ভালো খেলে ব্যাটিং অর্ডারে উন্নতি নয় বরং ৭ নম্বরেই স্থায়ী হচ্ছেন আফিফ

ফিফটি করে বাংলাদেশকে ম্যাচে রেখেছেন আফিফ
Vinkmag ad

আফিফ হোসেন গতকাল (২০ মার্চ) দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ নিয়ে ওয়ানডে খেলেছেন ১২ টি। ঘরোয়া ক্রিকেটে নিয়মিত ৪ ও ৫ নম্বরে ব্যাট করা এই বাঁহাতি জাতীয় দলে ৭ নম্বরে খেলছেন। ধারাবাহিকভাবে সফল হয়ে ব্যাটিং অর্ডারে উপরে ওঠার আলোচনাও তৈরি করছেন। কিন্তু টিম ম্যানেজমেন্ট ও অধিনায়ক সাফ জানিয়ে দিলেন ৭ নম্বরের জন্য আফিফই ঠিক ব্যক্তি।

১২ ম্যাচে আফিফ ব্যাট করেছেন ৪ টি ভিন্ন পজিশনে। ৪, ৬ ও ৮ নম্বরে একটি করে ইনিংস খেলা এই বাঁহাতি ৭ নম্বরে খেলেছেন ৯ ইনিংসে। যেখানে সাফল্যের হারও ঈর্ষনীয়। বাকি ৩ পজিশনে সর্বোচ্চ রান ১৫, তবে ৭ নম্বরে খেলা ৯ ইনিংসে ৫১.৮৩ গড়ে রান করেছেন ৩১১।

যেখানে গত মাসে আফগানিস্তানের বিপক্ষে অবিশ্বাস্য জয় পাওয়া ম্যাচে অপরাজিত ৯৩ রানের নায়কোচিত ইনিংস। এরপর গতকাল ৩৪ রানে ৫ উইকেট হারানো বাংলাদেশ যে ৯ উইকেটে ১৯৪ রানের পুঁজি পেলো সেটাও তার ৭২ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংসে ভর করে।

৭ নম্বরে নেমে আফিফের এমন ব্যাটিং কি তাকে ব্যাটিং অর্ডারে উপরে তোলার দাবি জানায়? হয়তো উপরে খেলা তার প্রাপ্যও। কিন্তু তাকে আপাতর ৭ নম্বরেই যে স্থায়ী ভেবে রেখেছে টিম ম্যানেজমেন্ট।

ম্যাচ শেষে অধিনায়ক তামিম যেমন বলছিলেন, ‘আফিফ দেখেন ৭ নম্বরে সত্যই ভালো ব্যাটিং করেন। আমি যদি এখন আফিফকে ছয়ে নিয়ে আসি,দেন ইউ হেভ টু ফাইন্ড এনাদার নাম্বার সেভেন। তখন কথা হবে যে নাম্বার সেভেনে কে খেলবে? আমরা নাম্বার সেভেনে আপনার যদি মনে থাকে যে ৬ মাস বা ১ বছর আগে আমরা সব সময়ই বলতাম যে উই নীড টু ফাইন্ড নাম্বার ৬ নাম্বার ৭—আমাদের গেম ফিনিশ করবে ওর নিচে যাইয়া রান করবে।’

‘আমার কাছে হয় আফিফ ইজ দ্য রাইট গাই। ও যে ধরনের ব্যাটিং করে ওখানে ২/৪টা ম্যাচে খারাপ করতেই পারে। কিন্তু যেদিন ও ভালো খেলবে ভালো রান করবে ওইদিন আমরা একটা মিডিলিং পজিশনে চলে যাব। এটাই তার কোয়ালিটি, আমি সবসময় বলব সে তার পজিশনে সব সময় ভালো করতেছে।’

এর আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজেও কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোও আফিফকে উপরের দিকে খেলাতে না পারার ব্যাখ্যা দেন।

তার মতে,‘আমাদের টপ অর্ডারে একজন উইকেটরক্ষক ও একজন ফ্রন্টলাইন স্পিনার আছে। তাই আফিফের জন্য ৭ নম্বর পারফেক্ট। সে ম্যাচ শেষ করে আসায় পারদর্শী। নতুন বলে তাকে আরও কাজ করতে হবে, এটা সেও জানে। তাই তাকে এখন ওপরে ওঠানো ঠিক হবে না। তার খেলার যে ধরন তাতে ৭ নম্বর পজিশনই এখন মানানসই। নিকট ভবিষ্যতে তাকে ওপরে খেলানো হবে না।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

তামিমের উইকেট ও পরিসংখ্যান বিভ্রান্তি

Read Next

পিসিবির অন্যরকম আয়োজন, লাহোর টেস্টে প্রতিদিন ৬০০ শিক্ষার্থীর আমন্ত্রণ

Total
3
Share