রাওয়ালপিন্ডি টেস্ট নিয়ে বিব্রত রমিজ রাজা

পাকিস্তান সমর্থক ও ক্রিকেটারদের প্রতি রমিজ রাজার বার্তা
Vinkmag ad

ড্র হওয়া রাওয়ালপিন্ডি টেস্টকে টেস্ট ক্রিকেটের জন্য ভালো বিজ্ঞাপন মনে করছেন না পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান রমিজ রাজা। পাকিস্তানের ক্রিকেট পিচগুলোতে পুরোদমে কাজ শুরু করা দরকার। তবে ২০২১-২২ সালের মৌসুম শেষে সেটি সম্ভব বলে মন্তব্য করেন তিনি।

‘ড্র ম্যাচ কখনই টেস্ট ক্রিকেটের জন্য ভালো বিজ্ঞাপন নয়। আমি বুঝি যে বর্তমান সময়ে ৫ দিনে টেস্টের ফলাফল আসা উচিত। তবে সেটি ৯০ ভাগ আমরা পাই,’ পিসিবির অফিসিয়াল টুইটারে একটি ভিডিওতে বলেন রমিজ।

‘আমি ২-৩টি বিষয় স্মরণ করে দিতে চাই। প্রথমত, বিভিন্ন শিরোনামে এসেছে আমি চেয়ারম্যান হওয়ার সময় বলেছিলাম পাকিস্তানের পিচগুলোতে সম্পূর্ণরুপে ঠিক করতে হবে। অবশ্যই ঠিক করা প্রয়োজন। কিন্তু আমি সেপ্টেম্বরে দায়িত্ব নেই এবং ততদিনে ক্রিকেটীয় মৌসুম শুরু হয়ে গিয়েছে।’

‘৫-৬ মাস লাগবে পিচগুলো তৈরি করতে এবং মৌসুম ছাড়া সময়গুলোতে আপনারা দেখতে পারবেন অস্ট্রেলিয়া থেকে মাটি আনা হবে। আমরা বিশেষজ্ঞদের সাথে আলোচনা ও পরীক্ষা করে মাটির জন্য কাজ শুরু করে দিয়েছি। মার্চ-এপ্রিলে মৌসুম শেষ হলে পুরো পাকিস্তানে ৫০-৬০টি পিচ আমরা নতুনভাবে প্রস্তুত করবো।’

টেস্টের ৫ দিনে মাত্র ১৪ উইকেট পড়েছে। অস্ট্রেলিয়ার শক্তিশালী পেস আক্রমণ থাকলেও পাকিস্তানের বোলিং লাইনআপ ছিল দুর্বল। পেসারদের মধ্যে হাসান আলি ও ফাহিম আশরাফ, ওপেনার আবিদ আলি এবং লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ ইনজুরির কারণে দলে নেই।

‘ভক্তদের মধ্যে হতাশাটা বুঝা যায়। অবশ্যই টেস্টের ফলাফল আসলে বেশ ভালো হতো। ৩ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ হচ্ছে। আমাদের বুঝতে হবে আরও অনেক ক্রিকেট বাকি। তবে এটি মাথায় রাখতে হবে, আমরা যেন বাউন্সি বা পেস বোলিং পিচ না করি। তাতে অজিদের সুবিধা হয়ে যাবে।’

‘নিজেদের মাটিতে নিজেদের শক্তিমত্তা নিয়ে খেলতে হয়। আমাদের স্বল্পতা রয়েছে। দুর্ভাগ্যবশত আমাদের ওপেনিং বোলিং জুটিতে সমস্যা হচ্ছে, কেননা হাসান আলি ও ফাহিম আশরাফ ইনজুরিতে রয়েছে। একইসাথে আমাদের নতুন ওপেনিং ব্যাটিং জুটি করতে হয়েছে, যেখানে আবদুল্লাহ শফিক মাত্র ২-৩ ম্যাচ খেলেছে। আমরা তার ফর্মের ব্যাপারে দ্বিধান্বিত আছি, ভালো বোলিং আক্রমণের সামনে তার ব্যাট কথা বলতে পারবে কীনা। ইমাম উল হকের ফিরে আসাটা দারুণ হয়েছে।’

‘যখন আপনার উদ্বোধনী বোলিং ও ব্যাটিং জুটিতে সমস্যা, তখন আপনার সুযোগ নেওয়ার দরকার নেই। আমাদের লেগ স্পিনার ইয়াসির শাহ সুস্থ নয়। তাই আমাদেরকে ১৫ জনের মধ্যে একাদশ তৈরি করতে হয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার কথা ভুললে চলবে না, তারা শক্তিধর দল। অ্যাশেজ জয় করে এসেছে। তাদের প্রতিভাকে সম্মান দিতে হবে। তাই তাদের বিপক্ষে আগে থেকে কোন পরীক্ষামূলক কাজ করা যাবে না। আমাদের সেটি মাথায় রাখতে হবে।’

‘এই পারফরম্যান্সের মধ্য দিতে আমাদের আত্নবিশ্বাস অনেক বেড়েছে। ব্যাটিংয়ের সামর্থ্য দুর্দান্তভাবে ফুটেছে এবং বোলিংয়ে স্পিনার নোমান আলি ৬ উইকেট পেয়েছে। তাই, এগুলো আমাদের উজ্জ্বল দিক।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

কোভিড পজিটিভ ফাহিম আশরাফ, খেলবেন না দ্বিতীয় টেস্টেও

Read Next

ম্যানকাডের আইন পরিবর্তন হওয়ায় খুশি শচীন টেন্ডুলকার

Total
3
Share