটা বড় কথা নয়। আমাদের যখন দরকার হবে অবশ্যই সে খেলবে। কাজেই এখন যদি শ্রীলঙ্কা সিরিজেও মুস্তাফিজকে দরকার হয়, অবশ্যই খেলবে।’

টেস্টে মুস্তাফিজ কিছুটা বিবর্ণ হলেও শেষদিকে তাকে নিয়ে কাজ করা বোলিং কোচরা জানিয়েছেন দারুণ উন্নতি করেছে। সাদা পোশাকেও বাংলাদেশের জন্য দুর্দান্ত কিছু করা সম্ভব এই বাঁহাতির বলেছেন টাইগারদের সাবেক পেস বোলিং কোচ ওটিস গিবসন।

বর্তমানে বাংলাদেশের টেস্ট বোলিং আক্রমণে তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, এবাদত হোসেনরা নিয়মিত। তাদের সাথে এবার মুস্তাফিজকেও উন্মুক্ত রাখতে চায় বোর্ড, প্রয়োজনে কাজে লাগানোর দায়িত্ব টিম ম্যানেজমেন্টের।

পাপন বলেন, ‘তাসকিন, শরিফুল, এবাদত এই তিন জন তো টেস্টের জন্য আছেই। এখানে মুস্তাফিজকেও যদি রাখি, ম্যানেজমেন্ট তাকে খেলাবে কি না আমরা জানি না। কিন্তু যখন দরকার হবে, অবশ্যই তাকে রাখব। খেলবে! যদি দরকার হয় খেলবে। এটা নিয়ে কোনো ইস্যু না।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

সাকিব দলের সঙ্গে ভালোভাবেই জড়িয়েছেন, বলছেন কোচ আফতাব

Read Next

জ্যামের কারণে পিছিয়ে গেলো ক্রিকেটারদের সাথে পাপনের বৈঠক!

Total
2
Share