দেশের হয়ে খেলার কারণেই আইপিএলে সুযোগ এসেছে: তাসকিন

দেশের হয়ে খেলার কারণেই আইপিএলে সুযোগ এসেছে- তাসকিন
Vinkmag ad

চোটের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে দেশে ফিরেছেন তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম। দক্ষিণ আফ্রিকায় ঐতিহাসিক ওয়ানডে সিরিজ জয়ে তাসকিনের আছে বড় অবদান। তবে সব ছাপিয়ে দেশের জন্য আইপিএল খেলার সুযোগ ত্যাগ করায় দারুণ আলোচিত এই পেসার। নিজে অবশ্য বলছেন এ নিয়ে ভাবছেন না, দেশের হয়ে খেলেছেন বলেই আইপিএলে ডাক পেয়েছেন।

এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে কোনো ফরম্যাটেই জয় ছিল না বাংলাদেশের। তবে এবার প্রথম ম্যাচ জয়ের সাথে সিরিজও জিতে নিল টাইগাররা। ৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে ২-১ ব্যবধানে। তৃতীয় ম্যাচে তাসকিনের পেস আগুনে পুড়ে ছারখার প্রোটিয়ারা।

ঐ ম্যাচ ৫ উইকেট সহ সিরিজে নেন ৮ উইকেট। জিতেছেন সিরিজ সেরার পুরষ্কারও। তবে সিরিজ চলাকালীনই তাসকিনকে স্বীকার করতে হয় ত্যাগ। মার্ক উড চোটে পড়ায় এবারে আইপিএলে পুরো মৌসুমের জন্য তাসকিনকে চেয়েছে নতুন দল লাখনৌ সুপার জায়ান্ট।

কিন্তু সক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ থাকায় তাকে ছাড়েনি বিসিবি। যদিও প্রথম টেস্ট খেলেই ফিরতে হয়েছে দেশে। মূলত ডারবান টেস্টে কাঁধে চোট পেয়েই দ্বিতীয় টেস্ট না খেলে দেশের বিমান ধরতে হয়েছে।

আজ দেশে ফিরে তাসকিন বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের জানালেন আইপিএল না খেলায় আক্ষেপ নাই। তবে সবার মতো নিজেও যে আইপিএলের অংশ হতে চান সে ইচ্ছের কথা লুকালেন না। কিন্তু এবার সুযোগ পেয়েও খেলতে না পারলেও দেশকে আলাদা কর কৃতিত্ব দিলেন, দেশের জন্যই যে আইপিএলে ডাক পেয়েছেন।

তাসকিন বলেন, ‘না, দেখেন একজন খেলোয়াড় হিসেবে আইপিএল খেলতে সবারই মন চায়, সবসময় মন চায়। যেহেতু দেশের খেলা ছিল ওই সময় তখন কিছু করার ছিল না। দেশের হয়ে খেলার কারণেই তো আইপিএল খেলার সুযোগ হয়েছে। ম্যান অব দ্য সিরিজ, সিরিজ জয় ওইটা কভার করে দিয়েছে। এখন যদি একটা টেস্ট জিততে পারি তাহলে সেটা আরও বেশি ভালো হবে।’

দক্ষিণ আফ্রিকায় ওয়ানডে সিরিজ জয় নিয়ে এই ডানহাতি পেসার বলেন, ‘অবশ্যই, এটা অন্যরকম একটা সিরিজ। সবসময় চেয়েছি বড় দলের বিপক্ষে জয়ের পেছনে নিজের ভূমিকা রাখতে। আল্লাহর অশেষ রহমতে এবার পেরেছি এবং জয়ও পেয়েছি। তো সামনে যাতে এরকম আরও বেশি সিরিজ জয় করতে পারি আমরা দলগতভাবে এবং আমার অবদান বেশি থাকে এটাই।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

অবসরের বেদনায় মোড়ানো দিনে ম্যাচ সেরা, মাশরাফি বলছেন খেয়ালই ছিল না

Read Next

অন্যদের ১৮০-৯০ লাগলেও বাংলাদেশের ১৭০-৭৫ যথেষ্ট বলছেন মাশরাফি

Total
1
Share