পরিসংখ্যান বলছে রান প্রসবা সেঞ্চুরিয়ন, নিজেদের ভালো খেলাতে তামিমের ধ্যান

অধিনায়ক তামিমের অতৃপ্তি যে দুই ম্যাচ নিয়ে
Vinkmag ad

দক্ষিণ আফ্রিকার সুপারস্পোর্ট পার্ক ও ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়ামের উইকেট যেন রান প্রসবে সদা প্রস্তুত। তবে যতই ব্যাটিং স্বর্গ হোক আগামীকাল (১৮ মার্চ) প্রোটিয়া পেসারদের তোপ সামলেই ভালো খেলতে হবে বাংলাদেশ ব্যাটসম্যানদের।

সেঞ্চুরিয়নে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটি মাঠে গড়াবে। যেখানে ওয়ানডেতে ৪০০ ছুঁইছুঁই রানও উঠেছে এক ইনিংসে।

বাংলাদেশ এর আগে এই মাঠে খেলেনি কোনো ম্যাচ। সিরিজের প্রথম ম্যাচের মতো তৃতীয় ও শেষ ম্যাচটিও এখানে অনুষ্ঠিত হবে। মাঝে দ্বিতীয় ওয়ানডে হবে রান তোলাতে উদার আরেক স্টেডিয়াম ওয়ান্ডারার্সে।

সেঞ্চুরিয়নে মাঠে নামার আগে আজ (১৭ মার্চ) ম্যাচ পূর্ববর্তী দিন সংবাদ সম্মেলনে টাইগার দলপতি বাস্তবতা তুলে ধরেন। তার মতে পরিসংখ্যান যাই বলুক মাঠে নিজেদের ভালো খেলতেই হবে।

‘সাধারণত এখানে ওয়ানডে খেলার খুব বেশি অভিজ্ঞতা নেই আমাদের। এখানে খেলাটা তাই বেশ চ্যালেঞ্জিং হবে সত্যি। এই একটা মাঠ যেটাতে আমি পরিসংখ্যানের হিসেবে যাই তো দেখতে পাব যে এখানে খুব রান হয় কারণ মাঠের সাইজ একটু ছোট ও আউটফিল্ড খুব ফাস্ট। তো পরিসংখ্যানের দিকে তাকালে বলতেই হবে এটা রানের মাঠ।’

‘পাশাপাশি আমাকে এটাও স্বীকার করতে হবে যে যতই পরিসংখ্যান দেখিনা কেন আমাদের মাঠে ভালো করতে হবে। আর আমরা এই চ্যালেঞ্জের অপেক্ষায় আছি। আমরা জানি ওরা আমাদের ওপর শক্তভাবে ঝাঁপিয়ে পড়বে কোন সন্দেহ নেই। তো এই দিকটা আমাদের ভালোভাবে সামলাতে।’

দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে এর আগে কোনো ম্যাচই জেতা হয়নি বাংলাদেশের। তবে এবার তামিম ইকবালরা বেশ আশাবাদী। আশার পালে হাওয়া দিচ্ছে দুই দলের সর্বশেষে লড়াইয়ে প্রোটিয়াদের হারানো গেছে বলে। ২০১৯ বিশ্বকাপে কেনিংটন ওভালে ২১ রানে হেরেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা।

তামিম যোগ করেন, ‘সম্প্রতি আমরা ওদের সঙ্গে ভালো খেলেছি। যেমন বিশ্বকাপে। আর আমি বিশ্বাস করি যে এখানে ভালো করতে না পারার কোন কারণ নেই। তবে আমি যত কিছুই বলি না কেন দেখতে হবে কাল আমরা শুরুটা কেমন করি। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণণ বিষয় হবে কালকের শুরুটা।’

বাংলাদেশের কোচিং স্টাফে সাম্প্রতিক সময়ে দক্ষিণ আফ্রিকানদের আধিক্যতা বেশি। প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর সাথে এই সফর দিয়েই পেস বোলিং কোচ হিসেবে যাত্রা শুরু হয়েছে অ্যালান ডোনাল্ডের। সাথে দেশটির সাবেক অলরাউন্ডার অ্যালবি মরকেলকে পাওয়ার হিটিং কোচ হিসেবে ওয়ানডে সিরিজের আগে কয়েকটি সেশনের জন্য দলের সাথে রাখা হয়েছে।

কোচিং স্টাফে থাকা দক্ষিণ আফ্রিকানদের কাছ থেকে তামিমরাও নিচ্ছেন পরামর্শ। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে বিরুদ্ধ কন্ডিশনে ভালো খেলার টোটকা জানার চেষ্টা টাইগার শিবিরের।

তামিম বলেন, ‘আমাদের সঙ্গে ডোনাল্ড নতুন জয়েন করেছেন। অ্যালবি মরকেল আছে গত দুই দিন ধরে অনুশীলনে আছে। তো চেষ্টা করছি সবাই সবার মতো করে তাদের কাছ থেকে যতটুকু সম্ভব নেয়ার। মাঠের ব্যাপারে মানে চেজ করলে ভালো না ব্যাটিং করলে ভালো? এছাড়া বিপক্ষের ক্রিকেটারদের ব্যাপারেও জানার চেষ্টা করছি।’

‘আর উনারা বেশ সহযোগীতাও করছে। কিন্তু আমি সবসময়ই একটা কথা বলি এসব কিছু যতই থাকুক, মাঠের বিষয়টাই দিন শেষে গুরুত্বপূর্ণ। আপনি খেলার আগে অনেক তথ্য পেতে পারেন কিন্তু মাঠে গিয়ে কিভাবে চাপটা নিচ্ছেন বা মানিয়ে নিচ্ছেন, কিভাবে পরিকল্পনাগুলোকে সফল করছেন সেটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তো কাল প্রথম ম্যাচ সিরিজের আমি আশা করবো আমরা খুব ভাল ম্যাচ পাব।’

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

অধিকার নেই সিএসএ’র, তাই বাধ্য হয়েই তারকাদের ছাড়া টেস্ট স্কোয়াড

Read Next

ওয়েস্ট ইন্ডিজকে অল্পতে আটকে দিল বাংলাদেশ

Total
1
Share