হল না তামিমের ফিফটি, ফিরলেন শান্তও

হল না তামিমের ফিফটি, ফিরলেন শান্তও
Vinkmag ad

পোর্ট এলিজাবেথের সেন্ট জর্জ পার্কে গতকাল (৮ এপ্রিল) থেকে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার ২য় টেস্ট। এই টেস্টের ২য় দিনের খুটিনাটি আপডেট এই লাইভ রিপোর্টে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (২য় দিন শেষে):

দক্ষিণ আফ্রিকা ৪৫৩/১০ (১৩৬.২), এলগার ৭০, এরউই ২৪, পিটারসেন ৬৪, বাভুমা ৬৭, রিকেলটন ৪২, ভেরেনে ২২, মুলডার ৩৩, মহারাজ ৮৪, হারমার ২৯, উইলিয়ামস ১৩, অলিভিয়ার ০*; খালেদ ২৯-৬-১০০-৩, মিরাজ ২৬.২-৪-৮৫-১, তাইজুল ৫০-১০-১৩৫-৬

বাংলাদেশ ১৩৯/৫ (৪১), তামিম ৪৭, জয় ০, শান্ত ৩৩, মুমিনুল ৬, মুশফিক ৩০*, লিটন ১১, রাব্বি ৮*; অলিভিয়ার ৯-৪-১৭-২, মুলডার ৬-৩-১৫-৩

বাংলাদেশ ৩১৪ রানে পিছিয়ে।

হল না তামিমের ফিফটিঃ

৩ রানে প্রথম উইকেট হারানোর পর তামিম ইকবাল ও নাজমুল হোসেন শান্ত ২য় উইকেট জুটিতে যোগ করেন ৭৯ রান। ফিফটির খুব কাছে যেয়ে আউট হয়েছেন তামিম ইকবাল। ৫৭ বলে ৮ চারে ৪৭ রান করে উইয়ান মুলডারের বলে লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে পড়েছেন তামিম। ৮২ রানে নেই বাংলাদেশের ২ উইকেট।

তামিম আউট হবার পর টেকেননি শান্তও। ৭৪ বলে ৬ চারে ৩৩ রান করে মুলডারের ২য় শিকারে পরিণত হন তিনি। এ দফায় অবশ্য রিভিউ নিয়ে সফল হয় দক্ষিণ আফ্রিকা।

ফিরলেন জয়ঃ 

মাথায় ৪৫৩ রানের চাপ, সেই চাপ কাটাতে শুরুতে ভালো এক জুটির দরকার ছিল বাংলাদেশের। অন্তত প্রথম উইকেটে সেই জুটি হল না। ইনিংসের প্রথম ওভারেই সিলভার ডাকের স্বাদ নিয়ে সাজঘরে মাহমুদুল হাসান জয়। ডুয়ানে অলিভিয়ারের বলে স্লিপে সারেল এরউইকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন জয়। আগের ম্যাচে না খেলা তামিম ইকবাল রান তুলছেন ওয়ানডে মেজাজে। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর (২য় দিন, চা বিরতি পর্যন্ত):

দক্ষিণ আফ্রিকা ৪৫৩/১০ (১৩৬.২), এলগার ৭০, এরউই ২৪, পিটারসেন ৬৪, বাভুমা ৬৭, রিকেলটন ৪২, ভেরেনে ২২, মুলডার ৩৩, মহারাজ ৮৪, হারমার ২৯, উইলিয়ামস ১৩, অলিভিয়ার ০*; খালেদ ২৯-৬-১০০-৩, মিরাজ ২৬.২-৪-৮৫-১, তাইজুল ৫০-১০-১৩৫-৬।

মহারাজের ব্যাটে চড়ে প্রথম ইনিংসে ৪৫০ রানের গন্ডি পার করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ইনিংসে তাইজুল ইসলাম নিয়েছেন ৬ উইকেট। সাকিব আল হাসানের পর ২য় বাংলাদেশি হিসাবে পেয়েছেন ১৫০ উইকেট।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

