ডিপিএলঃ লিগ পর্ব শেষে ব্যাট হাতে শীর্ষে যারা

ডিপিএলঃ লিগ পর্ব শেষে ব্যাট হাতে শীর্ষে যারা
Vinkmag ad

চলছে বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ (ডিপিএল) ২০২১-২২ এর খেলা। ১১ দলের টুর্নামেন্টে শেষ হয়েছে লিগ পর্বের খেলা। শীর্ষ ৬ দল (শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব, আবাহনী লিমিটেড, লেজেন্ডস অব রুপগঞ্জ, প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব, রুপগঞ্জ টাইগার্স ক্রিকেট ক্লাব, গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স) খেলবে সুপার লিগে। এর আগে ব্যাট হাতে দাপট দেখিয়েছেন নাইম ইসলাম, এনামুল হক বিজয়, জাকির হাসানরা।

লিগ পর্বে ৭৪৯ রান নিয়ে সবার উপরে আছেন লেজেন্ডস অব রুপগঞ্জের নাইম ইসলাম। বলা চলে অভিজ্ঞ এই ব্যাটারই টেনেছেন দলটাকে। ১০ ইনিংসের ৭ টিতেই পেরিয়েছেন পঞ্চাশের গন্ডি, যার মধ্যে সেঞ্চুরি দুইটি।

ব্যাট হাতে ফর্মের তুঙ্গে আছেন প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের এনামুল হক বিজয়ও। ৭২.৮০ গড়ে করেছেন ৭২৮ রান। পঞ্চাশ ছাড়ানো ইনিংস বিজয়েরও ৭ টি। ২ সেঞ্চুরির একটিকে রূপ দিয়েছেন ক্যারিয়ার সেরা (১৮৪) ইনিংসে।

আরও পড়ুন- ডিপিএলঃ লিগ পর্ব শেষে বল হাতে শীর্ষে যারা

শুরুটা দারুণ করলেও ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারেননি রুপগঞ্জ টাইগার্স ক্রিকেট ক্লাবের জাকির হাসান। ৪৮.৭০ গড়ে করেছেন ৪৮৭ রান। ২ টি করে ফিফটি ও সেঞ্চুরি করেছেন তিনি।

আবাহনী লিমিটেডকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ব্যাট হাতে কোন সেঞ্চুরি না পেলেও ৫ ফিফটিতে ১০ ইনিংসে রান করেছেন ৪৭৭।

খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতি পয়েন্ট তালিকার তলানিতে থাকলেও ব্যাট হাতে আলো ছড়িয়েছেন অমিত হাসান। ৫৮.১২ গড়ে রান করেছেন ৪৬৫। ৩ ফিফটির সাথে আছে ১ সেঞ্চুরিও।

এছাড়া ৪০০ এর বেশি রান করেছেন লেজেন্ডস অব রুপগঞ্জের ভারতীয় রিক্রুট চিরাগ জানি, গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের মেহেদী মারুফ, শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবের সিকান্দার রাজা, শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের সাইফ হাসান ও সিটি ক্লাবের আশিক উল আলম নাইম।

ডিপিএলের লিগ পর্ব শেষে শীর্ষ রান সংগ্রহকারী-

১. নাইম ইসলাম (লেজেন্ডস অব রুপগঞ্জ)- ৭৪৯
২. এনামুল হক বিজয় (প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাব)- ৭২৮
৩. জাকির হাসান (রুপগঞ্জ টাইগার্স ক্রিকেট ক্লাব)- ৪৮৭
৪. মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত (আবাহনী লিমিটেড)- ৪৭৭
৫. অমিত হাসান (খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতি)- ৪৬৫

৬. চিরাগ জানি (লেজেন্ডস অব রুপগঞ্জ)- ৪৩৫
৭. মেহেদী মারুফ (গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্স)- ৪৩১
৮. সিকান্দার রাজা (শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব)- ৪২৫
৯. সাইফ হাসান (শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব)- ৪১০
১০. আশিক উল আলম নাইম (সিটি ক্লাব)- ৪০৯।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

পিএসএলের অনূর্ধ্ব-১৯ সংস্করণ, পাকিস্তান জুনিয়র লিগ

Read Next

যেকারণে ভন-নাসেরের ভোট পাচ্ছেন বেন স্টোকস

Total
11
Share