রাব্বির ব্যাটিংয়ে কতটা প্রভাব ছিল ডি ভিলিয়ার্স, অ্যালবি মরকেলের?

রাব্বির ব্যাটিংয়ে কতটা প্রভাব ছিল ডি ভিলিয়ার্স, অ্যালবি মরকেলের?
Vinkmag ad

ঘরের মাঠ চট্টগ্রামে গত মাসে আফগানিস্তান সিরিজ দিয়ে ওয়ানডে অভিষেক ইয়াসির আলি চৌধুরী রাব্বির। তবে রাঙাতে পারেননি ঠিকঠাক, দীর্ঘ অপেক্ষার পর জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়া এই ব্যাটার এবার আস্থার প্রতিদান দিলেন দূর দেশ দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়ে। প্রোটিয়া সাবেক দুই ক্রিকেটার এবি ডি ভিলিয়ার্স ও অ্যালবি মরকেলের সংস্পর্শে থেকে নতুন কিছু শিখেছেন বলে জানান রাব্বি।

টেস্ট অভিষেক হয়েছে আগেই, জায়গাটাও মোটামুটি পাকা। তবে রঙিন পোশাকে শুরুটা হয়েছে বিবর্ন। চট্টগ্রামে আফগানদের বিপক্ষে ৩ ওয়ানডের দুইটিতে সুযোগ পেয়ে করতে পারেননি ১ রানের বেশি (০, ১)।

তবে গতকাল (১৮ মার্চ) দক্ষিণ আফ্রিকার সেঞ্চুরিয়নে বাংলাদেশের পাওয়া ঐতিহাসিক জয়ে রেখেছেন বড় অবদান। সাকিব আল হাসান ও লিটন দাসের সাথে হাঁকিয়েছেন ফিফটি।

চতুর্থ উইকেটে সাকিবের সাথে যোগ করেন ১১৫ রান। যা দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে যেকোনো উইকেটে ওয়ানডেতে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ও একমাত্র শতরানের জুটি।

৭৭ রান করে সাকিব ফেরার পর বেশিক্ষণ টিকেননি রাব্বিও। তবে তার আগে তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি। রাবাদাকে ফ্লিক শটে হাঁকানো ছক্কা মুগ্ধ করবে যে কাউকে। রাবাদাকেই অবশ্য ফিরতি ক্যাচ দেন ৪৩ বলে ৪ চার ২ ছক্কায় ৫০ রান করে।

ম্যাচের আগেরদিন টাইগার কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোর অনুরোধে টিম হোটেলে আসেন দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক তারকা ব্যাটার এবি ডি ভিলিয়ার্স। প্রায় ঘন্টা খানেক সময় দেন বাংলাদেশ দলের খেলোয়াড়দের। এর বাইরে ওয়ানডে সিরিজ শুরুর আগে পাঁচ দিনের জন্য পাওয়ার হিটিং কোচ হিসেবে ডেকে নেওয়া হয় আরেক দক্ষিণ আফ্রিকান সাবেক অলরাউন্ডার অ্যালবি মরকেলকে।

নিজের ব্যাটিংয়ে দুজনের প্রভাব তুলে ধরে রাব্বি ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘অবশ্যই…অনেক কথার মধ্যে কিছু না কিছু কথা থাকে যেগুলো কাজে লাগে সব সময়ই। ডি ভিলিয়ার্স হোটেলে এসেছিলেন। হ্যাঁ উনি এমন কিছু কথা বলেছেন আমাদের, বিশেষ করে আমার জন্য খুব কাজে লেগেছে।‘

‘মরকেলের সঙ্গে আমি দুদিন একটু পাওয়ার হিটিং নিয়ে কাজ করেছি। ও আমাকে একটা কথাই বলতো, যতো পারো সোজা মারার চেষ্টা করো। সোজা যতোটুকু সম্ভব। এটা সেরা অপশন। এটাই ছিল ওর সঙ্গে আমার কাজ। তিনদিনে আসলে এতো বেশি কিছু শেখা সম্ভব না। আমাকে মূল বিষয়টি যেটা সেটাই বলেছিলেন। ’

সাকিবের সাথে জুটি গড়ার পথে কি আলাপ হয়েছে জানাতে গয়ে রাব্বি যোগ করেন, ‘ক্রিজে গিয়ে সাকিব ভাইকে জিজ্ঞাসা করলাম ভাই কি অবস্থা উইকেটের (হাসি)? সাকিব ভাই বললেন উইকেট খুব ভালো। ৫-৬ টা বল দেখ, ১০-১৫ টা বল খেললে তুমি নিজেই বুঝে যাবে উইকেট কেমন। তুমি নিজেই মারতে পারবা। দ্যাটস ইট।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

শুরুর আগেই ইনজুরিতে আইপিএল শেষ মার্ক উডের

Read Next

সেঞ্চুরিয়নের স্বপ্ন মাউন্ট মঙ্গানুইতে বসেই দেখেছিল বাংলাদেশ

Total
6
Share