মোসাদ্দেক বলছেন ঘরোয়া ক্রিকেটেও ম্যাটার করে না সিনিয়র-জুনিয়র

সিলেট সানরাইজার্সকে নিয়েও আশার পালে হাওয়া দিচ্ছেন মোসাদ্দেক
Vinkmag ad

জাতীয় দলের মতো ক্লাব ক্রিকেটেও সিনিয়র জুনিয়র পার্থক্য কমছে। এবার যেমন জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের ছাড়াই চলছে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগ (ডিপিএল)। তারকা নির্ভর ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন আবাহনী শুরু থেকে পাচ্ছে না নিজেদের সেরা ক্রিকেটারদের। হার দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেও অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন বলছেন যাদের পাচ্ছেন তাদের নিয়েই ফল আনতে পারবেন।

সর্বশেষ টানা ৩ মৌসুমে শিরোপা জেতা আবাহনী বরাবরের মতো এবারও দলে অন্তর্ভূক্ত করেছে জাতীয় দলের বেশ কিছু ক্রিকেটারকে। তাদের বাইরে যারা আছেন তারাও বেশ প্রতিভাবান ও ঘরোয়া ক্রিকেটে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার।

জাতীয় দলের লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মাহমুদুল হাসান জয়, শহিদুল ইসলামদের পাওয়া যাচ্ছে না। তারা বর্তমানে আছেন দক্ষিণ আফ্রিকায়।

তাদের ছাড়া মাঠে নেমে নবাগত রূপগঞ্জ টাইগার্সের সাথে হার দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করে আবাহনী। দলটির অধিনায়ক মোসাদ্দেক বলছেন হার দিয়ে শুরু হওয়াটা ভাবাচ্ছে না তাদের। জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের না পাওয়াকেও খুব বেশি নেতিবাচক বলতে নারাজ মোসাদ্দেক।

আজ (২০ মার্চ) মিরপুরে অনুশীলন শেষে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘সিনিয়র বলতে এখানে আমরা যারা খেলি, আমাদের দলে যারা আছে, গত পাঁচ-সাত বছর তারা ঢাকা লিগ খেলে এবং অভিজ্ঞতা সম্পন্ন ক্রিকেটার। এখানে সিনিয়র-জুনিয়র খুব বেশি ম্যাটার করে বলে আমি মনে করি না।’

‘আমাদের যে পারফর্মারগুলো আছে, দল হিসেবে আমরা যদি পারফর্ম করতে পারি তাহলে আমি মনে করি যে তাহলে আমরা খুবই ভালো ক্রিকেট খেলতে পারব এবং আমরা যে রেজাল্টগুলো চাই, সেগুলো ফড়ে আনতে পারব।’

‘এটা তো অনেক বড় একটা টুর্নামেন্ট। আমাদের মাত্র একটা ম্যাচ গেছে, আরো অনেক ম্যাচ বাকি আছে। আমরা ম্যাচ বাই ম্যাচ এগোতে চাই। আপনারা যদি দেখেন, কাগজে-কলমে বড় দুই-তিনটা দলের মধ্যে আমাদের একটা। বড় দলগুলো তো চাইবে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য খেলতে, অবশ্যই আমরা সেই লক্ষ্য নিয়েই এগোচ্ছি। একটা ম্যাচ হারেছি মানেই এই না যে সব শেষ হয়ে গেছে আমাদের।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

বাংলাদেশকে সহজেই হারাল দক্ষিণ আফ্রিকা

Read Next

দাপুটে জয়ে সিরিজে সমতা ফেরাল দক্ষিণ আফ্রিকা

Total
10
Share