আইপিএল বনাম বাংলাদেশের বিপক্ষে হোম সিরিজ; সিদ্ধান্ত নেবে ক্রিকেটাররা

দক্ষিণ আফ্রিকার কাছেও পাত্তা পেল না বাংলাদেশ
Vinkmag ad

আইপিএল এবং বাংলাদেশের বিপক্ষে হোম সিরিজের মধ্যে বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত দক্ষিণ আফ্রিকান ক্রিকেট বোর্ড (সিএসএ) তাঁদের খেলোয়াড়দের উপর ছেড়ে দিয়েছে। প্রোটিয়া টেস্ট অধিনায়ক ডিন এলগারের মতে, আইপিএল চুক্তিতে থাকা খেলোয়াড়দের জন্য এটি একটি বিশ্বস্ততার পরীক্ষা হবে।

ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা (সিএসএ) তাঁদের খেলোয়াড়দের ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) এবং বাংলাদেশের বিরুদ্ধে আসন্ন সিরিজের মধ্যে বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত ছেড়ে দিয়েছে।

বাংলাদেশ দল দুটি টেস্ট এবং তিনটি ওয়ানডে খেলবে এই সফরে, যা ১৮ই মার্চ থেকে শুরু হবে। ১৮, ২০ এবং ২৩ মার্চ ওডিআই খেলা অনুষ্ঠিত হবে, তারপর ৩১ মার্চ থেকে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে টেস্ট সিরিজ।

অপরদিকে আইপিএলের ১৫ তম সংস্করণ ২৬শে মার্চ থেকে শুরু হতে চলছে। কিন্তু সিএসএ পাকিস্তান সুপার লিগের জন্য খেলোয়াড়দের এনওসি দেয়নি এবং তাদের ঘরোয়া প্রতিযোগিতাকে অগ্রাধিকার দিতে বলেছিল।

প্রোটিয়া টেস্ট অধিনায়ক ডিন এলগারের ভাষ্য,

‘খেলোয়াড়দের ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকাকে একটি ইঙ্গিত দিতে হবে যে তারা আইপিএলে যেতে আগ্রহী কিনা বা তারা টেস্ট দলের হয়ে খেলতে আগ্রহী কিনা। এটি খেলোয়াড়দের বক্সে রাখা কিছুটা কঠিন সিদ্ধান্ত হবে কিন্তু এই আমি অনুমান করছি, এখানেই আপনি দেখতে পাচ্ছেন যে খেলোয়াড়দের আনুগত্য কোথায় রয়েছে।’

‘তাদের অবশ্যই ভুলে যাওয়া উচিত নয় যে টেস্ট ক্রিকেট বা ওয়ানডে ক্রিকেটই তাঁদের আইপিএলে এনেছে এবং অন্যভাবে নয়।’

এই বছরের আইপিএলে বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি নিলামে ছয়জন নিয়মিত টেস্ট এবং তিনজন ওয়ানডে খেলোয়াড় সহ মোট ১১ জন দক্ষিণ আফ্রিকান খেলোয়াড়কে কিনেছে। দক্ষিণ আফ্রিকার পেস আক্রমণের অন্যতম সেরা কাগিসো রাবাদা, লুঙ্গি এনগিডি, আনরিখ নরকিয়া, মার্কো জানসেন এবং শীর্ষ ব্যাটসম্যান এইডেন মার্করাম, রাসি ভ্যান ডার ডুসেন, ডেভিড মিলার, অলরাউন্ডার ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস এবং উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি ককের আইপিএল চুক্তি রয়েছে।

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

দেশের ক্রিকেটের জন্য কি করেছে সংবাদমাধ্যম, প্রশ্ন পাপনের

Read Next

আরভিন পেলেন পূর্ণ দায়িত্ব, ফের যুক্ত হলেন ক্লুজনার

Total
8
Share