বিশ্বকাপ জয়ের চেয়েও রাশিদের চোখে বড় স্বপ্ন ঘরের মাঠে খেলা

শচীন-আফ্রিদিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ স্বপ্নের মতো লাগে রাশিদ খানের
Vinkmag ad

ঘর থেকেও যাযাবর বলা যায় আফগানিস্তানের ক্রিকেটারদের। হাঁটি হাঁটি পায়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এগোতে থাকা আফগানরা ইতোমধ্যে পেয়েছে আইসিসির পূর্ণ সদস্যপদ। যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশটি বেশ দ্রুতই বিশ্ব ক্রিকেটে নিজেদের অবস্থান জানান দিয়েছে দাপটের সাথে। তবে এখনো নিজেদের মাটিতে প্রতিপক্ষকে আতিথেয়তা দেওয়ার সৌভাগ্য হয়নি। দলটির তারকা রাশিদ খান বলছেন যা তার কাছে বিশ্বকাপ জয়ের চেয়েও বড় স্বপ্ন।

রাজনৈতিক অস্থিরতা কতটা ভয়াবহ হতে পারে তার বড় উদাহরণ আফগানিস্তান। বো*মার শব্দে ঘুম ভাঙা একটি দেশ থেকে উঠে এসে রাশিদ খান, মোহাম্মদ নবি, মুজিব উর রহমান, আসগর আফগান, মোহাম্মদ শেহজাদ কিংবা হালের কায়েস আহমেদ, ফজলহক ফারুকীর বিশ্ব দাপিয়ে বেড়ানো এক রোমাঞ্চকর যাত্রা।

তবে আফগানদের কোনো প্রজন্মই নিজেদের দেশের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার স্বাদ পায়নি। নিজ দেশের সমর্থকদের সামনে প্রতিপক্ষকে পরাজয়ের হতাশায় ডুবিয়ে পতাকাটা উঁচিয়ে ধরা হয়নি। সে আক্ষেপ রাশিদ খানের হৃদয়ে বেশ ভালোভাবেই রক্তক্ষরণ করায়।

বাংলাদেশের বিপক্ষে গতকাল (৫ মার্চ) দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি দিয়ে সফর শেষ হয় আফগানদের। ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে হারলেও টি-টোয়েন্টিতে ১-১ সমতা নিয়ে দেশে ফিরবে রাশিদ, নবিরা। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি শেষে এক সাক্ষাৎকারে রাশিদ নিজ দেশের মাটিতে খেলার স্বপ্ন নিয়ে বলতে গিয়ে আক্ষেপ ঝরিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘আমার নিজ দেশের মাটিতে খেলা আমার অনেক বড় এক স্বপ্ন। বিশ্বকাপ জেতার চাইতেও এটি আমার কাছে বড় স্বপ্ন। হোম কন্ডিশনে খেলা…আমরা দেখি বাংলাদেশ দল কতটা সমর্থন পায়, এটার অন্যরকম অনুভূতি। আমিও আমার দেশে এমন অনুভূতি চাই আর আমি মনে করি এটা প্রত্যেক খেলোয়াড়ের জন্যই স্বপ্ন। আমি আশা করি এটা দ্রুতই ঘটবে, যখন আমরা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছি। এটা যেকোনো দেশের একটি স্বপ্ন, যেকোনো খেলোয়াড়ের স্বপ্ন।’

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালে ওয়ানডে, ২০১০ সালে টি-টোয়েন্টি ও ২০১৮ সালে প্রথম টেস্ট খেলে আফগানিস্তান। এখনো পর্যন্ত খেলেছে ১৩৫ ওয়ানডে, ৯০ টি-টোয়েন্টি ও ৬ টি টেস্ট। যেখানে নিজেদের মাটিতে খেলা হয়নি একটিও, হোম ভেন্যু হিসেবে ই সময় তারা ব্যবহার করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত, কাতার, ভারতকে।

৯৭ প্রতিবেদক

Read Previous

নাইমের পিঠ চাপড়ে দেওয়া লোকের অভাব হচ্ছে না, পরিকল্পনা নেই বাদ দেওয়ারও

Read Next

কৃতজ্ঞতাবোধ থেকেই দেশের হয়ে খেলাটা রাশিদের কাছে সবার আগে

Total
9
Share