আরামেই ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ, বলছেন মুমিনুল

অভিজ্ঞতায় নিজেরা এগিয়ে, তবুও মুমিনুল বলছেন...
Vinkmag ad

ডারবান টেস্টে বাংলাদেশ গড়েছে লজ্জার রেকর্ড, নিজেদের টেস্ট ইতিহাসের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন ৫৩ রানে অলআউট হতে হয়েছে। শত বছরের পুরোনো কিংসমিড স্টেডিয়ামে এর চাইতে কম রান করেনি আর কোনো দল। ২২০ রানের বিশাল ব্যবধানে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে হেরেও অধিনায়ক মুমিনুল হক বলছেন পরের ম্যাচে সহজেই ঘুরে দাঁড়াবে টাইগাররা।

চতুর্থ দিন চা বিরতির পর দক্ষিণ আফ্রিকা যখন নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে অলআউট হয় তখন বাংলাদেশের জন্য লক্ষ্য ঠিক হয় ২৭৪। চতুর্থ ইনিংসে ব্যাট করে যা তাড়া করা খুব সহজ কাজ নয়।

কিন্তু চতুর্থ দিন মাত্র ৬ ওভার ব্যাট করে বাংলাদেশ ৩ উইকেট হারিয়ে যে জায়গায় দাঁড়িয়ে ছিল তাতে কাজটা আরও কঠিন হয়ে পড়ে। আজ (৪ এপ্রিল) পঞ্চম দিনের প্রথম সেশনের প্রথম ঘণ্টাতেই স্পিনার কেশব মহারাজের ঘূর্ণিতে গুটিয়ে তা অসাধ্যই থেকে গেলো।

৫৩ রানে গুটিয়ে যাওয়া, ২২০ রানের বড় হার। সব মিলিয়ে ৮ এপ্রিল শুরু হতে যাওয়া দ্বিতীয় টেস্টের আগে বাংলাদেশ ব্যাকফুটেই থাকার কথা। এমন পরিস্থিতি থেকে কীভাবে পরের ম্যাচে ঘুরে দাঁড়াবে বাংলাদেশ? প্রশ্ন রাখা হয় সংবাদ সম্মেলনে।

জবাবে অধিনায়ক মুমিনুল বলছেন খুব সহজে এবং আরামে। কারণ হিসেবে জানালেন হেরে যাওয়া টেস্টের চারদিনই তারা ভালো খেলেছেন। ব্যাটিংয়ে সেঞ্চুরি হাঁকানো মাহমুদুল হাসান জয় ছাড়াও লিটন দাস, ইয়াসির আলি রাব্বিরা আশাবাদী করছে মুমিনুলকে। বল হাতে ঝলক দেখানো পেসারদের সাথে মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে উচ্ছ্বসিত টাইগার কাপ্তান।

তিনি বলেন, ‘অবশ্যই ঘুরে দাঁড়ানো যাবে, ঘুরে দাঁড়ানো যাবে না কেন? ঘুরে না দাঁড়ানোর কোনো কারণ তো নেই। দেখেন আমরা কিন্তু পাঁচ দিনের ভেতর চারটা দিন ভালো খেলেছি। কালকের শেষ সেশনটা ও আজকের প্রথম সেশনটা আমরা বাজে ব্যাটিং করেছি। এখানে অনেক ইতিবাচক লক্ষ্মণ আছে। যেগুলো দেখলে আমার কাছে মনে হয় আমরা সবাই আরামে, সহজেই বাউন্স ব্যাক করতে পারবো।’

‘আপনি যদি দেখেন জয় খুব ভালো ইনিংস খেলেছে। ১৩৭ রানের বেশ ভালো ইনিংস, লিটন ভালো ব্যাটিং করেছে, রাব্বি ভালো ব্যাটিং করছে, মিরাজও ভালো ব্যাটিং করেছে। বোলাররা খুবই ভালো বল করেছে। মিরাজ আউটস্ট্যান্ডিং, এই উইকেটে প্রথম দিকে দারুণ, পেস বোলাররাও ভালো বল করেছে। পাঁচ দিনই যে আমরা খারাপ খেলেছি তা না, শেষ দিনটা আমরা বাজে খেলে ফেলছি। যে কারণে ম্যাচটা আমাদের কাছ থেকে চলে গেছে।’

‘টেস্ট ক্রিকেটে আপনারা তো জানেন একদিন স্লিপ করলে সেখান থেকে ব্যাক করা খুবই ডিফিকাল্ট। আমার কাছে মনে হয় মানসিকভাবে শক্ত হয়ে এ জায়গাটায় আমরা আরও ভালোভাবে কামব্যাক করতে পারবো।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

মুমিনুল বলছেন প্রোটিয়ারা মাঠে গালাগালিও করেছে

Read Next

মুমিনুলের চোখে হারমার-মহারাজদের উইকেট দেওয়া বিরাট অপরাধ

Total
1
Share