তামিম-ফারুকি ইস্যুতে ওয়ার্নার-আর্চারের উদাহরণ টানলেন মাশরাফি

মাশরাফি বিন মর্তুজা তামিম ইকবাল
Vinkmag ad

শেষ হয়েছে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের মধ্যকার ৩ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। প্রথম দুই ম্যাচ জিতলেও শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের কাছে হেরে বসে বাংলাদেশ। ৩ ম্যাচেই ব্যর্থ হয়েছেন বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল, ফজল হক ফারুকির বলে পরাস্ত হয়েছেন আইডেন্টিকাল ডেলিভারিতে।

তামিমের এমন ব্যর্থতা নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে বিস্তর। যা নজর এড়ায়নি বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজার। নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে তামিমের হয়ে ব্যাট করেছেন মাশরাফি, দিয়েছেন ওয়ার্নারের উদাহরণও।

মাশরাফির মতে, ‘তিন ম্যাচে একই বোলারের সামনে আউট হলেই তার ব্যাটিং টেকনিক খারাপ হয়ে যায়না, স্পেশালি যদি কেউ নির্দিষ্ট ফরম্যাটে সাড়ে সাত হাজারেরও বেশি রান করে থাকে। আর সুইং বলে যে কোন ওপেনার ব্যাটসম্যানেরই এ রকম একটা সিরিজ যেতে পারে। এর আগে এরকম অনেক দেখেছি,ওয়ার্নারকে দেখেছি জফরা আর্চারের সামনে বার বার একই ভাবে আউট হতে। আবার স্মিথকে (সাবেক ক্যাপ্টন সা.আফ্রিকা) দেখেছি জহির খানের সামনে অনেকবার নিক করতে।’

‘মূলত সবারই কিছু না কিছু দূর্বলতা থাকে, যখন অপনেন্ট ঐ দূর্বল জায়গায় রিপিটেডলি অ্যাটাক করতে সামর্থ হয়,তখনই এ ধরণের ঘটনা ঘটতে পারে সেটা একজন নির্দিষ্ট বা দলের যে কোন বোলারের দ্বারা। কিন্তু অবশ্যই মডার্ন ক্রিকেটে এটা স্থায়ী হয়না। বিশেষ করে তামিমের মতো খেলোয়ারের ক্ষেত্রে তো নাই। তবে অবশ্যই আফগানিস্থান এবং ফারুকির ক্রেডিট যে তারা তামিমকে ট্র‍্যাপ করতে পেরেছে এবং সফলও হয়েছে।’

‘আবার ও বলছি হাতে কাজ না থাকলে এই বিয়য় নিয়ে কথা বলা যায় বা চাইলে সমালোচনাও করা যায়। যে যেভাবে দেখে আরকি।’

ইয়াসির আলি রাব্বির ক্ষেত্রে ধৈর্য ধরার পরামর্শ দিলেন মাশরাফি। তামিম ইকবালকে সিরিজ জয়ের জন্য অভিনন্দন জানিয়ে অফ ফর্মে থাকা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের জন্য শুভকামনা জানিয়েছেন বাংলাদেশের সফলতম পেস বোলার।

ফেসবুকে মাশরাফি লেখেন, ‘ইয়াসির আলিকে নিয়ে সামনে কি হবে কে জানে। কিন্তু একজন নতুন খেলোয়ার যে কিনা আফগানদের স্পিন এবং প্রথম ম্যাচে সুইং এর মধ্যে পড়ে গিয়েছে। আশা করছি সবাই ওর ক্ষেত্রে ধৈর্য ধারণ করবে এবং সেও যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব সব মানিয়ে নিয়ে রান করবে।’

‘সিম্পলি, সবাই প্রয়োজনের সময় ভালো কিছু করেছে এই জন্যই সিরিজটা জিতেছি আমরা। তবে অবশ্যই স্পেশাল কিছু ইনিংস এবং স্পেল ছিলো। আফিফ, মিরাজ, লিটন, মুশফিক, তাসকিন, শরিফুল, মুস্তাফিজ দারুন কিছু মুহুর্ত দিয়েছে আমাদেরকে। তামিমকে অভিনন্দন জানিয়ে রিয়াদের জন্য শুভকামনা।’

৯৭ ডেস্ক

Read Previous

জাতীয় দলকে কোচিং করানোর স্বপ্ন দেখছেন আফতাব আহমেদ

Read Next

ফারজানার অমন ব্যাটিংয়ের পরেও হারল বাংলাদেশ

Total
12
Share