দারুণ এক বিশ্বকাপ কাটছে, তবে তৃপ্তির আক্ষেপ জ্যোতির কন্ঠে

'ওরা চেনে না' যখন নিগারের কাছে ভালো দিক
Vinkmag ad

নিজেদের প্রথম ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া বাংলাদেশ নারী দলের এখনো পর্যন্ত সাফল্য পাকিস্তানের বিপক্ষে জয়। খালি চোখে আহামরি কিছু মনে না হলেও প্রতিটি ম্যাচে নজর দিলে টাইগ্রেসদের ভালো খেলা সামনে আসবে। শক্ত প্রতিপক্ষ হলেও বেশ কয়েকটি জয়ের সুবর্ণ সুযোগ পেয়েও আক্ষেপে পুড়তে হয়েছে। আজ (২৫ মার্চ) অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হারের পর অধিনায়ক জ্যোতি বলছেন তারা তৃপ্ত হতে পারছেন না।

প্রথমবারের মতো ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলতে যাওয়া একটা দল সর্বোচ্চ ভালো খেলার স্বপ্ন দেখতে পারে। অথচ প্রথম ম্যাচ থেকেই বাংলার নারীরা জয়ের দ্বারপ্রান্তে যাওয়ার পরিস্থিতি তৈরি করে বসেছে। কিছুটা অভিজ্ঞতা থাকলে নিশ্চিতভাবে টুর্নামেন্টের এই পর্যায়ে অন্তত ৩ -৪ টি জয় থাকতো বাংলাদেশের।

প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে বল হাতে দারুণ শুরু পর ব্যাট হাতেও ভালো শুরু। কিন্তু মাঝে খেই হারিয়ে ৩২ রানের পরাজয় সঙ্গী। স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পরের ম্যাচে ৯ উইকেটে হারলেও ব্যাট হাতে ঝলকই দেখিয়েছিল টাইগ্রেসরা।

তবে তৃতীয় ম্যাচেই ইতিহাস গড়া বিশ্বকাপের প্রথম জয়। পাকিস্তানকে হারায় ৯ রানে। পরের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজ নারীদের বিপক্ষেও প্রায় জিতেই যাচ্ছিলো বাংলাদেশ। শেষ ওভারে গড়ানো ম্যাচে ৪ রানে হেরে এক রাশ আক্ষেপ হয়েছে সঙ্গী। তবে বাজেভাবে হেরেছে ভারতের কাছে, ১১০ রানের ব্যবধানে।

কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আজ আবার দুর্দান্ত খেলেছে। আগে ব্যাট করে বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে ৪৩ ওভারে ৬ উইকেটে রান ১৩৫। জবাবে অজিদের ৫ উইকেট তুলে নেয় ৭০ রানেই। কিন্তু সেখান থেকে বেথ মুনির হার না মানা ৬৬ রানের ইনিংসে পরাজয় বরণ করতে হয় ৫ উইকেটে। টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের শেষ ম্যাচ ২৭ মার্চ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে।

আজ ম্যাচ শেষে অধিনায়ক নিগার সুলতা জ্যোতি নিজেদের পারফরম্যান্স নিয়ে তৃপ্ত নন উল্লেখ করে বলেন, ‘অবশ্যই তৃপ্ত না। কারণ যদি আমরা আমাদের পারফরম্যান্স বেজ করে চিন্তা করি আমাদের কিন্তু হাতে…আমরা চিন্তা করেছি আমরা তিন/চারটা ম্যাচ এখান থেকে জিতে যাব। এটা কিন্তু সম্ভবও হয়েছিল। আমরা অনেক ক্লোজ ক্লোজ ম্যাচগুলো হেরেছি। আমি বলব যে ল্যাক অব এক্সপিরিয়েন্সের জন্য এটা হয়েছে। তৃপ্ত হতে পারিনি কারণ এটা তৃপ্ত হওয়ার মতো সিচুয়েশন আসলে না। দল হিসেবে আমরা হয়তোবা আরও ব্যাটার পারফরম্যান্স করতে পারতাম।’

‘হয়তোবা ম্যাচগুলো হেরেছি কিন্তু আরেকটু বেটার শো দেখাতে পারতাম। বাট স্টিল আমার কাছে মনে হয় আমাদের এখনো অনেক লম্বা সময় আছে, অনেক পথ পাড়ি দেওয়ার আছে। লং ওয়ে টু গো। সো যতটুকু এখান থেকে পজেটিভ যারা হচ্ছে ভালো করেছে বোলাররা বলেন বা ইন্ডিভিজুয়ালি অনেক ভালো ভালো পারফরম্যান্স আছে। তারা সে জিনিসগুলোকে যদি আরও ক্যারি ফরোয়ার্ড করতে পারে, আমার কাছে মনে হয় ফিউচারে এই টিমটাই একটা ভালো জায়গায় দাঁড়াবে।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

স্মিথ গড়লেন দ্রুততম ৮০০০ এর রেকর্ড

Read Next

দুই জাকিরের সেঞ্চুরির দিনে রুপগঞ্জের জয়

Total
17
Share