রান বন্যার ম্যাচে ডু প্লেসিসকে ম্লান করে জিতল পাঞ্জাব কিংস

রান বন্যার ম্যাচে ডু প্লেসিসকে ম্লান করে জিতল পাঞ্জাব কিংস
Vinkmag ad

২০২২ আইপিএলের (ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) প্রথম ডাবল হেডার! নতুন দল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের হয়ে আইপিএলে নেতৃত্বের অভিষেকেই ফাফ ডু প্লেসিসের ব্যাটে ঝড়। ফাফের দুর্দান্ত ৮৮ আর কোহলি-কার্তিকের ফিনিশিংয়ে ব্যাঙ্গালোরের সংগ্রহ ২০৫। এই পাহাড়সম রান সহজেই তাড়া করে ব্যাঙ্গালোরকে পাঁচ উইকেটে হারাল পাঞ্জাব কিংস। ২৫ রানের ক্যামিও ইনিংস খেলে দলকে জেতানো ওডেন স্মিথ হলেন ম্যাচ সেরা।

৮৮ রানের অধিনায়কোচিত ইনিংস খেলেন ফাফ। নির্ধারিত ২০ ওভারে ২০৫ রান তোলে ব্যাঙ্গালোর। ২০৬ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ভালো শুরু করে পাঞ্জাবের ওপেনিং জুটি শিখর ধাওয়ান ও মায়াঙ্ক আগরওয়াল। ৪৩ রান করেন শিখর এবং ভানুকা। জীবন পাওয়া ওডেন স্মিথ শেষ বেলায় ঝড়ো ইনিংসে জয় এনে দিল পাঞ্জাবকে। ১ ওভার বাকি থাকতেই ২০৮ রান তুলে ম্যাচ জিতে নিল।

মুম্বাইয়ের ডি ওয়াই পাতিল স্টেডিয়ামে টসে জিতে শুরুতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিলেন পাঞ্জাব কিংসের নতুন অধিনায়ক মায়াঙ্ক আগারওয়াল। শুরুর ম্যাচেই আরসিবির জার্সিতে অভিষেক হয়েছে পাঁচ ক্রিকেটার ও পাঞ্জাব কিংসের ছয় ক্রিকেটারের।

ওপেনিংয়ে নামলেন ফাফ ডু’প্লেসিস ও অনুজ রাওয়াত। পাওয়ার প্লে-তে উইকেট না হারালেও, ব্যাঙ্গালোর রান করেছিল কেবল ৪১। এরপর রাহুল চাহারকে আক্রমণে আনতেই, বোল্ড হয়ে বিদায় নেন ২১ রানে থাকা অনুজ রাওয়াত।

মন্থর গতিতে ব্যাটিংয়ে কোহলির সঙ্গে জুটি গড়েন ফাফ। ১২ ওভার শেষে বদলেছেন ব্যাটের সুইং স্পিড। ছক্কা বৃষ্টি নামিয়ে দেন ওডেন স্মিথ ও হারপ্রীত ব্রারের বলে। চেন্নাইয়ের জার্সি বদলে ব্যাঙ্গালোরতে ফিরলেও ব্যাটের রঙ বদলায়নি ডু প্লেসিসের। সেঞ্চুরির পথে থাকলেও অর্শদীপ সিংহ শিকার হয়ে ফিরলেন আক্ষেপ নিয়ে। ৫৭ বলে ৭ ছয় ও ৩ বাউন্ডারিতে ৮৮ রান করেন ফাফ ডু প্লেসিস।

নিজের গতিতে খেলে ফাফকে যোগ্য সঙ্গ দেন তিনে নামা কোহলি। ২৯ বলে ৪১ রানের অপরাজিত ইনিংসে ভিরাট কোহলি বোঝালেন কেন তিনি আরসিবির ব্যাটিংয়ের অন্যতম ভরসা। ৩টি চার ও ৩টি ছয় মেরে মাত্র ১৪ বলে ৩২ রানের ক্যামিও ইনিংস খেললেন দিনেশ কার্তিক। দুই উইকেট হারিয়ে ব্যাঙ্গালোর শেষপর্যন্ত স্কোরবোর্ডে জমা করে ২০৫ রান। নিঃসন্দেহে পাঞ্জাবের সামনে বড় টার্গেট।

পাঞ্জাবের বোলারদের মধ্যে রাহুল চাহারের সেরা ফিগার। নিজের ৪ ওভারে মাত্র ২২ রান দিয়ে ১টি উইকেট নিয়েছেন।

লক্ষ্য তাড়ায় নেমে শিখর ধাওয়ান আর মায়াঙ্ক আগারওয়ালের দুর্দান্ত ওপেনিংয়ে পাওয়ার-প্লেতে কোন উইকেট না হারিয়ে ৬৩ রান তুলে পাঞ্জাব। নিজের প্রথম ওভারের শুরুর বলেই আরসিবিকে প্রথম সাফল্য এনে দিলেন লঙ্কান ওয়ানিন্দু হাসারঙ্গা। ৩২ রানে মাঠ ছাড়লেন অধিনায়ক মায়াঙ্ক।

এরপর হারশাল প্যাটেল ধাওয়ানের (৪৩) উইকেট তুললেও লিয়াম লিভিংস্টোনের (১৯) সাথে জুটি বেঁধে দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন ভানুকা রাজাপাকসে। কিন্তু ইনিংসের ১৪তম ওভারে পরপর দুই বলে রাজাপাকসে (৪৩) ও রাজ বাওয়ার (০) উইকেট নিয়ে আরসিবিকে আশার আলো দেখিয়েছিলেন মোহাম্মদ সিরাজ।

কিন্তু ওডেন স্মিথ (২৫) এবং শাহরুখ খান (২৪) শেষদিকে আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করে পাঞ্জাবকে জয় এনে দেন। ফলে বড় সংগ্রহ করেও আরসিবি অধিনায়ক হিসেবে হার দিয়েই শুরু করলেন ডু প্লেসিস।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ (আইপিএল ২০২২, ৩য় ম্যাচ)

রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরঃ ২০৫/ ২ (২০ ওভার) ডু প্লেসিস ৮৮, রাওয়াত ২১, কোহলি ৪১*, কার্তিক ৩২*; আর্শদীপ ৪-০-৩১-১, রাহুল ৪-০-২২-১

পাঞ্জাব কিংসঃ ২০৮/৫ (১৯ ওভার) মায়াঙ্ক ৩২, ধাওয়ান ৪৩, রাজাপাকসে ৪৩, লিভিংস্টোন ১৯, বাওয়া ০, শাহরুখ ২৪*, স্মিথ ২৫*; সিরাজ ৪-০-৫৯-২, আকাশ ৩-০-৩৮-১, হাসারাঙ্গা ৪-০-৪০-১, হার্শাল ৪-০-৩৬-১

ফলাফলঃ পাঞ্জাব কিংস ৫ উইকেটে জয়ী

ম্যাচ সেরাঃ ওডেন স্মিথ (পাঞ্জাব কিংস)।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

এ আর রহমানের কনসার্টের টিকিট বৃত্তান্ত

Read Next

আইপিএলে নতুন দলে ফিরেই নতুন ভূমিকায় রাশিদ খান

Total
2
Share