সাকিব খেলছে ধরে নিয়েই দল সাজাচ্ছে নির্বাচকরা

সাকিব আল হাসান আব্দুর রাজ্জাক
Vinkmag ad

সাকিব আল হাসান শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঘরের মাঠে টেস্ট সিরিজ খেলবেন কীনা এ নিয়ে জিজ্ঞাসার অন্ত নেই। তবে যেহেতু খেলবেন না বলে কোনো কিছু জানাননি সেহেতু নির্বাচকরা ধরেই নিয়েছেন সাকিব খেলছেন। আর সে হিসেবেই লঙ্কানদের বিপক্ষে দল সাজাচ্ছে নির্বাচক প্যানেল।

পরিবারের সদস্যরা হাসপাতালে ভর্তি হওয়া স্বত্বেও দক্ষিণ আফ্রিকায় ওয়ানডে সিরিজ শেষ করেন সাকিব। তবে দেশে ফিরেছেন টেস্ট সিরিজের আগেই। পরিবারের বেশিরভাগ সদস্য সুস্থ হলেও ক্যানসার আক্রান্ত শাশুড়ি মারা যান কিছু দিন আগে।

এদিকে সাকিব তার মেয়েকে নিয়ে পাড়ি জমান যুক্তরাষ্ট্রে। মূলত স্ত্রী দেশে শাশুড়ির দেখভাল করছিলেন বলে মেয়েকে নিয়ে তাকেই যেতে হয়েছে। মেয়ের স্কুল খুলে যাওয়ায় বিপত্তিটা ঘটে।

ঘরের মাঠে আসন্ন শ্রলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে সাকিবকে পাওয়ার যাবে কীনা এমন প্রশ্নে আগের দিন বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান জালাল ইউনুস বলেন তারা দুই-একদিনের মাঝে সাকিবের সিদ্ধান্ত জানবেন।

তবে নির্বাচক আব্দুর রাজ্জাক বলছেন যেহেতু সাকিব না করেনি সেহেতু খেলছেন ধরেই তারা এগোচ্ছেন।

আজ (১৮ এপ্রিল) মিরপুরে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘যেহেতু না করা হয়নি যে কোনোভাবে না আসেনি তো আমরা ধরে নিয়েছি সাকিব খেলবে, খেলছে। এখানে তো না হওয়ার কোনো কথা হয়নি। যেহেতু হয়নি সেহেতু…দক্ষিণ আফ্রিকায় ও খেলতে গিয়েছিল কিন্তু যৌক্তিক কারণে চলে এসেছে। আমি মনে করি এটা যথেষ্ট যৌক্তিক কারণ। সত্যি কথা বলতে সে তো মানসিকভাবে বেশ শক্ত, কয়েকটা ম্যাচ খেলে এসেছে।’

‘যার পরিবারের এতগুলো মানুষ অসুস্থ হসপিটালাইজড থাকে তার জন্য আসলে যতই পেশাদার হোক কাজ চালিয়ে নেওয়া খুব কঠিন। কিন্তু সে করেছে, তারপরেও না বলেনি যে না খেলা হবে না বা খেলবো না এমনটা বলেনি। যেহেতু বলেনি সেহেতু আমরা ধরেই নিয়েছি সে খেলছে।’

চোটের কারণে লঙ্কা সিরিজ থেকে টেস্ট স্কোয়াডের নিয়মিত দুই পেসার তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম ছিটকে যাওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। সে ক্ষেত্রে বিকল্প ভাবতে হচ্ছে নির্বাচকদের। তাদের জায়গায় ডাক পাওয়াদের জন্য দারুণ সুযোগ নিজেকে প্রমাণের বলছেন রাজ্জাক।

জাতীয় দলের এই নির্বাচক যোগ করেন, ‘চোটের কারণে এরা (তাসকিন, শরিফুল) বাইরে গেলেতো স্বাভাবিকভাবেই আমাদের বিকল্প ভাবতে হবে। এখানে বিষয়টা ঐচ্ছিক না, আমাদের আসলে নিতেই হবে। আমাদের আসলে ভাবাভাবির কিছু নেই। পাইপলাইনে যারা আছে তাদের মধ্য থেকেই চেষ্টা করা হবে। যদি ওরা দুজনেই বাদ পড়ে তাহলে পাইপলাইনের সেরা দুজন, যদি একজন বাদ পড়ে তাহলে পাইপলাইনের সেরা একজন সুযোগ পাবে।’

এখনো পুরোপুরি মেডিক্যাল রিপোর্ট আসেনি। যদি দুজনেই বাদ পড়ে একটুতো সমস্যার ব্যাপার। কারণ ওরা দুজন সাম্প্রতিক সময়ে শুধু টেস্ট নয়, সব ফরম্যাটেই ভালো করছে। বাকি যারা আছে তারা যে খারাপ বা পারবে না সেটা না।’

‘কিন্তু একদম রেগুলার যারা খেলে তাদের আত্মবিশ্বাসের লেভেলটা উপরে থাকে। সে ক্ষেত্রে ওরা দুজনেই সিরিজটা না খেললে আমাদের একটু সমস্যা হলেও হতে পারে। কিন্তু আমি আশাবাদী বাকি যারা আছেন দলের তাদের জন্য এটা বড় সুযোগ। মানে টেস্ট ম্যাচ খেলার সুযোগ পাওয়া।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

প্রাইম ব্যাংকের কাছে বড় হারে শিরোপা থেকে আরও দূরে গেলো আবাহনী

Read Next

সুপার লিগের ১ম ম্যাচেও জয়, শিরোপার আরও কাছে শেখ জামাল

Total
18
Share