একই ড্রেসিংরুমে রিজওয়ান-পুজারা, একটা লড়াইয়ের অংশ ডিপিএলও

একই ড্রেসিংরুমে রিজওয়ান-পুজারা, একটা লড়াইয়ের অংশ ডিপিএলও
Vinkmag ad

আইপিএলে পাকিস্তানি ক্রিকেটার, কোচ, ধারাভাষ্যকার নেই কয়েক বছর হল। রাজনৈতিক অস্থিরতায় ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ এখন স্বপ্নেই ভাবা সম্ভব। আইপিএলের বাইরে আর কোনো ফ্র‍্যাঞ্চাইজি লিগ খেলার অনুমতি পায়না ভারতীয় ক্রিকেটাররা। ফলে একই ড্রেসিং রুম শেয়ার করা তো দূরে থাক, প্রতিপক্ষ হয়েও ভারত-পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের লড়াই দেখার সুযোগ থেকে বঞ্চিত ক্রিকেট অনুরাগীরা।

কেবল আইসিসি ইভেন্টে দুই দল মুখোমুখি হচ্ছে সাম্প্রতিক বছরগুলোতে। তবে তাতে কি আর ভারত-পাকিস্তান দ্বৈরথের পিপাসা মিটে? নিকট ভবিষ্যতে এই অস্থির পরিস্থিতি ঠিকঠাক হবে এমনটা ভাবাও কঠিন। তবে সব ছাপিয়ে ইংলিশ কাউন্টি ও ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ (ডিপিএল) কিছুটা হলেও সেই সুযোগ করে দিয়েছে।

কাউন্টির প্রায় প্রতি মৌসুমেই দলগুলোতে খেলে থাকেন পাকিস্তানি ক্রিকেটারদের পাশাপাশি ভারতীয়রা। ফলে অন্তত মুখোমুখি লড়াই হত চেতেশ্বর পুজারা, রবীচন্দন অশ্বিন, আজহার আলি, মোহাম্মদ আব্বাসদের।

কাউন্টির একই দলে ভারতীয় ও পাকিস্তানি ক্রিকেটার খেলার ঘটনা নেহাত কম নয়। তবে এমন কিছু সর্বশেষ ঘটেছিল ১৫ বছর আগে। ২০০৭ সালে ভারতের আর পি সিং ও পাকিস্তানের মনসুর আমজাদ খেলেছেন লেস্টারশায়ারের হয়ে।

এক যুগের বেশি সময় পর আরেক দফা এমন কিছু দেখলো ক্রিকেট বিশ্ব। এবারের কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপে সাসেক্সের হয়ে খেলছেন ভারতের চেতেশ্বর পুজারা ও পাকিস্তানের মোহাম্মদ রিজওয়ান।

আজ (১৪ এপ্রিল) শুরু হওয়া ডার্বিশায়ারের বিপক্ষে ম্যাচে দুজনেই আছেন একাদশে। পুজারা এর আগেও কাউন্টি খেলেছেন ভিন্ন ভিন্ন দলের হয়ে। তবে রিজওয়ান এবারই প্রথম।দুজনকে দলে পেয়ে উচ্ছ্বসিত দলটির কোচ ইয়ান সালিসবারি।

দলের বিবৃতিতে তিনি বলেন,

‘রিজওয়ান ও পুজারার মতো সামর্থ্যসম্পন্ন খেলোয়াড় দলে পেয়ে আমি খুবই রোমাঞ্চিত। সে একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড় যার আগমন পিচে আমাদের পারফরম্যান্সকে উন্নত করবে এবং ড্রেসিং রুমে তাদের উপস্থিতি ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।’

বাংলাদেশের অন্যতম ঘরোয়া টুর্নামেন্ট ডিপিএলের বদলৌতেও এমন দৃশ্যের দেখা মিলে। এবারের আসরেই যেমন আবাহনীর হয়ে খেলছেন হনুমা বিহারি ও মোহামেডানের হয়ে মোহাম্মদ হাফিজ। দুজনে লিগ পর্বে মুখোমুখিও হয়েছেন।

সেদিন ম্যাচ শেষে এ নিয়ে বিহারি সংবাদ মাধ্যমে কথাও বলেন। তার চোখে অবশ্য এসব বাড়তি মনযোগের বিষয়না।

ভারতীয় টেস্ট অলরাউন্ডারের ভাষ্য,

‘এটা আসলে একজন নির্দিষ্ট খেলোয়াড়ের বিপক্ষে খেলা ছিল না, আমি এটাকে কেবল আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচ হিসেবেই দেখেছি। কিন্তু হাফিজ ভালো ব্যাট করেছে, বোলিংও, আর সে এটা শুধু আবাহনীর হয়ে যে করেছে তা না, দীর্ঘদিনের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের পাকিস্তানের হয়ে পারফর্ম করেছে।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ক্লাব ক্রিকেটেও জায়গা হারানো সৌম্যকে পথ দেখাচ্ছেন ফাহিম

Read Next

রোহিতকে অধিনায়কত্ব ছাড়ার পরামর্শ দিলেন সঞ্জয় মাঞ্জরেকার

Total
1
Share