মহারাজকে ফিরিয়ে তাইজুলের ৫ঃ 

বাংলাদেশের পক্ষে এতদিন কেবল সাকিব আল হাসানেরই ছিল ১০ বা তার বেশি ৫ উইকেট (টেস্টে ১ ইনিংসে)। ৯৯ ইনিংসে মোট ১৮ বার ইনিংসে ৫ উইকেট নিয়েছেন তিনি। আজ ৬১ তম ইনিংসে ১০ম ৫ উইকেট শিকার করলেন তাইজুল ইসলাম।

৮৪ রান করা কেশব মহারাজকে সাজঘরে ফিরিয়ে ৫ উইকেট পূর্ণ করেন তাইজুল। ইতোমধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকা অবশ্য পার করে ফেলেছে ৪০০ রানের গন্ডি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (২য় দিন, লাঞ্চ বিরতি পর্যন্ত):

দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৮৪/৭ (১১৫), এলগার ৭০, এরউই ২৪, পিটারসেন ৬৪, বাভুমা ৬৭, রিকেলটন ৪২, ভেরেনে ২২, মুলডার ৩৩, মহারাজ ৫৫*, হারমার ৩*; খালেদ ২৭-৬-৯১-৩, তাইজুল ৩৯-৭-১০৭-৪।

এবার ব্যাট হাতে বাংলাদেশকে ভোগাচ্ছেন মহারাজ: 

ডারবান টেস্টের ২য় ইনিংসে একাই ৭ উইকেট নিয়ে বাংলাদেশের মেরুদন্ড ভেঙে দিয়েছিলেন কেশব মহারাজ। আজ পোর্ট এলিজাবেথে কেশব মহারাজ ভোগাচ্ছেন ব্যাট হাতে।

৩০০ রানে ৬ উইকেট পড়ে যাবার পর উইকেটে আসেন মহারাজ। উইয়ান মুলডারের সঙ্গে গড়েন ৮০ রানের জুটি। ৩৩ রান করা মুলডারকে তাইজুল ইসলাম বোল্ড করলে ভাঙে জুটি। ইতোমধ্যে নিজের ৪র্থ টেস্ট উইকেটের দেখা পেয়েছেন মহারাজ।

বোল্ড করে স্টাম্প ভাঙলেন খালেদঃ

কাইল ভেরেনের সঙ্গে খালেদ আহমেদের কথার লড়াই চলছিল। যাতে মধ্যস্থতা করতে হয় আম্পায়ার মারিয়াস এরাসমাসকে। পরে সেই লড়াইয়ের মীমাংসা না হলেও শেষ হাসি হাসেন খালেদই। দারুণ এক ডেলিভারিতে বোল্ড করেন ভেরেনেকে। বল সরাসরি লাগে মিডল স্টাম্পের উপরিভাগে, ভেঙে যায় স্টাম্প। ৪৮ বলে ৪ চারে ২২ রান করেন কাইল ভেরেনে, দলীয় ৩০০ রানে ৬ষ্ঠ উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। 

 

View this post on Instagram

 

A post shared by cricket97 (@cricket97bd)

রিভিউ নষ্ট করল বাংলাদেশঃ

আগেরদিন এই খালেদ আহমেদের বলেই রিভিউ না নেবার আক্ষেপে পুড়তে হয়েছে বাংলাদেশ দলকে। আজ দিনের শুরুর ওভারেই খালেদ আহমেদের বলে এলবিডব্লিউয়ের আবেদন। কাইল ভেরেনের বিপক্ষে আবেদনে সাড়া দেননি অন ফিল্ড আম্পায়ার। এবার অবশ্য রিভিউ নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক। যদিও তাতে কাজের কাজ কিছু হয়নি। টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় বল উইকেট মিস করে যেতো বেশ বড় ব্যবধানেই। দিনের শুরুতেই রিভিউ নষ্ট করল বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (১ম দিন শেষে):

দক্ষিণ আফ্রিকা ২৭৮/৫ (৯০), এলগার ৭০, এরউই ২৪, পিটারসেন ৬৪, বাভুমা ৬৭, রিকেলটন ৪২, ভেরেনে ১০*, মুলডার ০*; খালেদ ২০-৪-৫৯-২, তাইজুল ৩২-৭-৭৭-৩।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

না ফেরার দেশে ক্যান্সারে ভোগা সাকিবের শাশুড়ি

Read Next

কোনো কিছুতেই কাজ হচ্ছে না মোহামেডানের, দূরে সরছে সুপার লিগ

Total
20
Share