ক্রিকেটকে বিদায় বললেন বিতর্কিত শ্রীশান্ত

আমাকে খেলতে ডাকুন, আমি আসবো- শ্রীশান্ত
Vinkmag ad

ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন ডানহাতি সুইং বোলার শান্তকুমারন নায়ার শ্রীশান্ত। ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য ছিলেন তিনি।

৩৯ বছর বয়সী শ্রীশান্ত ভারতের হয়ে ৩ ফরম্যাটে ৯০ বার প্রতিনিধিত্ব করেন, ১৬৯টি উইকেটের অধিকারী তিনি।

নিজের টুইটার একাউন্টে অবসরের কথা জানান শ্রীশান্ত। ‘দুঃখভরা কন্ঠে জানাচ্ছি, ভারতের ঘরোয়া ক্রিকেটের সকল ফরম্যাট থেকে অবসর নিচ্ছি। ভারতের পরবর্তী প্রজন্মের দ্বার উন্মুক্ত করে আমি আমার প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট ক্যারিয়ারের ইতি টানছি।’

‘এটা একান্তই আমার সিদ্ধান্ত। যদিও এ সিদ্ধান্তে আমি বিন্দুমাত্র খুশি নই। তবুও আমার জীবনের জন্য এটি সঠিক ও যোগ্য বলে মনে করছি আমি।’

২০১৩ সালে আইপিএলে স্পট ফিক্সিংয়ের জন্য রাজস্থান রয়্যালসের ৩ ক্রিকেটারের মধ্যে শ্রীশান্তও আজীবন নিষিদ্ধ হয়েছিলেন। ২০১৯ সালে সুপ্রীমকোর্ট তার সাজা কমিয়ে ৭ বছরে নিয়ে আসে। ২০২০ সালের সেপ্টেম্বরে তিনি মুক্তি পান।

তিনি ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে আবারও ক্রিকেটে ফিরে আসেন এবং কেরালা টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে ছিলেন। গত মৌসুমে তার বেশিরভাগ ম্যাচ ছিল সীমিত ওভারের। একটি প্রথম শ্রেণীর ম্যাচ খেলেছিলেন।

‘আজ আমার জন্য কঠিনতম দিন। তবে এটি একইসাথে আমার জন্য স্মরণীয় দিন। ইসিসি, এরনাকুলাম জেলা, বিভিন্ন লিগ ও টুর্নামেন্টে দলগুলোর হয়ে খেলা, কেরালা স্টেট ক্রিকেট সংস্থা, বিসিসিআই, ওয়ারউইকশায়ার কাউন্টি ক্রিকেট দল, ভারতীয় এয়ারলাইন্স ক্রিকেট দল, বিপিসিএল এবং আইসিসির প্রতি আমার সম্মান আছে,’ বলেন শ্রীশান্ত।

‘আমার ২৫ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে অনেক সাফল্য পেয়েছি এবং অনেক ক্রিকেট ম্যাচ জিতেছি। সর্বোচ্চ পর্যায়ের টুর্নামেন্টে ধৈর্য ও আগ্রহ নিয়ে অনুশীলন এবং কঠোর পরিশ্রম করে দলে খেলেছি। আমার পরিবার, সতীর্থ এবং ভারতের জনগণের জন্য দেশকে প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে আমি সম্মানিত বোধ করছি।’

৩৭.৫৯ গড়ে ৮৭টি টেস্ট উইকেট নিয়েছেন তিনি। ওয়ানডেতে ৬.০৫ ইকোনমিতে ৭৫ উইকেট এবং ১০টি-টোয়েন্টিতে ১২ উইকেট নিয়েছেন তিনি।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের পার্থক্য বুঝেছেন মুনিম

Read Next

কোভিড পজিটিভ ফাহিম আশরাফ, খেলবেন না দ্বিতীয় টেস্টেও

Total
17
Share